সুনান আন-নাসায়ী (ইসলামিক ফাউন্ডেশন) ৫৭৫৮ টি হাদিস ইসলামিক ফাউন্ডেশন সম্পূর্ণ হাদিস গ্রন্থটি একসাথে পড়ুন
অধ্যায় ও পরিচ্ছেদ তালিকা সর্বমোট হাদিস | হাদিসের ব্যাপ্তি
১/ পবিত্রতা (كتاب الطهارة) ৩২৫ টি | ১-৩২৫ পর্যন্ত 1/ The Book of Purification
  • ১/ মহান আল্লাহর বাণীঃ "যখন তোমরা নামাযে দাঁড়াবে তখন তোমাদের মুখমণ্ডল দু'হাত কুনুই পর্যন্ত ... ধুয়ে নিবে" - এর ব্যখ্যা
  • ২/ রাতের বেলা নামায আদায় করতে উঠলে মিসওয়াক করা।
  • ৩/ মিসওয়াক কিভাবে করবে?
  • ৪/ সর্দার তাঁর অধস্তনের সামনে মিসওয়াক করবেন কি?
  • ৫/ মিসওয়াক করার প্রতি উৎসাহ দান করা
  • ৬/ বেশী বেশী মিসওয়াক করা।
  • ৭/ রোজাদারের জন্য অপরাহ্ণে মিসওয়াক করার অনুমতি
  • ৮/ সবসময় মিসওয়াক করা
  • ৯/ ফিতরাত প্রসঙ্গ - খাতনা
  • ১০/ নখ কাটা প্রসঙ্গ
  • ১১/ বগলের লোম উপড়ে ফেলা
  • ১২/ নাভির নিচের লোম চেছে ফেলা
  • ১৩/ গোঁফ ছাটা প্রসঙ্গ
  • ১৪/ এ সব কাজের জন্য সময় নির্ধারণ করা
  • ১৫/ গোঁফ ছাঁটা ও দাড়ি লম্বা করা
  • ১৬/ পায়খানা প্রস্রাবের সময় দূরে যাওয়া
  • ১৭/ দূরে না যাওয়ার অনুমতি
  • ১৮/ পায়খানা প্রস্রাবের স্থানে প্রবেশ করার সময় দুআ পাঠ করা
  • ১৯/ পায়খানা প্রস্রাব করার সময় কিবলামুখী হওয়া নিষেধ
  • ২০/ পায়খানা প্রস্রাব করার সময় কিবলাকে পিছনে রেখে বসা নিষেধ
  • ২১/ পায়খানা প্রস্রাব করার সময় পূর্ব অথবা পশ্চিম দিকে ফিরে বসার নির্দেশ
  • ২২/ ঘরের ভিতরে কিবলামুখী হয়ে বসার অনুমতি
  • ২৩/ প্রস্রাব করার সময় ডান হাত দ্বারা লিঙ্গ স্পর্শ করা নিষেধ
  • ২৪/ খোলা জায়গায় দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করার অনুমতি
  • ২৫/ ঘরে নির্মিত প্রস্রাবখানায় বসে প্রস্রাব করা
  • ২৬/ কোন সুতরার দ্বারা আড়াল করে প্রস্রাব করা
  • ২৭/ প্রস্রাবের ছিটা থেকে বেঁচে থাকা
  • ২৮/ পাত্রে প্রস্রাব করা
  • ২৯/ তামার পাত্রে প্রস্রাব করা
  • ৩০/ গর্তে প্রস্রাব করা মাকরূহ
  • ৩১/ বদ্ধ পানিতে প্রস্রাব করা মাকরূহ
  • ৩২/ গোসলখানায় প্রস্রাব করা মাকরূহ
  • ৩৩/ প্রস্রাবরত ব্যক্তিকে সালাম করা
  • ৩৪/ ওযু করার পর সালামের উত্তর দেয়া
  • ৩৫/ হাড় দিয়ে কুলুখ করা নিষেধ
  • ৩৬/ গোবর দিয়ে কুলুখ করা নিষেধ
  • ৩৭/ পবিত্রতা অর্জনকালে তিনটির কম ঢিলা ব্যবহার করা নিষেধ
  • ৩৮/ দুটি ঢিলা দ্বারা পবিত্রতা অর্জন করার অনুমতি
  • ৩৯/ একটি ঢিলা দিয়ে পবিত্রতা অর্জন করার অনুমতি
  • ৪০/ শুধু ঢিলা দিয়ে পবিত্রতা অর্জন যথেষ্ট
  • ৪১/ পানির দ্বারা পবিত্রতা অর্জনের প্রসঙ্গে
  • ৪২/ ডান হাতে ইস্তিঞ্জা করা নিষেধ
  • ৪৩/ ইস্তিঞ্জার পর হাত মাটিতে ঘষা
  • ৪৪/ পানির (পাক নাপাক হওয়ার) ব্যাপারে পরিমাণ নির্ধারণ
  • ৪৫/ পানির পরিমাণ নির্ধারণ না করা
  • ৪৬/ আবদ্ধ পানির বর্ণনা
  • ৪৭/ সাগরের পানি প্রসঙ্গে
  • ৪৮/ বরফ দ্বারা ওযু করা
  • ৪৯/ বরফের পানি দিয়ে ওযু করা
  • ৫০/ শিলাবৃষ্টির পানি দিয়ে ওযু করা
  • ৫১/ কুকুরের উচ্ছিষ্টের বর্ণনা
  • ৫২/ পাত্রে কুকুর মুখ দিলে পাত্রের জিনিস ঢেলে ফেলে দেয়ার নির্দেশ
  • ৫৩/ কুকুরের মুখ দেয়া পাত্র মাটি দিয়ে পরিষ্কার করা সম্পর্কে
  • ৫৪/ বিড়ালের উচ্ছিষ্ট
  • ৫৫/ গাধার উচ্ছিষ্ট
  • ৫৬/ ঋতুবতি মহিলার উচ্ছিষ্ট
  • ৫৭/ নারী পুরুষের একসাথে ওযু করা
  • ৫৮/ নাপাক ব্যক্তির ব্যবহৃত অতিরিক্ত পানি
  • ৫৯/ ওযু করতে একজন লোকের জন্য কতটুকু পরিমাণ পানি যথেষ্ট
  • ৬০/ ওযুর নিয়্যাত
  • ৬১/ পাত্র থেকে ওযু করা
  • ৬২/ ওযু করার সময় বিসমিল্লাহ পাঠ করা
  • ৬৩/ পুরুষের জন্য খাদেমের ওযুর পানি ঢেলে দেয়া
  • ৬৪/ ওযুর অঙ্গসমুহ একবার করে ধৌত করা
  • ৬৫/ ওযুর অঙ্গসমুহ তিন তিন বার ধৌত করা
  • ৬৬/ ওযুর বর্ণনায় উভয় কব্জি ধৌত করা প্রসঙ্গে
  • ৬৭/ কব্জি কতবার ধৌত করতে হবে
  • ৬৮/ কুলি করা ও নাক পরিষ্কার করা
  • ৬৯/ কোন হাতে কুলি করতে হবে
  • ৭০/ নাক পরিষ্কার করা
  • ৭১/ নাক ভাল করে পরিষ্কার করা
  • ৭২/ নাক ঝাড়ার নির্দেশ
  • ৭৩/ ঘুম থেকে জেগে উঠার পর নাক ঝেড়ে ফেলার নির্দেশ
  • ৭৪/ কোন হাতে নাক ঝাড়তে হবে ?
  • ৭৫/ মুখমণ্ডল ধৌত করা
  • ৭৬/ মুখমণ্ডল ধোয়ার সংখ্যা
  • ৭৭/ দু'হাত ধৌত করা প্রসঙ্গে
  • ৭৮/ ওযুর বর্ণনা
  • ৭৯/ দু'হাত ধৌত করার সংখ্যা
  • ৮০/ ধৌত করার সীমা
  • ৮১/ মাথা মাসাহ করার নিয়ম
  • ৮২/ মাথা মাসাহ এর সংখ্যা
  • ৮৩/ মহিলাদের মাথা মাসাহ করা
  • ৮৪/ দু'কান মাসাহ করা প্রসঙ্গে
  • ৮৫/ মাথার সাথে কান মাসাহ করা ও তার বর্ণনা যা দিয়ে প্রমাণ করা হয় যে, উভয় কান মাথার অংশ
  • ৮৬/ পাগড়ীর উপর মাসাহ করা
  • ৮৭/ কপাল সহ পাগড়ী উপর মাসাহ করা
  • ৮৮/ পাগড়ীর উপর কীভাবে মাসাহ করতে হবে ?
  • ৮৯/ উভয় পা ধোওয়া ওয়াজিব
  • ৯০/ কোন পা প্রথমে ধৌত করবে ?
  • ৯১/ দু' হাত দিয়ে দু' পা ধোয়া
  • ৯২/ আঙ্গুল খিলাল করার নির্দেশ
  • ৯৪/ (হাত ও পা) ধৌত করার সীমা
  • ৯৫/ জুতা পরা অবস্থায় ওযু করার প্রসঙ্গে
  • ৯৬/ মোজার উপর মাসাহ করা
  • ৯৭/ ভ্রমনে মোজার উপর মাসাহ করা প্রসঙ্গে
  • ৯৮/ মুসাফিরের জন্য মোজার উপর মাসাহ করার সময়সীমা
  • ৯৯/ মুকীমের জন্য মোজার উপর মাসাহ করার সময়সীমা
  • ১০০/ ওযু ভঙ্গ হওয়া ছাড়া ওযু করার বর্ণনা
  • ১০১/ প্রত্যেক নামাযের জন্য ওযু করা প্রসঙ্গে
  • ১০২/ (ওযুর পর) পানি ছিটানো
  • ১০৩/ ওযুর উদ্বৃত্ত পানি দ্বারা লাভবান হওয়া
  • ১০৪/ ওযু ফরয হওয়া প্রসঙ্গে
  • ১০৫/ ওযুতে সীমালঙ্ঘন
  • ১০৬/ ভালভাবে ওযু করার নির্দেশ
  • ১০৭/ পূর্ণরূপে ওযু করার ফযীলত
  • ১০৮/ আদেশ অনুযায়ী যে ব্যক্তি ওযু করে তার সওয়াব
  • ১০৯/ ওযু শেষে যা বলতে হয়
  • ১১০/ ওযুর জ্যোতি
  • ১১১/ যে লোক ওযু করে দু' রাকআত নামায পড়ে তার সওয়াব
  • ১১২/ মাযী কখন ওযু নষ্ট করে এবং কখন করে না
  • ১১৩/ পায়খানা প্রস্রাবের পর ওযু করা
  • ১১৪/ পায়খানা করার পর ওযু করা
  • ১১৫/ বায়ু নির্গমনে ওযু করা
  • ১১৬/ ঘুমের কারণে ওযু করা প্রসঙ্গে
  • ১১৭/ তন্দ্রার বিবরণ
  • ১১৮/ পুরুষাঙ্গ স্পর্শ করার কারণে ওযু করা
  • ১১৯/ পুরুষাঙ্গ স্পর্শ করায় ওযু না করা
  • ১২০/ কামভাব ছাড়া কোন লোক স্বীয় স্ত্রীকে স্পর্শ করলে ওযু না করা।
  • ১২১/ চুমু দেওয়ার পর ওযু না করা প্রসঙ্গে
  • ১২২/ আগুনে জাল দেয়া জিনিস খাবার পরে ওযু করা
  • ১২৩/ আগুনে সিদ্ধ জিনিস খাওয়ার পর ওযু না করা
  • ১২৪/ ছাতু খাওয়ার পর কুলি করা প্রসঙ্গে
  • ১২৫/ দুধ পান করার পর কুলি করা
  • ১২৬/ যাতে গোসল ওয়াজিব আর যাতে গোসল ওয়াজিব হয় না এবং মুসলিম হওয়ার জন্য কাফিরের গোসল করা
  • ১২৭/ কাফির ইসলাম গ্রহণ করতে চাইলে প্রথমেই গোসল করে নেয়া
  • ১২৮/ মুশরিককে দাফন করার পর গোসল করা
  • ১২৯/ দুই লজ্জাস্থান পরস্পর মিলিত হলে গোসল ওয়াজিব হওয়া
  • ১৩০/ বীর্যপাতের দরুন গোসল করা প্রসঙ্গ
  • ১৩১/ পুরুষের ন্যায় স্ত্রীলোক স্বপ্ন দেখলে তার গোসল করা
  • ১৩২/ যার স্বপ্নদোষ হয় অথচ বীর্য দেখে না
  • ১৩৩/ পুরুষ ও নারীর বীর্যের পার্থক্য
  • ১৩৪/ হায়যের পর গোসল করা প্রসঙ্গে
  • ৯৩/ দু'পা ধৌত করার সংখ্যা
  • ১৩৫/ হায়যের মুদ্দত সম্পর্কিত বর্ণনা
  • ১৩৬/ ইস্তিহাযায় আক্রান্ত নারীর গোসল
  • ১৩৭/ নিফাসের গোসল প্রসঙ্গ
  • ১৩৮/ হায়য ও ইস্তিহাযার রক্তের পার্থক্য নির্ণয়
  • ১৩৯/ বদ্ধ পানিতে নাপাক লোকের গোসল না করা
  • ১৪০/ বদ্ধ পানিতে প্রস্রাব এবং গোসল না করা
  • ১৪১/ রাতের প্রথমভাগে গোসল করা প্রসঙ্গে
  • ১৪২/ রাতের প্রথম ও শেষে গোসল করা
  • ১৪৩/ গোসলের সময় পর্দা করা
  • ১৪৪/ পুরুষের গোসলের জন্য কি পরিমাণ পানির প্রয়োজন হয়
  • ১৪৫/ এ ব্যাপারে (গোসলের পানির) কোন নির্দিষ্ট পরিমাণ না থাকার বিবরণ
  • ১৪৬/ স্বামী ও স্ত্রীর একই পাত্র হতে গোসল করা
  • ১৪৭/ অপবিত্র ব্যক্তির উদ্বৃত্ত পানি দ্বারা গোসল করা নিষেধ
  • ১৪৮/ এ ব্যাপারে সুযোগ প্রদান
  • ১৪৯/ এমন পাত্রে গোসল করা যাতে আটা খামির করা হয়
  • ১৫০/ জানবাতের গোসলের নারীর মাথার বেনী না খোলা
  • ১৫১/ ইহরামের গোসলে ঋতুমতির জন্য বেনী খোলার আদেশ
  • ১৫২/ পাত্রে হাত ঢুকাবার আগে অপবিত্র ব্যক্তির হাত ধৌত করা
  • ১৫৩/ দু'হাত পাত্রে ঢুকাবার আগে কতবার ধুতে হবে
  • ১৫৪/ নাপাক ব্যক্তি স্বীয় দু'হাত ধোয়ার পর শরীর থেকে ময়লা দুর করা
  • ১৫৫/ অপবিত্র ব্যক্তি তার শরীর থেকে ময়লা দুর করার পর পুনরায় হাত ধোয়া
  • ১৫৬/ গোসলের আগে অপবিত্র ব্যক্তির ওযু করা
  • ১৫৭/ অপবিত্র ব্যক্তির মাথা খিলাল করা প্রসঙ্গ
  • ১৫৮/ নাপাক ব্যক্তি মাথায় যতটুকু পানি ঢাললে যথেষ্ট হবে
  • ১৫৯/ হায়য হতে পবিত্রতার জন্য গোসলের মধ্যে করণীয়
  • ১৬০/ গোসলের পর ওযু না করা
  • ১৬১/ গোসলের জায়গা ত্যাগ করে অন্য জায়গায় পা ধৌত করা
  • ১৬২/ গোসলের পর রুমাল ব্যবহার না করা প্রসঙ্গে
  • ১৬৩/ পানাহারের প্রয়োজনে অপবিত্র ব্যক্তির ওযু করা প্রসঙ্গে
  • ১৬৪/ অপবিত্র ব্যক্তি খাবার খেতে ইচ্ছা করলে শুধু তার দু'হাত ধুবেন
  • ১৬৫/ পানাহারের ইচ্ছা করলে অপবিত্র ব্যক্তি শুধু তার দু'হাত ধুবে
  • ১৬৬/ ঘুমের ইচ্ছা করলে অপবিত্র ব্যক্তির ওযু করা
  • ১৬৭/ অপবিত্র ব্যক্তি নিদ্রা যেতে ইচ্ছা করলে ওযু করা এবং লজ্জাস্থান ধোয়া
  • ১৬৮/ অপবিত্র ব্যক্তি যদি ওযু না করে
  • ১৬৯/ অপবিত্র ব্যক্তি পুনঃসহবাস করতে ইচ্ছা করলে
  • ১৭০/ গোসল না করে একাধিক স্ত্রীর কাছে যাওয়া
  • ১৭১/ অপবিত্র ব্যক্তির কুরআন তিলাওয়াত থেকে বিরত থাকা
  • ১৭২/ অপবিত্র ব্যক্তিকে স্পর্শ করা ও তার সঙ্গে বসা
  • ১৭৩/ ঋতুমতি স্ত্রীর খেদমত নেয়া প্রসঙ্গে
  • ১৭৪/ মসজিদে ঋতুমতির চাটাই বিছানো
  • ১৭৫/ ঋতুমতি স্ত্রীর কোলে মাথা রেখে কুরআন তিলাওয়াত করা
  • ১৭৬/ ঋতুমতি স্ত্রী কর্তৃক স্বামীর মাথা ধোয়া
  • ১৭৭/ ঋতুমতির সাথে খাওয়া এবং তার ভুক্তাবশেষ পানীয় পান করা
  • ১৭৮/ ঋতুমতির ভুক্তাবশেষ খাওয়া
  • ১৭৯/ ঋতুমতির সাথে শয়ন করা
  • ১৮০/ ঋতুমতির শরীরের সাথে শরীর মিলানো
  • ১৮১/ মহান আল্লাহ্‌র বাণীঃ "তারা তোমাকে হায়য সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করে" এর ব্যাখ্যা
  • ১৮২/ যে লোক হায়য অবস্থায় আল্লাহ্‌র নির্দেশ সম্পর্কে জানা সত্ত্বেও সহবাস করে তার উপর কি ওয়াজিব হবে ?
  • ১৮৩/ মুহরিম মহিলা ঋতুমতি হলে কি করবে ?
  • ১৮৪/ ইহরামের সময় নিফাসওয়ালিদের করণীয় প্রসঙ্গে
  • ১৮৫/ হায়যের রক্ত কাপড়ে লাগলে
  • ১৮৬/ কাপড়ে যদি বীর্য লাগে
  • ১৮৭/ কাপড় থেকে বীর্য তুলে ফেলা
  • ১৮৯/ খাদ্যগ্রহণ করেনি এমন বাচ্চার প্রস্রাব প্রসঙ্গে
  • ১৮৮/ কাপড় থেকে বীর্য তুলে ফেলা
  • ১৯০/ ছোট বালিকার প্রস্রাব প্রসঙ্গে
  • ১৯১/ হালাল পশুর প্রস্রাব প্রসঙ্গে
  • ১৯২/ যে পশুর গোশত খাওয়া হালাল তার পেটের গোবর কাপড়ে লাগা প্রসঙ্গে
  • ১৯৩/ থুথু কাপড়ে লাগা প্রসঙ্গে
  • ১৯৪/ তায়াম্মুমের সূচনা
  • ১৯৫/ মুকিমের তায়াম্মুম
  • ১৯৬/ ভ্রমনে তায়াম্মুম
  • ১৯৭/ তায়াম্মুমের নিয়ম সম্পর্কে মতভেদ
  • ১৯৮/ আর এক প্রকারের তায়াম্মুম এবং হাতে ফুঁক দেয়া
  • ১৯৯/ আর এক প্রকারের তায়াম্মুম
  • ২০০/ তায়াম্মুম এর অন্য প্রকার
  • ২০১/ অপবিত্র লোকের তায়াম্মুম
  • ২০২/ মাটি দ্বারা তায়াম্মুম করা প্রসঙ্গে
  • ২০৩/ এক তায়াম্মুমে অনেক সালাত
  • ২০৪/ যে ব্যক্তি মাটি ও পানির কোনটাই পান না
  • ২/ পানির বিবরন (كتاب المياه) ২৩ টি | ৩২৬-৩৪৮ পর্যন্ত 2/ The Book of Water
  • আল্লাহ তা'আলার বাণীঃ "এবং আমি আকাশ হতে বিশুদ্ধ পানি বর্ষণ করি" (২৫ঃ ৪৮)। "এবং আকাশ হতে তোমাদের উপর বারি বর্ষণ করেন তদ্বারা তোমাদের পবিত্র করার জন্য" (৮ঃ ১১)। "এবং যদি পানি না পাও তবে পবিত্র মাটি দ্বারা তায়াম্মুম করবে" (৮ঃ ১১)।
  • ১/ বুযা'আহ নামক কুপ খনন প্রসঙ্গে আলোচনা
  • ২/ পানির পরিমাণ নির্ণয় করা
  • ৩/ বদ্ধ পানিতে অপবিত্র লোকের গোসল করার প্রতি নিষেধাজ্ঞা
  • ৪/ সাগরের পানি দ্বারা ওযু করা
  • ৫/ বরফ ও বৃষ্টির পানি দ্বারা ওযু করা
  • ৬/ কুকুরের উচ্ছিষ্ট
  • ৭/ কোন পাত্রে কুকুরের মুখ দেয়ার দরুন তা মাটি দিয়ে ঘসে লওয়া
  • ৮/ বিড়ালের উচ্ছিষ্ট
  • ৯/ ঋতুমতি স্ত্রীর ঝুটা
  • ১০/ স্ত্রীর উদ্বৃত্ত পানি ব্যবহারের অনুমতি প্রদান
  • ১১/ স্ত্রীর উদ্বৃত্ত পানি দ্বারা ওজু করা নিষেধ
  • ১২/ অপবিত্র ব্যক্তির উদ্বৃত্ত পানি ব্যবহারের অনুমতি প্রসঙ্গ
  • ১৩/ একজন লোকের ওজু ও গোসলের জন্য কতটুকু পানি প্রয়োজন
  • ৩/ হায়েজ ও ইস্তিহাজা প্রসঙ্গে (كتاب الحيض والاستحاضة) ৪৭ টি | ৩৪৯-৩৯৫ পর্যন্ত 3/ The Book of Menstruation and Istihadah
  • ১/ হায়য শুরু হওয়া এবং হায়যকে নিফাস বলা যায় কি?
  • ২/ ইস্তিহাযার বর্ণনাঃ রক্ত শুরু হওয়া এবং তা বন্ধ হওয়া
  • ৩/ যে স্ত্রীর প্রতি মাসে হায়েজের দিন নির্দিষ্ট থাকে
  • ৪/ হায়জের মুদ্দতের বিবরণ
  • ৫/ ইস্তিহাজাগ্রস্ত মহিলার দুটি নামায একত্রিত করা আর যখন একত্রিত করবে তখন তাজ্জন্য গোসল করা প্রসঙ্গে
  • ৬/ হায়জ ও ইস্তিহাজার রক্তের পার্থক্য
  • ৭/ হলুদ রঙ আর মেটে রঙ (হায়যের নয়)
  • ৮/ হায়জগ্রস্ত স্ত্রীর সাথে যা করা জায়িজ এবং আল্লাহ তাআলার নিম্নোক্ত বাণীর ব্যাখ্যা "লোকে তোমাকে রক্তস্রাব সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করে। বলে দাও, তা অশুচি। সুতরাং তোমরা রক্তস্রাবকালে স্ত্রী সঙ্গম বর্জন করবে" (সূরা আল-বাকারাহ-২২২)
  • ৯/ আল্লাহ তা'আলার নিষেধাজ্ঞা জানা সত্ত্বেও যে লোক তার স্ত্রীর সঙ্গে হায়জ অবস্থায় সহবাস করে তবে তার উপর সে শাস্তি নির্ধারিত তার বিবরণ
  • ১০/ হায়যগ্রস্থ স্ত্রীর সাথে তার হায়য বস্ত্রে একত্রে শয্যা গ্রহণ
  • ১১/ একই কাপড়ের নিচে ঋতুমতী স্ত্রীর সঙ্গে স্বামীর শয্যা গ্রহণ
  • ১২/ ঋতুমতী স্ত্রীর শরীরে শরীর মিলানো
  • ১৩/ যখন রাসুলুল্লাহ (ﷺ) এর কোন স্ত্রী ঋতুমতী হতেন তখন তিনি তার সঙ্গে যা করতেন।
  • ১৪/ ঋতুমতীর সাথে একত্রে খাদ্য খাওয়া ও তার উচ্ছিষ্ট থেকে পান করা
  • ১৫/ ঋতুমতীর ভুক্তাবশেষ ব্যবহার করা
  • ১৬/ ঋতুমতী স্ত্রীর কোলে মাথা রেখে স্বামীর কুরআন পাঠ করা
  • ১৭/ ঋতুমতী স্ত্রীদের নামায আদায় থেকে অব্যাহতি প্রাপ্তি
  • ১৮/ ঋতুমতী স্ত্রীর খেদমত গ্রহণ
  • ১৯/ ঋতুমতী নারীর মসজিদে চাটাই বিছানো
  • ২০/ মসজিদে ইতিকাফরত স্বামীর মাথা ঋতুমতীর আঁচড়িয়ে দেয়া
  • ২১/ ঋতুমতী স্ত্রী স্বামীর মাথা ধৌত করে দেয়া প্রসঙ্গে
  • ২২/ ঋতুমতী মহিলাদের ঈদে মুসলিমদের দু'আতে উপস্থিত হওয়া
  • ২৩/ যে স্ত্রীলোক তাওয়াফে ইফাজার পরে ঋতুমতী হয়
  • ২৪/ নিফাসওয়ালী স্ত্রীলোক ইহরামের সময় কি করবে?
  • ২৫/ নিফাসওয়ালী মহিলার জানাযার নামায
  • ২৬/ ঋতুর রক্ত কাপড়ে লাগলে
  • ৪/ গোসল ও তায়াম্মুম (كتاب الغسل والتيمم) ৫৩ টি | ৩৯৬-৪৪৮ পর্যন্ত 4/ The Book of Ghusl and Tayammum
  • ১/ আবদ্ধ পানিতে অপবিত্র ব্যক্তির গোসলে নিষেধাজ্ঞা
  • ২/ হাম্মামে প্রবেশের অনুমতি
  • ৩/ বরফ ও মেঘের পানিতে গোসল করা
  • ৪/ ঠাণ্ডা পানি দ্বারা গোসল করা
  • ৫/ ঘুমের আগে গোসল করা
  • ৬/ রাতের প্রথম ভাগে গোসল করা
  • ৭/ গোসল করার সময় পর্দা করা প্রসঙ্গে
  • ৮/ গোসলের পানির কোন পরিমাণ নেই তার প্রমাণ
  • ৯/ স্বামী স্ত্রীর একই পাত্র হতে গোসল করা প্রসঙ্গে
  • ১০/ এ ব্যাপারে অনুমতি প্রদান
  • ১১/ এমন পাত্রে গোসল করা যাতে আটার চিত্র বিদ্যমান
  • ১২/ গোসলের সময় স্ত্রীলোকেদের মাথার চুলের বাঁধন না খোলা
  • ১৩/ খোশবু ব্যবহার করে গোসল করলে এবং সুগন্ধির চিহ্ন বাকী থাকলে
  • ১৪/ গায়ে পানি ঢালার সময় আগে শরীর হতে অপবিত্র ব্যক্তির নাপাকী দুর করা
  • ১৫/ যৌনাঙ্গ ধোওয়ার পর হাত মাটিতে ঘষা
  • ১৬/ অপবিত্রতার গোসল ওযু দ্বারা শুরু করা
  • ১৭/ পবিত্রতা অর্জনের কাজ ডান দিক দিয়ে শুরু করা
  • ১৮/ জানবাতের ওযুতে মাথা মাসাহ পরিত্যাগ করা
  • ১৯/ অপবিত্রতার গোসলে সর্বশরীরে পানি পৌঁছানো দরকার
  • ২০/ অপবিত্র ব্যক্তির পক্ষে কতটুকু পানি মাথায় ঢালা যথেষ্ট হবে
  • ২১/ হায়জের গোসলে করনীয়
  • ২২/ মাত্র একবার পানি ঢেলে দিয়ে গোসল করা
  • ২৩/ নিফাসওয়ালী মহিলার ইহরামের সময় গোসল করা
  • ২৪/ গোসলের পর ওযু না করা প্রসঙ্গে
  • ২৫/ এক গোসলে সকল স্ত্রীর নিকট গমন করা
  • ২৬/ মাটি দ্বারা তায়াম্মুম করা
  • ২৭/ নামায আদায়ের পর যে পানি পেয়ে গেল তার তায়াম্মুম
  • ২৮/ মাযী বের হলে ওযু করা
  • ২৯/ নিদ্রার দরুন ওযু করার নির্দেশ
  • ৩০/ যৌনাঙ্গ স্পর্শ করলে ওযু করা
  • ৫/ নামাজ প্রসঙ্গে (كتاب الصلاة) ৪৬ টি | ৪৪৯-৪৯৪ পর্যন্ত 5/ The Book of Salah
  • ১/ সালাতের ফরযসমূহ এবং আনাস ইবন মালিক (রাঃ) কর্তৃক বর্ণিত হাদীসের বর্ণনাকারীদের সনদ সম্পর্কিত মতভেদ ও শব্দ প্রয়োগে তাদের বিভিন্নতা
  • ২/ নামাজ কোথায় ফরজ হয়েছে ?
  • ৩/ নামাজ কেমন করে ফরজ হয়েছে?
  • ৪/ দিনে ও রাতে কত ওয়াক্ত নামাজ ফরয হয়েছে?
  • ৫/ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের উপর বাই'আত গ্রহণ করা জরুরি
  • ৬/ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের হেফাজত করা
  • ৭/ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের ফজিলত প্রসঙ্গে
  • ৯/ নামাজের হিসাব নিকাশ প্রসঙ্গে
  • ৮/ নামাজ পরিত্যাগকারী সম্পর্কে বিধান
  • ১০/ নামাজ আদায়কারীর সওয়াব
  • ১১/ আবাসে যুহরের নামাজের রাকআত সংখ্যা
  • ১২/ সফর অবস্থায় জুহরের নামাজ (কত রাকআত)
  • ১৩/ আসরের নামাজের ফজিলত
  • ১৪/ আসরের নামাজ যত্ন সহকারে আদায় করা
  • ১৫/ যে ব্যক্তি আসরের নামাজ ছেড়ে দেয়
  • ১৬/ বাড়িতে আসরের নামাজের রাকআত সংখ্যা
  • ১৭/ সফর অবস্থায় আসরের নামাজ প্রসঙ্গে
  • ১৮/ মাগরিবের নামাজ প্রসঙ্গ
  • ১৯/ ইশার নামাজের ফযীলত
  • ২০/ সফরে ইশার নামাজ (দু' রাকআত)
  • ২১/ জামায়াতে নামাজ আদায় করার ফযিলত
  • ২২/ কিবলামুখী হওয়া ফরজ প্রসঙ্গে
  • ২৩/ যে অবস্থায় কিবলা ছাড়া অন্যদকে মুখ করে নামাজ আদায় করা বৈধ
  • ২৪/ ইজতিহাদের পর ভুল প্রকাশ হওয়া
  • ৬/ নামাজের সময়সীমা (كتاب المواقيت) ১৩২ টি | ৪৯৫-৬২৬ পর্যন্ত 6/ The Book of the Times (of Prayer)
  • ১/ পরিচ্ছেদ নেই
  • ২/ যোহরেরে প্রথম ওয়াক্ত
  • ৩/ সফরের সময় যোহরের নামায তাড়াতাড়ি পড়া।
  • ৪/ ঠাণ্ডার মধ্যে যোহরের নামায তাড়াতাড়ি পড়া।
  • ৫/ প্রচণ্ড গরম হলে যোহরের নামায গরম কমলে পড়া।
  • ৬/ যোহরের নামাযের শেষ সময়।
  • ৭/ আসরের প্রথম ওয়াক্ত প্রসঙ্গে
  • ৮/ আসরের নামায তাড়াতাড়ি পড়া।
  • ৯/ আসরের নামায বিলম্বে আদায়ের ব্যাপারে সাবধান বানী।
  • ১০/ আসরের শেষ সময় প্রসঙ্গে।
  • ১১/ যে ব্যক্তি আসরের দু'রাকাআত পাবে।
  • ১২/ মাগরিবের প্রথম ওয়াক্ত।
  • ১৩/ মাগরিবের নামায তাড়াতাড়ি আদায় করা।
  • ১৪/ মাগরিবের নামায বিলম্বে পড়া।
  • ১৫/ মাগরিবের শেষ সময়।
  • ১৬/ মাগরিবের নামাযের পর ঘুমানো মাকরূহ ।
  • ১৭/ ইশার প্রথম ওয়াক্ত প্রসঙ্গে।
  • ১৯/ শাফাক প্রসঙ্গে।
  • ২০/ ইশার নামায দেরী করে আদায় করা মুস্তাহাব।
  • ২১/ ইশার শেষ সময় প্রসঙ্গে।
  • ২২/ ইশাকে আতামাহ বলার অনুমতি প্রদান।
  • ২৩/ ইশাকে আতামাহ বলা মাকরূহ।
  • ২৪/ ফজরের প্রথম ওয়াক্ত।
  • ২৫/ মুকিম অবস্থায় অন্ধকারে ফজরের নামায পড়া।
  • ২৬/ মুসাফির অবস্থায় অন্ধকারে ফজরের নামায পড়া।
  • ২৮/ যে ব্যক্তি ফজরের এক রাকাআত পায়।
  • ১৮/ ইশার নামায তাড়াতাড়ি পড়া।
  • ২৭/ ভোর ফর্সা হওয়ার পরে ফজরের নামায পড়া।
  • ২৯/ ফজরের শেষ ওয়াক্ত প্রসঙ্গে
  • ৩০/ যে ব্যক্তি নামাযের এক রাকাআত পেল।
  • ৩১/ নামাযের নিষিদ্ধ ওয়াক্ত।
  • ৩২/ ফজরের নামাযের পর অন্য কোন নামায পড়া নিষিদ্ধ।
  • ৩৩/ সূর্যোদয়ের সময় নামায পড়া নিষিদ্ধ।
  • ৩৪/ দ্বি প্রহরে নামায পড়া নিষিদ্ধ।
  • ৩৫/ আসরের পর নামায আদায় করা নিষিদ্ধ।
  • ৩৬/ আসরের পর নামাযের অনুমতি প্রদান।
  • ৩৭/ সূর্যাস্তের পূর্বে নামায পড়ার অনুমতি।
  • ৩৮/ মাগরিবের পূর্বে নামাযের অনুমতি।
  • ৩৯/ ফজর প্রকাশের পর নামায পড়া।
  • ৪০। ফজরের পূর্ব পর্যন্ত নফল নামাযের অনুমতি প্রদান।
  • ৪১/ মক্কা শরীফে সব সময় নামাযের অনুমতি প্রদান।
  • ৪২/ যে সব মুসাফির যোহর ও আসরের নামায একসাথে আদায় করবে।
  • ৪৩/ এর বিবরণ প্রসঙ্গে।
  • ৪৪/ যে ওয়াক্তে মুকিম দু' ওয়াক্তের নামায এক সাথে পড়ে নিতে পারে।
  • ৪৫/ যে ওয়াক্তে মুসাফির মাগরিব ও ইশার নামায এক সাথে পড়তে পারে।
  • ৪৬/ যে অবস্থায় দু' নামায একসাথে পড়া যায়।
  • ৪৭/ আবাসে দু' নামায একসাথে আদায় করা।
  • ৪৮/ আরাফাতে যোহর ও আসর (নামায) একত্রে পড়া।
  • ৪৯/ মুযদালিফাতে মাগরিব ও ইশা (নামায) একত্রে পড়া।
  • ৫০/ দু' নামায একই ওয়াক্তে এ কিভাবে আদায় করবে।
  • ৫১/ যথা সময়ে নামায আদায় করার মর্যাদা।
  • ৫২/ যে লোক নামায ভুলে যায়।
  • ৫৩/ যে লোক নামায না পড়ে ঘুমিয়ে যায়।
  • ৫৪/ নামায না পড়ে ঘুমিয়ে পড়লে পরের দিন সে ওয়াক্তে ক্বাযা আদায় করা।
  • ৫৫/ ছুটে যাওয়া নামায কিভাবে ক্বাযা করা যায়।
  • ৭/ আযান (كتاب الأذان) ৬২ টি | ৬২৭-৬৮৮ পর্যন্ত 7/ The Book of the Adhan (The Call to Prayer)
  • ১/ আযানের সূচনা।
  • ২/ আযানের বাক্যগুলো দু'বার বলা।
  • ৩/ আযানের তরজিতে স্বর নিচু করা।
  • ৪/ আযানের মধ্যে বাক্যের সংখ্যা?
  • ৫/ আযান দেয়ার নিয়ম।
  • ৬/ সফরে আযান প্রসঙ্গ।
  • ৭/ সফর অবস্থায় একা একা নামাজ আদায়কারীর আযান।
  • ৮/ বাড়িতে অন্য লোকের আযান যথেষ্ট হওয়া।
  • ৯/ এক মসজিদের জন্য দু'জন মুয়াজ্জিন।
  • ১০/ দু'জন মুয়াজ্জিন একই সময়ে আযান দিবে, না পৃথক পৃথক আযান দেবে।
  • ১১/ নামাজের ওয়াক্তর আগে আযান দেয়া।
  • ১২/ ফজরের আযানের সময় প্রসঙ্গে।
  • ১৩/ আযান দেয়ার সময় মুয়াজ্জিন কি করবে?
  • ১৪/ উচ্চস্বরে আযান দেয়া।
  • ১৫/ ফজরের আযানে 'আসসালা- তু খাইরুম মিনান্নাওম' অতিরিক্ত বলা।
  • ১৬/ আযানের শেষ বাক্য প্রসঙ্গে।
  • ১৭/ বৃষ্টির জন্য জামাআতে হাজির না হয়ে অন্যত্র সালাত আদায় করলে আযান দেয়া।
  • ১৮/ যে ব্যক্তি দু' নামায একত্রে আদায় করবে, প্রথম নামাযের ওয়াক্তে তার আযান।
  • ১৯/ যে ব্যক্তি দু' ওয়াক্তের নামায একত্রে, প্রথম নামাযের সময় চলে যাওয়ার পরে পড়বে তার আযান।
  • ২০/ যে ব্যক্তি দু' ওয়াক্তের নামায এক সাথে আদায় করবে তার ইকামত।
  • ২১/ ক্বাযা নামাযের আযান।
  • ২২/ নির্ধারিত সময়ের ও ক্বাযা নামাযের জন্য এক আযান যথেষ্ট তবে প্রত্যেক নামাযের জন্য পৃথক ইকামত বলা।
  • ২৩/ প্রত্যেক নামাযের জন্য ইকামাত বলাই যথেষ্ট।
  • ২৪/ নামাযের কোন রাকআত ভুলে গেলে ইকামত বলা প্রসঙ্গে।
  • ২৫/ রাখালের আযান দেয়া প্রসঙ্গে।
  • ২৬/ একা নামায আদায়কারীর আযান দেয়া।
  • ২৭/ একা নামায আদায়কারীর ইকামত দেয়া।
  • ২৮/ ইকামত কিভাবে দিতে হয়?
  • ২৯/ প্রত্যেক ব্যক্তির নিজের জন্যে ইকামত বলা।
  • ৩০/ আযান দেয়ার ফযিলত ।
  • ৩১/ আযানের জন্যে লটারি করা।
  • ৩২/ এমন ব্যক্তিকে মুয়াজ্জিন বানানো, যে আযানের পারিশ্রমিক নেয় না।
  • ৩৩/ মুয়াজ্জিন আযানের যে শব্দ উচ্চারণ করবে শ্রোতারাও অনুরূপ শব্দ বলবে।
  • ৩৪/ আযানের উত্তর দেয়ার সওয়াব প্রসঙ্গে।
  • ৩৫/ মুয়াজ্জিনের অনুরূপ শাহাদাতের বাক্য বলা।
  • ৩৬/ মুয়াজ্জিন যখন "হাইয়া-আলাস সালাত - হাইয়া-আলাল ফালাহ" বলবেন, শ্রোতাগণ কি বলবে?
  • ৩৭/ আযানের পর নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর উপর দুরুদ পড়া।
  • ৩৮/আযানের দুয়া প্রসঙ্গে।
  • ৩৯/ আযান ইকামতের মধ্যবর্তী সময়ে নামায প্রসঙ্গে।
  • ৪০/ আযানের পর মসজিদ হতে বাইরে যেতে কঠোরতা আরোপ প্রসঙ্গে।
  • ৪১/ নামায শুরু করার সম্পর্কে মুয়াজ্জিন কর্তৃক ইমামকে জানানো।
  • ৪২/ ইমাম বের হওয়ার সময় মুয়াজ্জিন কর্তৃক ইকামত বলা।
  • ৮/ মসজিদ (كتاب المساجد) ৫৪ টি | ৬৮৯-৭৪২ পর্যন্ত 8/ The Book of the Masjids (Mosque)
  • ১/ মসজিদ নির্মাণ করার ফযিলত প্রসঙ্গে।
  • ২/ মসজিদের ব্যাপারে গর্ব করা।
  • ৩/ প্রথম নির্মিত মসজিদের আলোচনা।
  • ৪/ মসজিদে হারামে নামাযের ফযিলত।
  • ৫/ কাবায় নামায পড়া।
  • ৬/ মসজিদুল আকসার ভিতরে নামায পড়ার ফযিলত।
  • ৭/ নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর মসজিদে ও এর ভিতরে নামায পড়ার ফযিলত।
  • ৮/ তাকাওয়ার উপর স্থাপিত মসজিদ প্রসঙ্গে।
  • ৯/ মসজিদে কুবা ও তাতে নামায পড়ার ফযিলত।
  • ১০/ যে মসজিদের জন্যে সাওয়ারী তৈরি করা যায়।
  • ১১/ গির্জাকে মসজিদে বানানো
  • ১২/ কবরের জায়গা সমান করে মসজিদ বানানো।
  • ১৩/ কবরের মসজিদ হিসাবে ব্যবহার করা (কবরে নামায পড়া) নিষেধ।
  • ১৪/ মসজিদে যাওয়ার ফযিলত।
  • ১৫/ মহিলাদের মসজিদে আসতে বারণ করা নিষেধ।
  • ১৬/ মসজিদে যেতে যাকে নিষেধ করা হবে।
  • ১৭/ মসজিদ থেকে যাকে বের করে দেয়া হবে।
  • ১৮/ মসজিদে তাঁবু টানানো।
  • ১৯/ শিশুদের নিয়ে মসজিদে প্রবেশ করা।
  • ২০/ কয়েদীকে মসজিদের খুঁটির সাথে বাঁধা।
  • ২১/ মসজিদে উট প্রবেশ করানো।
  • ২২/ মসজিদে ক্রয় বিক্রয় ও জুমু'আর আগে বৃত্তাকারে বসা নিষেধ।
  • ২৩/ মসজিদে কবিতা পাঠের নিষেধাজ্ঞা।
  • ২৫/ মসজিদে হারানো জিনিস অন্বেষণ করার নিষেধাজ্ঞা।
  • ২৬/ মসজিদে হাতিয়ার বের করা প্রসঙ্গে।
  • ২৭/ মসজিদে এক হাতের আঙ্গুল অন্য হাতে প্রবেশ করানো।
  • ২৮/ মসজিদে শয়ন করা।
  • ২৯/ মসজিদে নিদ্রা যাওয়া।
  • ৩০/ মসজিদে থুথু ফেলা।
  • ৩১/ মসজিদে কিবলার দিকে নাক ঝাড়া নিষেধ।
  • ৩২/ নামাযে সামনে অথবা ডানে দিকে থুথু ফেলার ব্যাপারে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর নিষেধাজ্ঞা।
  • ৩৩/ মুসুল্লিদের জন্যে পেছনে অথবা বাম দিকে থুথু ফেলার অনুমতি প্রদান।
  • ৩৪/ কোন পা দ্বারা থুথু মলে শেষ করবে?
  • ৩৫/ মসজিদকে সুগন্ধিময় করা।
  • ৩৬/ মসজিদে প্রবেশ ও বের হবার দোয়া।
  • ৩৭/ মসজিদে বসার আগে নামাযের নির্দেশ।
  • ৩৮/ নামায ব্যতীত মসজিদে বসা ও বের হওয়ার অনুমতি প্রদান।
  • ৩৯/ মসজিদের নিকট দিয়ে গমন করার নামায।
  • ৪০/ নামাযের অপেক্ষায় মসজিদে বসার ব্যাপারে উৎসাহ প্রদান।
  • ৪১/ উটশালায় নামায আদায়ে রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কর্তৃক নিষেধাজ্ঞা।
  • ৪২/ এ ব্যাপারে অনুমতি প্রদান।
  • ৪৩/ চাটাই এর উপর নামায পড়া।
  • ৪৪/ খেজুর পাতায় নির্মিত চাটাই এর উপর নামায পড়া।
  • ৪৫/ মিম্বারের উপর নামায পড়া।
  • ৪৬/ গাধার উপর নামায পড়া।
  • ৯/ কিবলা (كتاب القبلة) ৩৫ টি | ৭৪৩-৭৭৭ পর্যন্ত 9/ The Book of the Qiblah
  • ১/ কিবলার দিকে মুখ করা প্রসঙ্গে
  • ২/ যে অবস্থায় কিবলাহ ছাড়া অন্য দিকে মুখ করা জায়িয
  • ৩/ ইজতিহাদের পর ভুলের প্রকাশ
  • ৪/ মুসল্লির সুতরাহ বা আড়াল ব্যবহার করা
  • ৫/ সুতরার নিকটবর্তী হওয়ার নির্দেশ
  • ৬/ এর পরিমাণ
  • ৭/ নামাযের সামনে সুতরাহ না থাকলে, যাতে নামায নষ্ট হয় আর যাতে নষ্ট হয় না।
  • ৮/ মুসল্লি ও তার সুতরার ভিতর দিয়ে যাওয়া সম্পর্কে কঠোর বাণী।
  • ৯/ এর অনুমতি প্রদান।
  • ১০/ ঘুমন্ত ব্যক্তির পেছনে নামায পড়ার অনুমতি।
  • ১১/ কবরের দিকে নামায পড়া নিষেধ।
  • ১২/ ছবিওয়ালা কাপড়ের দিকে মুখ করে নামায পড়া।
  • ১৩/ মুসল্লি এবং ইমামের মাঝে আড়াল।
  • ১৪/ এক বস্ত্রে নামায
  • ১৫/ এক জামা পড়ে নামায পড়া।
  • ১৬/ শুধুমাত্র লুঙ্গি পরিধান করে নামায পড়া।
  • ১৭/ কোন পুরুষের এমন কাপড়ে নামায পড়া যার কিছু অংশ তার স্ত্রীর উপর থাকে।
  • ১৮/ পুরুষের এমন এক বস্ত্রে নামায পড়া যার কোন অংশ কাঁধের উপর না থাকে।
  • ১৯/ রেশমি বস্ত্রে নামায পড়া।
  • ২০/ নকশা যুক্ত কাপড়ে নামায পড়া।
  • ২১/ লাল কাপড়ে নামায পড়া।
  • ২২/ চাদরে নামায পড়া।
  • ২৩/ মোজা পরে নামায পড়।
  • ২৪/ উভয় জুতা পরিহিত অবস্থায় নামায।
  • ২৫/ ইমাম তার জুতা কোথায় রাখবেন?
  • ১০/ ইমামত (كتاب الإمامة) ১০১ টি | ৭৭৮-৮৭৮ পর্যন্ত 10/ The Book of Leading the Prayer (Al-Imamah)
  • ১/ জামা'আত ও ইমামত/আলিম এবং মর্যাদাবানদের ইমামত।
  • ২/ অত্যাচারী শাসকের সাথে নামায পড়া।
  • ৩/ ইমাম হওয়ার যোগ্য ব্যক্তি কে?
  • ৪/ যে বয়সে বড় তাকে ইমাম মনোনীত করা।
  • ৫/ একদল লোকের এমন স্থানে একত্রিত হওয়া যেখানে সকলেই সমান।
  • ৬/ যদি দলে সর্দার শাসক থাকেন।
  • ৭/ প্রজার ইমামতের সময় শাসক আসলে।
  • ৮/ অধীনস্থের পেছনে শাসকের নামায পড়া।
  • ৯/ সাক্ষাৎকারীর ইমামত।
  • ১০/ অন্ধের ইমামত।
  • ১১/ বালেগ হওয়ার পূর্বে ইমামত।
  • ১২/ ইমামকে দেখলে দাঁড়ানো।
  • ১৩/ ইকামাতের পর ইমামের কোন প্রয়োজন দেখা দিলে।
  • ১৪/ মুসাল্লায় দাঁড়ানোর পর ইমামের স্মরণ হলো যে তিনি পবিত্র নন।
  • ১৫/ ইমাম অনুপস্থিত থাকলে ভারপ্রাপ্ত নিযুক্ত করা।
  • ১৬/ ইমামের পেছনে ইকতিদা করা।
  • ১৭/ যে ইমামের ইকতিদা করেছেন তার ইকতিদা করা।
  • ১৮/ তিন জন মুসল্লি হলে ইমামের স্থান এবং এ ব্যাপারে মতপার্থক্য।
  • ১৯/ তিন জন পুরুষ ও এক জন স্ত্রীলোক হলে।
  • ২০/ দুই জন পুরুষ ও দুই জন স্ত্রীলোক হলে।
  • ২১/ ইমামের সাথে একজন বাচ্চা এবং একজন মহিলা থাকলে ইমামের স্থান।
  • ২২/ মুকতাদি বাচ্চা হলে ইমামের স্থান।
  • ২৩/ ইমামের সাথে কে মিলে দাঁড়াবে এবং তার সাথে কে মিলে দাঁড়াবে।
  • ২৪/ ইমামের বের হবার আগেই কাতার ঠিক করা।
  • ২৫/ ইমাম কিভাবে কাতার সোজা করবেন?
  • ২৬/ ইমাম কাতার ঠিক করতে কি বলবেন?
  • ২৭/ সোজা হয়ে দাঁড়াও কতবার বলবেন?
  • ২৮/ কাতার ঠিক করতে এবং কাছাকাছি দাঁড়াতে ইমামের উৎসাহ দেয়া।
  • ২৯/ দ্বিতীয় কাতারের উপর প্রথম কাতারের মর্যাদা।
  • ৩০/ শেষের কাতার।
  • ৩১/ যে ব্যক্তি কাতার মিলায়।
  • ৩২/ মহিলাদের উত্তম কাতার ও পুরুষদের নিকৃষ্ট কাতার প্রসঙ্গে আলোচনা।
  • ৩৩/ দু'খুঁটির মাঝে কাতার করা প্রসঙ্গে।
  • ৩৫/ ইমামের সালাত সংক্ষেপ করা।
  • ৩৬/ ইমামের জন্য লম্বা করার অনুমতি।
  • ৩৭/ ইমামের জন্য নামাযে যা বৈধ।
  • ৩৮/ ইমামের আগে কোন কাজ করা।
  • ৩৯/ ইমামের নামায থেকে বের হয়ে মসজিদের কোণে মুসল্লির পৃথক নামায পড়া।
  • ৪০/ বসে নামায আদায়কারী ইমামের ইকতিদা করা।
  • ৪১/ ইমাম ও মুকতাদির নিয়্যাতের ভিন্নতা।
  • ৪২/ জামা'আতের মর্যাদা।
  • ৪৩/ তিনজনের জামা'আত
  • ৪৪/ একজন পুরুষ, একজন বালক ও একজন মহিলা এরকম তিনজনের জামা'আত।
  • ৪৫/ দু'জনের জামা'আত
  • ৪৬/ নফল নামাযের জামা'আত
  • ৪৭/ ক্বাযা নামাযের জামা'আত
  • ৪৮/ জামা'আত ছেড়ে দেয়ার পরিণতি সম্পর্কে কঠোর হুশিয়ারি।
  • ৪৯/ জামা'আত হতে পিছনে থাকার পরিণতি সম্পর্কে কঠোর হুঁশিয়ারি।
  • ৫০/ নামাযের আযান দিলে তার হিফাজত করা।
  • ৫১/ জামা'আত ত্যাগের কারণ।
  • ৫২/ জামা'আতের প্রাপ্তির সীমা।
  • ৫৩/ একাকী নামায আদায় করলে পুনরায় জামা'আতে নামায আদায় করা
  • ৫৪/ একাকী ফজরের নামায আদায় করলে পুনরায় জামা'আতে আদায় করা।
  • ৫৫/ সময় চলে গেলে জামা'আতে পুনঃ নামায পড়া।
  • ৫৬/ মসজিদের ইমামের সাথে জামা'আত নামায পড়লে পুনরায় একা নামায না পড়া।
  • ৫৭/ নামাযের জন্য দৌড়ানো।
  • ৫৮/ নামাযের জন্য না দৌড়ে দ্রুত গমন করা।
  • ৫৯/ আগে ভাগে নামাযে উপস্থিত হওয়া।
  • ৬০/ ইকামতের সময় যে নামায মাকরূহ
  • ৬১/ ইমাম নামাযরত থাকা অবস্থায় যে ফজরের দু'রাকাআত সুন্নত নামায পড়ে
  • ৬২/ কাতারের পিছনে একাকী নামায আদায়কারী
  • ৬৩/ কাতারের বাইরে রুকু করা।
  • ৬৪/ যুহরের পড়ে নামায
  • ৬৫/ আসরের নামাযের পূর্বে নামায এবং হাদিস বর্ণনায় আবু ইসহাকের উপর মতানৈক্য
  • ১১/ নামাজ শুরু করা (كتاب الافتتاح) ১৫৩ টি | ৮৭৯-১০৩১ পর্যন্ত 11/ The Book of the Commencement of the Prayer
  • ১/ নামাযের প্রারম্ভিক কাজ।
  • ২/ তাকবীর বলার পূর্বে উভয় হাত উঠানো।
  • ৩/ উভয় হাত কাঁধ পর্যন্ত তোলা।
  • ৪/ কান পর্যন্ত উভয় হাত উঠানো।
  • ৫/ হাত উঠানোর সময় বৃদ্ধাঙ্গুলির অবস্থান।
  • ৬/ লম্বা করে উভয় হাত তোলা।
  • ৭/ প্রথম তাকবীর ফরয।
  • ৮/ যে বাক্য দ্বারা নামায শুরু করা হয়।
  • ৯/ নামাযে ডান হাত বাম হাতের উপর রাখা।
  • ১০/ ইমাম কাউকে ডান হাতের উপর বাম হাত রাখতে দেখলে।
  • ১১/ নামাযে বাম হাতের উপর ডান হাত রাখার স্থান।
  • ১২/ নামাযে কোমরে হাত রাখা নিষেধ।
  • ১৩/ দু'পা মিলিয়ে নামাযে দাঁড়ানো প্রসঙ্গে।
  • ১৪। নামাযে শুরু করার পর ইমামের চুপ থাকা।
  • ১৫/ তাকবীর ও কিরাআতের মধ্যে দুয়া।
  • ১৬/ কিরআত ও তাকবীরের মধ্যে অন্য দুয়া।
  • ১৭/ তাকবীর ও কিরাআতের মধ্যে অন্য প্রকার দুয়া ও জিকর।
  • ১৮/ নামাযের শুরু ও কিরাআতের মাঝখানে অন্য দুয়া।
  • ১৯/ তাকবীরের পর অন্য প্রকার দুয়া।
  • ২০/ অন্য সূরা পড়ার পূর্বে সূরা ফাতিহা পড়া।
  • ২১/ "বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম" পাঠ করা।
  • ২২/ "বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম" বলতে উচ্চস্বর পরিত্যাগ করা।
  • ২৩/ সুরা ফাতিহায় 'বিসমিল্লাহ' না পড়া।
  • ২৪/ নামাযে ফাতিহা পাঠ করা ওয়াজিব।
  • ২৫/ সুরা ফাতিহার ফযিলত।
  • ২৬/ "আপনাকে সাব'আ মাসানি ও কুরআন আজিম দিয়েছি"- এর ব্যাখ্যা।
  • ২৭/ যে নামাযে কিরাআতে চুপে চুপে পাঠ করা হয় সে নামাযে ইমামের পশ্চাতে কিরাআত ত্যাগ করা।
  • ২৮/ ইমাম স্বরবে কুরআন পাঠ করলে তার পিছনে কিরাআত না করা।
  • ২৯/ যে নামাযে ইমাম উচ্চস্বরে কুরআন পাঠ করে সে নামাযে ইমামের পেছনে সুরা ফাতিহা পাঠ করা।
  • ৩০/ আল্লাহ তা'আলার বাণীঃ "যখন কুরআন পাঠ করা হয় তখন তোমরা মনোযোগ সহকারে তা শুনবে এবং চুপ থাকবে। আশা করা যায় এতে তোমরা রহমত প্রাপ্ত হবে" এর ব্যাখ্যা।
  • ৩১/ মুক্তাদির জন্যে ইমামের কিরাআতই যথেষ্ট।
  • ৩২/ যে ভালভাবে কুরআন পাঠ করতে জানে না, তার জন্য যা পাঠ করা যথেষ্ট।
  • ৩৩/ ইমামের উচ্চস্বরে আমীন বলা।
  • ৩৪/ ইমামের পিছনে "আমীন" বলার নির্দেশ ।
  • ৩৫/ "আমীন" বলার ফযিলত।
  • ৩৬/ মুকতাদির ইমামের পেছনে হাঁচি দিয়ে 'আলহামদু লিল্লাহ' বলা।
  • ৩৭/ কুরআন সম্বন্ধীয় বিবিধ রিওয়ায়াত।
  • ৩৮/ ফজরের সুন্নাত দু'রাকাআতে কিরাআত।
  • ৩৯/ ফজরের সুন্নাত দু'রাকাআতে সূরা কাফিরুন ও ইখলাস পড়া।
  • ৪০/ ফজরের সুন্নাত দু'রাকাআত হালকাভাবে আদায় করা।
  • ৪১/ ফজরের নামাযে সুরা রুম পাঠ করা।
  • ৪২/ ফজরের নামাযে ষাট থেকে একশত আয়াত পড়া।
  • ৪৩/ ফজরের নামাযে সুরা কাফ পাঠ করা।
  • ৪৪/ ফজরের নামাযে সুরা ইজাস-সামসু কুব্বিরাত পাঠ করা।
  • ৪৫/ ফজরের নামাযে মু'আব্বিজাতাইন পড়া।
  • ৪৭/ জুমু'আর দিনে ফজরের নামাযের কিরাআত।
  • ৪৮/ কুরআনের সিজদা সমূহ- সূরা সোয়াদ-এ সিজদা।
  • ৪৯/ ওয়ান নাজমি সূরায় সাজদার বর্ণনা।
  • ৫০/ সূরা নাজম এ সিজদা না করা।
  • ৫১/ ‏{‏ إِذَا السَّمَاءُ انْشَقَّتْ ‏}‏ এ সিজদা করা
  • ৫২/ ইকরা বিসমি রাব্বিকা-তে সিজদা করা।
  • ৫৩/ ফরজ নামাযে সিজদা করা।
  • ৫৪/ দিনের কিরাআত।
  • ৫৫/ যুহরের কিরাআত।
  • ৫৬/ যুহরের নামাযের প্রথম রাকআতে কিয়াম লম্বা করা।
  • ৫৭/ যুহরের নামাযে ইমামের কোন আয়াত শুনিয়ে পাঠ করা।
  • ৫৮/ যুহরের দ্বিতীয় রাকআতে কিয়াম সংক্ষিপ্ত করা।
  • ৫৯/ যুহরের নামাযে প্রথম দু'রাকা'আতে কিরাআত।
  • ৬০/ আসরের প্রথম দু'রাকা'আতে কিরাআত।
  • ৬১/ কিয়াম ও কিরাআত সংক্ষিপ্ত করা।
  • ৬২/ মাগরিবের নামাযে কিসারে মুফাসসাল পড়া।
  • ৬৩/ মাগরিবে ‏{‏سَبِّحِ اسْمَ رَبِّكَ الأَعْلَى}‏ পড়া।
  • ৬৪/ মাগরিবে সূরা মুরসালাত পাঠ করা।
  • ৬৫/ মাগরিবে সূরা তূর পাঠ করা।
  • ৬৬/ মাগরিবের নামাযে সূরা হা-মিম, দুখান পাঠ করা।
  • ৬৭/ মাগরিবে 'আলিফ লাম মীম সোয়াদ' পাঠ করা।
  • ৬৮/ মাগরিবের পরে দু'রাকাআত কিরাআত।
  • ৬৯/ 'কুল হুওয়াল্লাহু আহাদ' পড়ার ফযিলত।
  • ৭০/ ইশার নামাযে "সাব্বিহিসমা রাব্বিকাল আলা" পাঠ করা।
  • ৭১/ ইশার নামাযে "ওয়াশ-শামাসি ওয়াযুহাহা" পাঠ করা।
  • ৭২/ ইশার নামাযে 'সূরা তীন' পাঠ করা।
  • ৭৩/ ইশার প্রথম রাকআতে কিরাআত
  • ৭৪/ প্রথম দু'রাকাআত লম্বা করা
  • ৭৫/ এক রাকআতে দু' সূরা পাঠ করা।
  • ৭৬/ এক সূরার কিয়দাংশ পাঠ করা।
  • ৭৭/ আযাবের আয়াতে পৌছলে পাঠকের আল্লাহর কাছে পানাহ চাওয়া।
  • ৭৮/ রাহমাতের আয়াতে পৌঁছে পাঠকের আবেদন করা।
  • ৭৯/ বার বার এক আয়াত পাঠ করা।
  • ৮০/ মহান আল্লাহর বাণীঃ ‏{‏ وَلاَ تَجْهَرْ بِصَلاَتِكَ وَلاَ تُخَافِتْ بِهَا ‏}‏ এর ব্যাখ্যা।
  • ৮১/ উচ্চস্বরে কুরআন পড়া।
  • ৮২/ কিরাআতে স্বর লম্বা করা।
  • ৮৩/ সুললিল কণ্ঠে কুরআন পাঠ করা।
  • ৮৪/ রুকুর জন্য তাকবীর বলা।
  • ৮৫/ রুকুর জন্য কানের লতি পর্যন্ত হাত উঠানো।
  • ৮৬/ রুকুর জন্য উভয় হাত কাঁধ পর্যন্ত উঠানো।
  • ৮৭/ তা পরিত্যাগ করা।
  • ৮৮/ রুকুতে পিঠ সোজা করা।
  • ৮৯/ রুকুতে সর্বাঙ্গ যথাযথ ভাবে রাখা।
  • ১২/ তাত্ববীক [রুকুতে দু'হাত হাঁটুদ্বয়ের মাঝে স্থাপন] করা (كتاب التطبيق) ১৫০ টি | ১০৩২-১১৮১ পর্যন্ত 12/ The Book of The At-Tatbiq (Clasping One's Hands Together)
  • ১/ তাত্ববীক প্রসঙ্গ
  • ২/ (ক) (তাত্ববীক) রহিত হওয়া।
  • ২/ (খ) রুকুতে হাঁটু জড়িয়ে ধরা।
  • ৩/ রুকুতে হাতের তালু রাখার স্থান।
  • ৪/ রুকুতে হাতের আঙ্গুল রাখার স্থান।
  • ৫/ রুকুতে বগল পৃথক করে রাখা।
  • ৬/ রুকুতে সর্বাঙ্গ যথাযথ ভাবে রাখা।
  • ৭/ রুকুতে কিরাআত পড়ার নিষেধাজ্ঞা।
  • ৮/ রুকুতে প্রতিপালকের শ্রেষ্ঠত্ব ও মর্যাদা বর্ণনা করা।
  • ৯/ রুকুর দুয়া
  • ১০/ রুকুর অন্য প্রকার দুয়া।
  • ১১/ এর অন্য প্রকার দুয়া।
  • ১৪/ অন্য প্রকার দুয়া।
  • ১৫/ রুকুতে কিছু না পড়ার অনুমতি।
  • ১৬/ রুকু পূর্ণ করার আদেশ।
  • ১৭/ রুকু হতে উঠার সময় হাত উঠানো।
  • ১৮/ রুকু হতে উঠার সময় কানের লতি পর্যন্ত হাত উঠানো।
  • ১৯/ রুকু হতে উঠার সময় কাঁধ পর্যন্ত হাত উঠানো।
  • ২০/ তা পরিত্যাগের অনুমতি।
  • ২১/ রুকু হতে মাথা উঠানোর সময় ইমাম কি বলবেন?
  • ২২/ মুকতাদী যা বলবে।
  • ২৩/ মুকতাদীর "রাব্বানা ওয়ালাকাল হামদ" বলা।
  • ২৪/ রুকু হতে মাথা উঠানো ও সিজদাহ করার মাঝে কি পরিমাণ সময় নেয়া হত তার বর্ণনা।
  • ২৫/ রুকু হতে দাঁড়িয়ে যা বলবে।
  • ২৬/ রুকুর পরে কুনুত।
  • ২৭/ ফজরের নামাজে কুনুত।
  • ২৮/ যুহরের নামাযে কুনুত পাঠ করা।
  • ২৯/ মাগরিবের নামাযে কুনুত পাঠ করা।
  • ৩০/ কুনুতে অভিসম্পাত করা।
  • ৩১/ কুনুতে মুনাফিকদের উপর অভিসম্পাত।
  • ৩২/ কুনুত পাঠ না করা।
  • ৩৩/ সাজদার জন্য পাথরের টুকরো ঠাণ্ডা করা।
  • ৩৪/ সাজদার জন্য তাকবীর বলা।
  • ৩৫/ কিরূপে সাজদায় ঝুঁকবে?
  • ৩৬/ সাজদার জন্য হাত উঠানো।
  • ৩৭/ সাজদায় যাবার সময় হাত না উঠানো।
  • ৩৮/ সাজদায় সর্বাগ্রে যে অঙ্গ জমিনে পৌঁছাবে।
  • ৩৯/ সাজদায় মুখমণ্ডলের সাথে উভয় হাত স্থাপন করা।
  • ৪০/ কত অঙ্গের উপর সিজদা?
  • ৪১/ (সাত অঙ্গ) এর ব্যখ্যা
  • ৪২/ ললাটের উপর সিজদা করা।
  • ৪৩/ নাকের উপর সিজদা।
  • ৪৪/ দু'হাতের উপর সিজদা।
  • ৪৫/ হাঁটুর উপর সিজদা।
  • ৪৬/ উভয় পায়ের উপর সিজদা করা।
  • ৪৮/ সাজদায় উভয় পায়ের আঙ্গুল খাড়া করে রাখা।
  • ৪৯/ সাজদায় হাতের স্থান।
  • ৫০/ সাজদায় দু'বাহু বিছিয়ে দেয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা।
  • ৫১/ সিজদা করার নিয়ম।
  • ৫২/ সাজদায় অঙ্গ পৃথক করে রাখা।
  • ৫৩/ সাজদায় মধ্যপন্থা অবলম্বন করা।
  • ৫৪/ সাজদায় পিঠ সোজা রাখা।
  • ৫৫/ কাকের ন্যায় ঠোকর মারার প্রতি নিষেধাজ্ঞা।
  • ৫৬/ সিজদায় চুল গোটানোর প্রতি নিষেধাজ্ঞা।
  • ৫৭/ চুলে বেণী করে নামাজ আদায়কারীর উদাহরণ।
  • ৫৮/ সাজদায় কাপড় গোটানোর উপর নিষেধাজ্ঞা।
  • ৫৯/ কাপড়ের উপর সিজদা করা।
  • ৬০/ সিজদা পূর্ণ করার আদেশ।
  • ৬১/ সাজদায় কুরআন পাঠ করবার প্রতি নিষেধাজ্ঞা।
  • ৬২/ সাজদায় বেশি বেশি দুয়া করার নির্দেশ।
  • ৬৩/ সাজদায় দুয়া করা।
  • ৬৪/ সাজদায় অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৬৫/ সাজদায় অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৬৬/ সাজদায় অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৬৭/ সাজদায় অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৬৮/ সাজদায় অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৬৯/ অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৭০/ অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৭১/ অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৭২/ অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৭৩/ সাজদায় অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৭৪/ অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৭৫/ অন্য প্রকারের দুয়া।
  • ৭৬/ সাজদায় তাসবিহের সংখ্যা।
  • ৭৭/ সাজদায় তাসবীহ পরিত্য্যাগ করার অনুমতি।
  • ৭৮/ বান্দা যে অবস্থায় আল্লাহর অধিক নিকটবর্তী হয়।
  • ৭৯/ সিজদাের ফযীলত ।
  • ৮০/ যে ব্যক্তি আল্লাহর জন্য একটি সিজদা করল তার সওয়াব।
  • ৮১/ সাজদার স্থান।
  • ৮২/ এক সিজদা অন্য সিজদা হতে দীর্ঘ হওয়া।
  • ৮৪/ প্রথম সিজদা হতে মাথা উঠানোর সময় দুহাত উঠানো।
  • ৮৫/ দু' সাজদার মাঝে হাত না উঠানো।
  • ৮৬/ দু' সাজদার মাঝে দুয়া।
  • ৮৭/ দু' সাজদার মধ্যে চেহারা বরাবর হাত উঠানো।
  • ৮৮/ দু' সাজদার মধ্যে কিভাবে বসবে?
  • ৮৯/ দু' সাজদার মধ্যে বসার পরিমাণ।
  • ৯০/ সাজদার জন্য তাকবীর বলা।
  • ৯১/ দু' সাজদার পরে উঠার সময় সোজা হয়ে বসা।
  • ৯২/ উঠার সময় মাটিতে ভর দেয়া।
  • ৯৩/ হাঁটু উঠানোর পূর্বে হাত উঠানো।
  • ৯৪/ উঠার সময় তাকবীর বলা।
  • ৯৫/ প্রথম তাশাহ্‌হুদের জন্যে কিভাবে বসাবে?
  • ৯৬/ তাশাহ্‌হুদে বসার সময় পায়ের আঙ্গুল কিবলার দিকে রাখা।
  • ৯৭/ প্রথম তাশাহ্‌হুদে বসার সময় উভয় হাতের অবস্থান।
  • ৯৮/ তাশাহ্‌হুদের সময় চোখের দৃষ্টির স্থান।
  • ৯৯/ প্রথম তাশাহ্‌হুদে আঙ্গুল দ্বারা ইঙ্গিত করা।
  • ১০০/ প্রথম তাশাহ্‌হুদ কিভাবে করবে?
  • ১০১/ তাশাহ্‌হুদের অন্য প্রকার।
  • ১০২/ তাশাহ্‌হুদের অন্য প্রকার।
  • ১০৩/ তাশাহ্‌হুদের আরেক প্রকার।
  • ১০৪/ তাশাহ্‌হুদের আরেক প্রকার।
  • ১০৫/ প্রথম বৈঠক সংক্ষিপ্ত করা।
  • ১০৬/ (ভুলবশতঃ) প্রথম বৈঠক পরিত্যাগ করা।
  • ৮৩/ সিজদা থেকে মাথা উঠানোর সময় তাকবীর বলা।
  • ১৩/ সাহু (كتاب السهو) ১৮৮ টি | ১১৮২-১৩৬৯ পর্যন্ত 13/ The Book of Forgetfulness (In Prayer)
  • ১/ দ্বিতীয় রাকআত হতে দাঁড়িয়ে তাকবীর বলা।
  • ২/ শেষ দু' রাকআতের জন্য দাঁড়ানোর সময় দু'হাত উত্তোলন করা।
  • ৩/ শেষ দু' রাকাআতের জন্য দাঁড়ানোর সময় উভয় কাঁধ পর্যন্ত দু'হাত উঠানো।
  • ৪/ নামাজে উভয় হাত উঠানো এবং হামদ (আলহামদুলিল্লাহ) ও সানা পাঠ করা।
  • ৫/ নামাজের শেষ এ হাত উত্তোলন করে সালাম ফিরানো।
  • ৬/ নামাজ আদায়কালীন ইশারায় সালামের জবাব দেয়া।
  • ৭/ নামাজে কংকর স্পর্শ করার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা।
  • ৮/ নামাজে একবার কংকর স্পর্শ করার অনুমতি।
  • ৯/ নামাজে আকাশের দিকে তাকানোর ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা।
  • ১০/ নামাজে (কোন দিকে) দৃষ্টিপাত করার ব্যাপারে কঠোরতা।
  • ১১/ নামাজে ডানে বামে তাকানোর অনুমতি।
  • ১২/ নামাযে সাপ এবং বিচ্ছু মারা।
  • ১৩/ নামাযে শিশুদেরকে বহন করা এবং তাদের নামিয়ে রাখা।
  • ১৪/ নামায আদায়কালীন কিবলার দিকে কয়েক কদম হাঁটা।
  • ১৫/ নামাযে হাতে তালি দেয়া।
  • ১৬/ নামাযে "সুবহানাল্লাহ" বলা।
  • ১৭/ নামাযে গলা খাঁকর দেয়া।
  • ১৮/ নামাযে ক্রন্দন করা।
  • ১৯/ নামাযে ইবলিশকে লানত দেয়া এবং তার অনিষ্ট থেকে আল্লাহর কাছে পানাহ চাওয়া।
  • ২০/ নামাযে কথা বলা।
  • ২১/ দ্বিতীয় রাকআতে তাশাহ্‌হুদ না পড়ে যে ভুলে দাঁড়িয়ে যায় সে কি করবে?
  • ২২/ যে দু' রাকআতের পরে ভুলে সালাম ফিরিয়ে ফেলল এবং কথা বলে ফেলল সে কি করবে।
  • ২৩/ দু' সিজদা সম্পর্কে আবু হুরাইরাহ (রঃ) এর বর্ণনার মধ্যে পার্থক্য।
  • ২৪/ মুসল্লীর সন্দেহ হলে যা স্মরণ আছে তার উপর নামায শেষ করা।
  • ২৫/ (নামায আদায়কালে সন্দেহ হলে) ভেবে দেখা।
  • ২৬/ যে পাঁচ রাকআত নামায পড়ল সে কি করবে।
  • ২৭/ যে নামাযের কিছু ভুলে যায় সে কি করবে?
  • ২৮/ সাহুর দু সাজদায় তাকবীর বলা।
  • ২৯/ যে রাকআতে নামায শেষ হবে তাতে বসার নিয়ম।
  • ৩০/ নামাযে দু' বাহু রাখার স্থান ।
  • ৩২/ (নামাযে) হাতের তালুদ্বয় রাখার স্থান।
  • ৩৩/ তর্জনী ব্যতীত ডান হাতের অন্যান্য আঙ্গুল বন্ধ করা।
  • ৩৪/ ডান হাতের দু' আঙ্গুলি বন্ধ রাখা এবং এর মধ্যমা ও বৃদ্ধাঙ্গুলি দ্বারা গোলাকার বৃত্ত বানানো।
  • ৩৫/ বাম হাত হাঁটুর ওপর বিছিয়ে দেয়া।
  • ৩৬/ (নামাযে) তাশাহহুদ (আত্তাহিয়্যাতু) আদায়কালে আঙ্গুলি দ্বারা ইঙ্গিত করা।
  • ৩৭/ দু' আঙ্গুলি দ্বারা ইশারা করার নিষেধাজ্ঞা এবং কোন আঙ্গুলি দ্বারা ইশারা করতে হবে তার বর্ণনা।
  • ৩৮/ ইশারা করার সময় তর্জনী আঙ্গুল ঝুঁকানো।
  • ৩৯/( নামাযে) তর্জনী দ্বারা ইঙ্গিত করার সময় দৃষ্টি রাখার স্থান।
  • ৪০/ নামাযে দুয়া করার সময় আকাশের দিকে দৃষ্টি তোলার ওপর নিষেধাজ্ঞা।
  • ৪১/ নামাযে তাশাহহুদ ওয়াজিব হওয়া।
  • ৪২/ কুরআনের সূরা শিখানোর ন্যায় তাশাহ্‌হুদ শিখানো।
  • ৪৩/ তাশাহহুদ কিরূপ? (তাশাহহুদের বর্ণনা)
  • ৪৪/ অন্য আর এক প্রকার তাশাহ্‌হুদ
  • ৪৫/ আর এক প্রকার তাশাহ্‌হুদ।
  • ৪৬/ নবী (ﷺ) এর উপর সালাম পাঠানো।
  • ৪৭/ নবী (ﷺ) এর উপর সালাম পাঠানোর ফযীলত।
  • ৪৮/ নামাযে আল্লাহর মহাত্ন্য বর্ণনা করা ও নবী (ﷺ) এর উপর দুরুদ পাঠ করা।
  • ৪৯/ নবী (ﷺ) এর উপর দুরুদ পাঠ করার আদেশ।
  • ৫০/ নবী (ﷺ) এর উপর দুরুদ কিভাবে পড়তে হবে?
  • ৫১/ আর এক প্রকার দুরুদ।
  • ৫২/ আর এক প্রকার (দুরুদ )।
  • ৫৩/ আর এক প্রকার (দুরুদ )।
  • ৫৫/ আর এক প্রকার (দুরুদ )।
  • ৫৬/ নবী (ﷺ) এর উপর দুরুদ পাঠের ফযীলত।
  • ৫৬ / নবী (ﷺ) এর উপর দুরুদ পাঠ করার পর দুয়া নির্ধারণের ব্যাপারে স্বাধীনতা।
  • ৫৭ / তাশাহ্‌হুদের পর যিকর করা।
  • ৫৮ / যিকর এর পর দুয়া করা।
  • ৫৯ / আর এক প্রকার দুয়া।
  • ৬০ / আর এক প্রকার দুয়া।
  • ৬১ / আর এক প্রকার দুয়া।
  • ৬২ / আর এক প্রকার দুয়া।
  • ৬৩ / নামাযে তা'আওউয পড়া (বিতাড়িত শয়তান হতে পানহা চাওয়া)।
  • ৬৪ / আর এক প্রকার (তা'আওউয)
  • ৬৫ / তাশাহ্‌হুদের পর আর এক প্রকার যিকর।
  • ৬৬ / নামায সংক্ষেপ করা।
  • ৬৭ / সর্বনিম্ন পর্যায়ের সংক্ষিপ্ত করণ যাদ্বারা নামায শুদ্ধ হয়ে যায়।
  • ৬৮ / নামায শেষে সালাম ফিরানো।
  • ৬৯ / সালামের সময় দু'হাত রাখার স্থান।
  • ৭০/ ডান দিকে কিভাবে সালাম ফিরাবে?
  • ৭১/ বাম দিকে কিভাবে সালাম ফিরাবে?
  • ৭২/ উভয় হাত দ্বারা সালাম ফিরানো।
  • ৭৩/ ইমামের সালাম ফিরানোর সময় মুকতাদির সালাম ফিরানো।
  • ৭৪/ নামাযের পর সিজদা করা।
  • ৭৫/ নামাযে সালাম দেয়ার এবং কথা বলার পর সাহুর (ভুল সংশোধনের জন্য) দু'টি সিজদা করা।
  • ৭৬/ সাহুর দু'টি সাজদার পর সালাম (ফিরানো)।
  • ৭৭/ সালাম ফিরানো এবং ইমামের কিবলার দিক হতে মুসল্লিদের দিকে মুখ ফিরায়ে বসার মধ্যবর্তী সময়ে ইমামের বসা।
  • ৭৮/ সালাম ফিরানোর পর (ইমামের মুসল্লিদের দিকে) ফিরে বসা।
  • ৭৯/ ইমামের সালাম ফিরানোর পর তাকবীর বলা।
  • ৮০/ নামায শেষে সালাম ফিরাবার পর মু'আব্বিযাত (সূরা ফালাক ও সূরা নাস) পড়ার নির্দেশ।
  • ৮১/ সালাম ফিরানোর পর ইস্তিগফার করা (মাগফিরাত চাওয়া)
  • ৮২/ ইশ্তিগফার করার পর যিকর করা।
  • ৮৩/ সালাম ফিরানোর পর তাহলীল "লা-ইলা-হা ইল্লালাহ" পড়া।
  • ৮৪/ সালামের পর যিকর এবং তাহলীলের সংখ্যা।
  • ৮৫/ নামায শেষে আর এক প্রকার দুয়া।
  • ৮৬/ এ দুয়া কতবার পড়বে?
  • ৮৭/ সালাম ফিরানোর পর অন্য প্রকার যিকর।
  • ৮৮/ সালাম ফিরানোর পর আরেক প্রকার দুয়া ও যিকর।
  • ৮৯/ নামায শেষে আরেক প্রকার দুয়া।
  • ৯০/ নামাযের পর (বিতাড়িত শয়তান থেকে) পানাহ চাওয়া।
  • ৯১/ সালাম ফিরানোর পর তাসবিহের সংখ্যা।
  • ৯২/ আর এক প্রকার তাসবিহের সংখ্যা।
  • ৯৩/ অন্য আর এক প্রকার তাসবিহের সংখ্যা।
  • ৯৪/ আর এক প্রকার তাসবিহের সংখ্যা।
  • ৯৫/ আর এক প্রকার তাসবিহের সংখ্যা।
  • ৯৬/ আর এক প্রকার তাসবিহের সংখ্যা।
  • ৯৭/ তাসবিহ গণনা করা।
  • ৯৮/ সালাম ফিরানোর পর কপাল না মোছা।
  • ৯৯/ সালাম ফিরানোর পর ইমামের তাঁর নামাযের স্থানে বসে থাকা।
  • ১০০/ নামায পড়ার শেষে ফিরে বসা।
  • ১০১/ মহিলারা নামায শেষে কখন ফিরে যাবে
  • ১০২/ নামায শেষে ফিরে যাওয়ার সময় ইমামের অগ্রে গমনের নিষেধাজ্ঞা।
  • ১০৩/ ইমাম নামায শেষ করা পর্যন্ত যে ব্যাক্তি তার সাথে নামায পড়ে তার সওয়াব।
  • ১০৪/ ইমামের জন্য মুসল্লিদের ঘাড় ডিঙ্গিয়ে সামনে যাওয়ার অনুমতি।
  • ১০৫/ যখন কাউকে জিজ্ঞেস করা হয় তুমি কি নামায পড়েছ? তখন সে কি না বলবে?
  • ১৪/ জুমু'আ (كتاب الجمعة) ৬৬ টি | ১৩৭০-১৪৩৫ পর্যন্ত 14/ The Book of Jumu'ah (Friday Prayer)
  • ১/ জুমু'আর সালাত ফরয হওয়া
  • ২/ জুমু'আয় উপস্থিত না হওয়ার ক্ষেত্রে সতর্কবাণী
  • ৩/ বিনা কারণে জুমু'আ ত্যাগ করার কাফ্‌ফারা
  • ৪/ জুমু'আর দিনের ফযীলতের বর্ণনা
  • ৫/ জুমু'আর দিন নবী (ﷺ) এর উপর অধিক দুরুদ পড়া
  • ৬/ জুমু'আর দিন মিসওয়াক করার আদেশ
  • ৭/ জুমু'আর দিন গোসল করার আদেশ
  • ৮/ জুমু'আর দিনে গোসল জরুরী হওয়া
  • ৯/ জুমু'আর দিন গোসল না করার অনুমতি
  • ১০/ জুমু'আর দিনে গোসল করার ফযীলাত
  • ১১/ জুমু'আর পরিচ্ছেদ
  • ১২/ জুমু'আর জন্য হেঁটে যাওয়ার ফযীলাত
  • ১৩/ জুমু'আয় সকাল সকাল গমন করা
  • ১৪/ জুমু'আর সময়
  • ১৫/ জুমু'আর জন্য আযান দেওয়া
  • ১৬/ জুমু'আর দিন ইমামের (খুতবা দেওয়ার জন্য) বের হওয়ার পর আগত ব্যাক্তির সালাত আদায় করা
  • ১৭/ খুতবা দেওয়ার সময় ইমামের দাঁড়ানোর স্থান
  • ১৮/ খুতবা দেওয়ার সময় ইমামের দাঁড়ানো
  • ১৯/ ইমামের নিকটবর্তী হওয়ার ফযীলত
  • ২০/ জুমু'আর দিন ইমামের মিম্বরে থাকা অবস্থায় ঘাড়ের উপর দিয়ে যাওয়ার নিষেধাজ্ঞা
  • ২১/ জুমু'আর দিন ইমামের খুতবা দেওয়ার সময় আগত ব্যাক্তির সালাত আদায় করা
  • ২২/ জুমু'আর দিনে খুতবার জন্য চুপ থাকা
  • ২৩/ জুমু'আর দিনে চুপ থাকা এবং অনর্থক কাজ পরিহার করার ফযীলত
  • ২৪/ খুতবার প্রকার
  • ২৫/ ইমামের খুতবায় জুমু'আর দিনে গোসল করার প্রতি উৎসাহ প্রদান
  • ২৭/ ইমাম মিম্বরে থাকাবস্থায় মুসল্লীদের সম্বোধন করা
  • ২৮/ খুতবায় কুরআন তিলওয়াত করা
  • ২৯/ খুতবায় ইশারা করা
  • ৩০/ জুমু'আর দিন ইমামের খুতবা শেষ করার পূর্বে মিম্বর থেকে নেমে যাওয়া এবং তাঁর খুতবা বন্ধ করে দেওয়া, তারপর পুনরায় তা শুরু করা
  • ৩১/ খুতবার সংক্ষেপকরণ মুস্তাহাব হওয়া
  • ৩২/ খুতবা কতবার পাঠ করবে?
  • ৩৩/ দুই খুতবার মাঝে বসার দ্বারা বিরতি করা
  • ৩৪/ দুই খুতবার মাঝখানে বসা অবস্থায় চুপ থাকা
  • ৩৫/ দ্বিতীয় খুতবায় কুরআন তিলাওয়াত করা এবং যিকির করা
  • ৩৬/ মিম্বর থেকে অবতরণ করার পর কথা বলা এবং দাঁড়ানো
  • ৩৭/ জুমু'আর সালাতের (রাকাআত সংখ্যা)
  • ৩৮/ জুমু'আর সালাতে সূরা জুমু'আ এবং মুনাফিকুন পড়া
  • ৩৯/ জুমু'আর সালাতে سبح اسم ربك الأعلى এবং هل أتاك حديث الغاشية পাঠ করা
  • ৪০/ জুমু'আর সালাতের কিরাআতে নু'মান ইবন বশীর (রাঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের বর্ণনার পার্থক্য
  • ৪১/ যে ব্যাক্তি জুমু'আর সালাতের এক রাক'আত পেল
  • ৪২/ জুমু'আর পরে মসজিদে সালাতের সংখ্যা
  • ৪৩/ জুমু'আর পরে ইমামের সালাত আদায় করা
  • ৪৪/ জুমু'আর পরের দু'রাত'আত সালাত দীর্ঘ করা
  • ৪৫/ ঐ মুহূর্তের উল্লেখ যে মুহূর্তে জুমু'আর দিনে দোয়া কবুল করা হয়
  • ১৫/ সফরে নামাজ সংক্ষিপ্ত করা (كتاب تقصير الصلاة فى السفر) ২৬ টি | ১৪৩৬-১৪৬১ পর্যন্ত 15/ The Book of Shortening the Prayer When Traveling
  • পরিচ্ছেদ নাই
  • ১/ মক্কায় সালাত আদায় করা
  • ২/ মিনায় সালাত আদায় করা
  • ৩/ যতটুকু দূরত্বে সালাত সংক্ষিপ্তভাবে আদায় করা যায়
  • ৪/ সফরের সময় নফল সালাত ছেড়ে দেওয়া
  • ১৬/ গ্রহন [চন্দ্র সূর্য] (كتاب الكسوف) ৪৫ টি | ১৪৬২-১৫০৬ পর্যন্ত 16/ The Book of Eclipses
  • ১/ সূর্য ও চন্দ্র গ্রহণ
  • ২/ সূর্য গ্রহণের সময় তাসবীহ, তাকবীর এবং দোয়া করা
  • ৩/ সূর্য গ্রহণের সময় সালাত আদায় করার নির্দেশ
  • ৪/ চন্দ্র গ্রহণের সময় সালাত আদায় করার নির্দেশ
  • ৫/ গ্রহণের সময় সূর্য আলোকিত না হওয়া পর্যন্ত সালাত আদায় করার নির্দেশ
  • ৬/ গ্রহণকালীন সময়ের সালাতের জন্য ডাক দেওয়ার নির্দেশ
  • ৭/ গ্রহণকালীন সালাতে কাতারনন্দী হওয়া
  • ৮/ গ্রহণকালীন সালাত কিরূপ?
  • ৯/ ইবন আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত আর এক প্রকার গ্রহণকালীন সালাত
  • ১০/ অন্য আর এক প্রকার সূর্য গ্রহণকালীন সালাত
  • ১১/ আয়েশা (রাঃ) থেকে আর এক প্রকার বর্ণনা
  • ১২/ অন্য আর এক প্রকার বর্ণনা
  • ১৩/ অন্য আর এক প্রকার বর্ণনা
  • ১৪/ অন্য আর এক প্রকার বর্ণনা
  • ১৫/ অন্য আর এক প্রকার বর্ণনা
  • ১৬/ অন্য আর এক প্রকার বর্ণনা
  • ১৭/ সূর্য গ্রহণকালীন সালাতে কিরা'আতের পরিমাণ
  • ১৮/ গ্রহণকালীন সালাতে উচ্চস্বরে কিরা'আত পড়া
  • ১৯/ গ্রহণকালীন সালাতে উচ্চস্বরে কিরা'আত না পড়া
  • ২০/ গ্রহণকালীন সালাতে সিজদায় কথা বলা
  • ২১/ গ্রহণকালীন সালাতে তাশাহ্‌হুদ পড়া ও সালাম ফিরানো
  • ২২/ গ্রহণকালীন সালাত আদায় করার পর মিম্বরে বসা
  • ২৩/ গ্রহণকালীন (সালাতের পর) খুৎবার প্রকার
  • ২৪/ গ্রহণকালীন সময়ে দোয়ার নির্দেশ
  • ২৫/ গ্রহণকালীন সময়ে ইস্তিগফারের নির্দেশ
  • ১৭/ ইস্তিস্কা [বৃষ্টির জন্য দুয়া করা] (كتاب الاستسقاء) ২৫ টি | ১৫০৭-১৫৩১ পর্যন্ত 17/ The Book of Praying for Rain (Al-Istisqa')
  • ১/ ইমাম কখন ইস্তিস্কা করবেন?
  • ২/ ইমামের বৃষ্টির দোয়া করার জন্য সালাতের স্থান অভিমুখে রওয়ানা হওয়া
  • ৩/ বের হওয়াকালীন সময়ে ইমামের যে অবস্থায় থাকা মুস্তাহাব
  • ৪/ ইস্তিস্কার জন্য ইমামের মিম্বরে বসা
  • ৫/ ইস্তিস্কার দোয়া করার সময় ইমামের পিঠ মানুষের দিকে ফিরিয়ে দেওয়া
  • ৬/ ইস্তিস্কার সময় ইমামের চাদর উল্টিয়ে দেওয়া
  • ৭/ ইমাম কখন তাঁর চাদর উল্টিয়ে দেবেন?
  • ৮/ ইমামের হাত উঠানো
  • ৯/ (হস্তদ্বয়) কিভাবে উঠাবেন?
  • ১০/ দোয়ার উল্লেখ
  • ১১/ দোয়ার পর সালাত আদায় করা
  • ১২/ ইস্তিস্কার সালাত কত রাকা'আত?
  • ১৩/ ইস্তিস্কার সালাত কিরূপ?
  • ১৪/ ইস্তিস্কার সালাতে উচ্চস্বরে কুরআন পাঠ করা
  • ১৮/ বৃষ্টির সময় কথা বলা
  • ১৯/ তারকার সাহায্যে বৃষ্টি কামনার অপছন্দনীয়তা
  • ২০/ বৃষ্টির ক্ষতির আশংকা হলে তা বন্ধ করার জন্য ইমামের দোয়া করা
  • ২১/ বৃষ্টি বন্ধের দোয়ার সময় ইমামের হস্তদ্বয় উঠানো
  • ১৮/ ভয়কালীন নামাজ (كتاب صلاة الخوف) ২৭ টি | ১৫৩২-১৫৫৮ পর্যন্ত 18/ The Book of the Fear Prayer
  • ভয়কালীন সালাত
  • ১৯/ উভয় ঈদের নামায (كتاب صلاة العيدين) ৪২ টি | ১৫৫৯-১৬০০ পর্যন্ত 19/ The Book of the Prayer for the Two 'Eids
  • ১/ পরিচ্ছেদ নাই
  • ২/ চাঁদ দেখার পরবর্তী দিন ঈদের সালাতের জন্য বের হওয়া
  • ৩/ কিশোরী এবং যুবতী নারীদের উভয় ঈদের সালাতে বের হওয়া
  • ৪/ মানুষের স্থান থেকে ঋতুমতিদের দূরত্বে অবস্থান করা
  • ৫/ উভয় ঈদের সাজ-সজ্জা
  • ৬/ ঈদের দিন ইমামের পূর্বে সালাত আদায় করা
  • ৭/ উভয় ঈদের সালাতের জন্য আযান পরিত্যাগ করা
  • ৮/ ঈদের দিনে খুতবা পাঠ করা
  • ৯/ উভয় ঈদের খুৎবার পূর্বে সালাত আদায় করা
  • ১০/ লাঠি সম্মুখে রেখে উভয় ঈদের সালাত আদায় করা
  • ১১/ উভয় ঈদের সালাতে রাক'আতের সংখ্যা
  • ১২/ উভয় ঈদের সালাতে সূরা "ক্বাফ" এবং "ইকতারাবাত" পাঠ করা
  • ১৩/ উভয় ঈদের সালাতে সূরা سَبِّحِ اسْمَ رَبِّكَ الأَعْلَى এবং هَلْ أَتَاكَ حَدِيثُ الْغَاشِيَةِ তিলাওয়াত করা
  • ১৪/ উভয় ঈদে সালাতের পর খুৎবা দেওয়া
  • ১৫/ উভয় ঈদের সালাতের খুৎবা শুনার জন্য বসা ও না বসার ইখতিয়ার
  • ১৬/ উভয় ঈদের খুৎবা দেওয়ার জন্য সাজ-সজ্জা করা
  • ১৭/ উটের পৃষ্ঠে বসা থাকা অবস্থায় খুৎবা দেওয়া
  • ১৮/ ইমামের দাঁড়িয়ে খুৎবা দেওয়া
  • ১৯/ ইমামের খুৎবা দেওয়াকালীন কোন মানুষের উপর ভর করে দাঁড়ানো
  • ২০/ খুৎবা পাঠকালীন ইমামের মানুষের দিকে মুখ করে দাঁড়ানো
  • ২১/ খুৎবা দেয়ার সময় নীরব থাকা
  • ২২/ খুৎবা কিরূপ?
  • ২৩/ ইমামের খুৎবায় সদাকার প্রতি উদ্বুদ্ধ করা
  • ২৪/ পরিমিতরূপে খুৎবা পাঠ করা
  • ২৫/ খুৎবার মাঝখানে বসা এবং তাতে নীরব থাকা
  • ২৬/ দ্বিতীয় খুৎবায় আয়াত পাঠ করা এবং তাতে যিক্‌র করা
  • ২৭/ ইমামের খুৎবা থেকে অবসর হওয়ার পূর্বে মিম্বার থেকে অবতরণ করা
  • ২৮/ ইমামের খুৎবা থেকে অবসর হওয়ার পর মহিলাদের নসিহত করা এবং তাদের সদাকার জন্য উদ্বুদ্ধ করা
  • ২৯/ উভয় ঈদের সালাতের পূর্বে এবং পরে সালাত আদায় করা
  • ৩০/ ঈদের দিন ইমামের যবেহ করা এবং যবেহ করা পশুর সংখ্যা
  • ৩১/ দুই ঈদ একত্রিত হয়ে যাওয়া এবং দুই ঈদ পাওয়া
  • ৩২/ যে ব্যাক্তি ঈদের সালাতে উপস্থিত থেকেছে তার জন্য জুমু'আর সালাতে উপস্থিত না থাকার অনুমতি
  • ৩৩/ ঈদের দিনে দফ্‌ বাজানো
  • ৩৪/ ঈদের দিনে ইমামের সম্মুখে খেলাধূলা করা
  • ৩৫/ ঈদের দিনে মসজিদে খেলাধূলা করা এবং মহিলাদের সেদিকে দৃষ্টি দেওয়া
  • ৩৬/ ঈদের দিন কবিতা শ্রবণ এবং দফ্‌ বাজানোর অনুমতি
  • ২০/ তাহাজ্জুদ ও দিনের নফল নামাজ (كتاب قيام الليل وتطوع النهار) ২২০ টি | ১৬০১-১৮২০ পর্যন্ত 20/ The Book of Qiyam Al-Lail (The Night Prayer) and Voluntary Prayers During the Day
  • ১/ ঘরে নফল সালাত আদায় করার প্রতি উদ্বুদ্ধ করা এবং তার ফযীলত বর্ণনা
  • ২/ বিতর এবং তাহজ্জুদ সালাত
  • ৩/ ইবাদাত জ্ঞানে সওয়াব লাভের নিয়তে তারাবীহ্‌র সালাত আদায়কারীর সওয়াব
  • ৪/ রমযান মাসে তারাবীহ্‌র সালাত আদায় করা
  • ৫/ তাহজ্জুদের প্রতি উদ্বুদ্ধ করা
  • ৬/ রাত্রের সালাতের ফযীলত
  • ৭/ সফরকালীন সময়ে রাত্রে সালাত আদায় করার ফযীলত
  • ৮/ তাহজ্জুদের সালাতের জন্য জাগ্রত হওয়ার সময়
  • ৯/ নিদ্রা থেকে জাগ্রত হওয়ার পর যিক্‌র
  • ১০/ রাত্রে নিদ্রা থেকে জাগ্রত হয়ে (রাসূলুল্লাহ ﷺ) কিরূপে মিসওয়াক করতেন
  • ১১/ হাদিসে আবু হাসীন উসমান ইবন আসিম এর বর্ণনার মধ্যে পার্থক্যের উল্লেখ
  • ১২/ তাহজ্জুদের সালাত কোন দোয়া দ্বারা শুরু করা হবে?
  • ১৩/ রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর রাত্রের সালাতের উল্লেখ
  • ১৪/ আল্লাহ্‌র নবী দাউদ (আঃ) এর সালাত আদায় করার উল্লেখ
  • ১৫/ আল্লাহ্‌র নবী মুসা কালীমুল্লাহ (আঃ) এর সালাত আদায় করার এবং অত্র হাদিসে সুলায়মান তায়মী (রহঃ) এর বর্ণনার মধ্যে পার্থক্যের উল্লেখ
  • ১৬/ পূর্ণরাত্রি জাগরণ
  • ১৭/ পূর্ণ রাত্রি জাগরণ সম্পর্কে আয়েশা (রাঃ) এর মতপার্থক্য
  • ১৮/ দাঁড়িয়ে সালাত আদায়কালীন রুকুর পূর্ব মুহূর্তে রাসূলুল্লাহ (ﷺ) কি করতেন?
  • ১৯/ নফল সালাত বসে বসে আদায় করা
  • ২০/ বসে বসে সালাত আদায় করার উপর দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে সালাত আদায় করার ফযীলত
  • ২১/ শুয়ে শুয়ে সালাত আদায় করার উপর বসে বসে সালাত আদায় করার ফযীলত
  • ২২/ বসে বসে সালাত কিরূপে আদায় করতে হবে?
  • ২৩/ রাত্রে কুরআন কিভাবে পাঠ করতে হবে?
  • ২৪/ (স্থান কাল ভেদে) উচ্চস্বরে কুরআন তিলাওয়াত করার উপর নিম্নস্বরে কুরআন তিলাওয়াত করার ফযীলত
  • ২৫/ তাহজ্জুদের সালাতে কিয়াম, রুকু, রুকুর পরে দাঁড়ানো, সিজদা এবং উভয় সিজদার মধ্যে বসায় সমতা বিধান করা
  • ২৬/ রাত্রের সালাত কিভাবে আদায় করতে হবে?
  • ২৭/ বিতর সালাতের আদেশ
  • ২৮/ নিদ্রা যাওয়ার পূর্বে বিতরের সালাত আদায় করার প্রতি উদ্বুদ্ধ করা
  • ২৯/ এক রাত্রে দুইবার বিতরের সালাত আদায় করার ব্যাপারে নবী (ﷺ) এর নিষেধাজ্ঞা
  • ৩০/ বিত্‌রের সালাতের সময়
  • ৩১/ ভোর হওয়ার পূর্বে বিত্‌রের সালাত আদায় করার নির্দেশ
  • ৩২/ ফজরের আযানের পর বিত্‌রের সালাত আদায় করা
  • ৩৩/ যানবাহনের উপর বিত্‌রের সালাত আদায় করা
  • ৩৪/ বিত্‌রের সালাত কত রাক'আত?
  • ৩৫/ বিত্‌রের সালাতের একটি রাক'আত কিভাবে আদায় করতে হবে?
  • ৩৬/ তিন রাক'আত বিত্‌রের সালাত কিভাবে আদায় করতে হবে?
  • ৩৭/ বিত্‌রের সালাত সম্বন্ধে উবাই ইবন কা'ব (রাঃ) থেকে হাদীস বর্ণনাকারীদের বর্ণনা পার্থক্য
  • ৩৮/ বিত্‌রের সালাত সম্বন্ধে সাঈদ ইবন জুবাইর কর্তৃক ইবন আব্বাস (রাঃ) থেকে বর্ণিত হাদিসে আবু ইসহাকের উপর মতানৈক্য
  • ৩৯/ বিত্‌রের সালাতের ব্যাপারে ইবন আব্বাস (রাঃ) কর্তৃক বর্ণিত হাদীসে হাবীব ইবন সাবিতের মতানৈক্য
  • ৪০/ বিত্‌র সালাত সম্পর্কে আবু আইয়ূবের হাদীস বর্ণনায় যুহরীর ওপর মতানৈক্য
  • ৪১/ পাঁচ রাক'আত দ্বারা বেজোড় কিভাবে করতে হবে? হাদীস বর্ণনা হাকামের উপর মতানৈক্য
  • ৪২/ সাত রাক'আত কিভাবে বেজোড় করা হবে?
  • ৪৩/ নয় রাক'আত দ্বারা বেজোড় কিভাবে করা হবে?
  • ৪৪/ এগার রাক'আত দ্বারা বেজোড় কিভাবে করা হবে?
  • ৪৫/ তের রাক'আত দ্বারা বেজোড় করা
  • ৪৬/ বিত্‌রের সালাতে কুরআন পাঠ করা
  • ৪৭/ বিতরের সালাতে অন্য আর এক প্রকারের কুরআন পাঠ
  • ৪৮/ হাদীস বর্ণনা শু'বার উপর মতানৈক্য
  • ৪৯/ হাদীস বর্ণনায় মালিক ইবন মিগওয়াল এর উপর মতানৈক্য
  • ৫০/ কাতাদাহ সুত্রে বর্ণিত হাদীসে শু'বাহ এর উপর মতানৈক্য
  • ৫১/ বিত্‌রের সালাতে দোয়া পড়া
  • ৫২/ বিত্‌রের সালাত অন্তে দোয়ার সময় হস্তদ্বয় উঠানোর ব্যাপারে আধিক্য পরিহার করা
  • ৫৩/ বিত্‌রের সালাত অন্তে সিজদার পরিমাণ
  • ৫৪/ বিত্‌রের সালাত অন্তে তাসবীহ পাঠ করা
  • ৫৫/ ফজরের দু'রাকআত সুন্নাত এবং বিত্‌রের সালাতের মধ্যবর্তী সময়ে সালাত আদায় করা মুবাহ হওয়া সম্পর্কে
  • ৫৬/ ফজরের দু'রাকআত সুন্নাত সর্বদা পড়া
  • ৫৭/ দু'রাকআত সুন্নাত আদায় করার সময়
  • ৫৮/ ফজরের দু'রাকআত সুন্নাত আদায় করার পর ডান কাতে শয়ন করা
  • ৫৯/ তাহজ্জুদ সালাত পরিত্যাগকারীর নিন্দা প্রসঙ্গে
  • ৬০/ ফজরের দু'রাকআত সুন্নতের সময়
  • ৬১/ তাহজ্জুদ সালাতে অভ্যস্ত ব্যাক্তির যদি নিদ্রা প্রবল হয়ে যায়
  • ৬২/ সাঈদ ইবন জুবায়র (রাঃ) এর নিকট প্রিয়ভাজন ব্যাক্তির নাম
  • ৬৩/ যে ব্যক্তি তাহজ্জুদের সালাত আদায় করার নিয়তে বিছানায় এসে ঘুমিয়ে পড়ে
  • ৬৪/ অসুখ-বিসুখ, ব্যথা-বেদনা, কিংবা নিদ্রার কারণে তাহজ্জুদের সালাত আদায় করতে না পারলে দিনের বেলা তার পরিবর্তে কত রাক'আত আদায় করতে হবে?
  • ৬৫/ নিদ্রার কারণে রাত্রের ওযীফা পালন করতে না পারলে সে কখন তা কাযা করবে?
  • ৬৬/ দিবা রাত্রে ফরয সালাত ব্যতীত বার রাকআত সালাত আদায় করার সাওয়াব
  • ৬৭/ হাদীস বর্ণনায় ইসমাঈল ইবন খালিদের মতানৈক্য
  • ২১/ জানাজা (كتاب الجنائز) ২৭৩ টি | ১৮২১-২০৯৩ পর্যন্ত 21/ The Book of Funerals
  • ১/ মৃত্যু কামনা করা
  • ২/ মৃত্যুর দোয়া
  • ৩/ মৃত্যুকে অধিক স্মরণ করা
  • ৪/ মৃত্যুমুখী ব্যক্তিকে স্মরণ করিয়ে দেয়া
  • ৫/ মৃত্যুমুখী মু'মিন ব্যাক্তির লক্ষণ
  • ৬/ মৃত্যু যন্ত্রণা
  • ৭/ সোমবারের মৃত্যু
  • ৮/ নিজ জন্মস্থান ছাড়া অন্যত্র মৃত্যুবরণ করা
  • ৯/ মু'মিন ব্যাক্তি স্বীয় প্রাণ বহির্গত হওয়ার সময় যে সব অত্যাশ্চর্য দৃশ্য অবলোকন করে থাকে
  • ১০/ যে ব্যক্তি আল্লাহ তা'আলার সাথে সাক্ষাৎ পছন্দ করে
  • ১১/ মৃত ব্যাক্তিকে চুমু দেয়া
  • ১২/ মৃত ব্যাক্তিকে ঢেকে দেয়া
  • ১৩/ মৃত ব্যাক্তির জন্য ক্রন্দন করা
  • ১৪/ মৃতের জন্য ক্রন্দনের নিষেধাজ্ঞা
  • ১৫/ মৃতের জন্য বিলাপ করা
  • ১৬/ মৃত ব্যাক্তির জন্য ক্রন্দন করার অনুমতি
  • ১৭/ জাহিলী যুগের দোয়া
  • ১৮/ বিপদের সময় চিৎকার করা
  • ১৯/ গণ্ডদেশে আঘাত করা
  • ২০/ দাঁড়ি বা মাথার চুল উপড়ে ফেলা
  • ২১/ আঁচল ছিঁড়ে ফেলা
  • ২২/ বিপদের সময় সাওয়াবের নিয়তে ধৈর্যধারণ করার আদেশ
  • ২৩/ ধৈর্যধারণ এবং সাওয়াবের নিয়ত করার প্রতিদান
  • ২৪/ যে ব্যাক্তি তার তিন সন্তানের মৃত্যুতে ধৈর্যধারণ করেছে তার প্রতিদান
  • ২৫/ যে ব্যাক্তির তিন সন্তান মৃত্যুবরণ করে
  • ২৬/ যে ব্যাক্তির জীবদ্দশায় তিন সন্তানের মৃত্যু হয়
  • ২৭/ মৃত্যু সংবাদ দেওয়া
  • ২৮/ পানি ও কুল পাতা দিয়ে মৃত ব্যাক্তিকে গোসল দেওয়া
  • ২৯/ গরম পানি দিয়ে মৃত ব্যাক্তির গোসল দেওয়া
  • ৩০/ মৃতের মাথার চুল খুলে দেওয়া
  • ৩১/ মৃতের ডান দিক ও ওযুর স্থান
  • ৩২/ মৃতকে বেজোড় গোসল দেওয়া
  • ৩৩/ মৃত ব্যাক্তিকে পাঁচবারের অধিক গোসল দেওয়া
  • ৩৪/ মৃত ব্যাক্তিকে সাতবারের অধিক গোসল দেওয়া
  • ৩৫/ মৃত ব্যাক্তিকে গোসল দেওয়ার সময় কর্পূর ব্যবহার করা
  • ৩৬/ শরীরের সঙ্গে মিলিয়ে পোশাক দেওয়া
  • ৩৭/ উত্তম কাফন পরিধান করানোর আদেশ
  • ৩৮/ কোন ধরনের কাফন উত্তম?
  • ৩৯/ নবী (ﷺ) এর কাফন
  • ৪০/ কাফনে কুর্তা ব্যবহার করা
  • ৪১/ মুহরীম মৃত্যুবরণ করলে তাকে কিভাবে কাফন পরানো হবে?
  • ৪২/ কস্তুরী
  • ৪৩/ জানাযার অনুমতি প্রদান করা
  • ৪৪/ জানাযা তাড়াতাড়ি পড়া
  • ৪৫/ জানাযার জন্য দাঁড়াবার আদেশ
  • ৪৬/ মুশরিকদের মৃত দেহের জন্য দাঁড়ানো
  • ৪৭/ না দাঁড়ানোর অনুমতি
  • ৪৮/ মৃত্যুতে মু'মিনের নিষ্কৃতি প্রাপ্তি
  • ৪৯/ কাফির থেকে নিষ্কৃতি
  • ৫০/ মৃত ব্যাক্তির প্রশংসা করা
  • ৫১/ মৃত ব্যাক্তি সম্পর্কে ভাল ব্যতীত মন্তব্য না করা
  • ৫২/ মৃত ব্যাক্তিদের মন্দ বলার নিষেধাজ্ঞা
  • ৫৩/ জানাযার পিছু পিছু যাওয়ার নির্দেশ
  • ৫৪/ জানাযার অনুগমনকারীদের ফযীলত
  • ৫৫/ জানাযায় আরোহীদের অবস্থান
  • ৫৬/ জানাযায় পদব্রজে চলাকারী ব্যাক্তির চলার স্থান
  • ৫৭/ মৃত ব্যাক্তির জানাযার সালাত আদায় করার নির্দেশ
  • ৫৮/ বালকের জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৫৯/ শিশুদের জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৬০/ মুশরিকদের সন্তান
  • ৬১/ শহীদদের জানাযার সালাত
  • ৬২/ তাদের উপর জানাযার সালাত আদায় না করা
  • ৬৩/ রজমকৃত (পাথর নিক্ষেপিত) ব্যাক্তিদের উপর জানাযার সালাত আদায় না করা
  • ৬৪/ রজমকৃত (পাথর নিক্ষেপিত) ব্যাক্তিদের উপর জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৬৫/ ওসিয়্যতে অন্যায়কারীর জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৬৬/ খিয়ানতকারীর উপর জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৬৭/ ঋণগ্রস্থ ব্যাক্তির উপর জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৬৮/ আত্মহত্যাকারীর উপর জানাযার সালাত আদায় না করা
  • ৬৯/ মুনাফিকদের উপর জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৭০/ মসজিদে জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৭১/ রাত্রে জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৭২/ জানাযার সালাতে কাতারবন্দী হয়ে দাঁড়ানো
  • ৭৩/ জানাযার সালাত দাঁড়িয়ে আদায় করা
  • ৭৪/ মহিলা ও শিশুর জানাযার সালাত একত্রিত করা
  • ৭৫/ পুরুষ এবং মহিলার জানাযার সালাত একত্রিত করা
  • ৭৬/ জানাযায় তাকবীরের সংখ্যা
  • ৭৭/ দোয়া
  • ৭৮/ যে মৃত ব্যাক্তির উপর একশত জন ব্যাক্তি জানাযার সালাত আদায় করে তার ফযীলত
  • ৭৯/ যে ব্যাক্তি কোন মৃত ব্যাক্তির উপর জানাযার সালাত আদায় করে তার সাওয়াব
  • ৮০/ জানাযা রাখার পূর্বে বসে পড়া
  • ৮১/ জানাযার জন্য দাঁড়ানো
  • ৮২/ শহীদকে স্বীয় রক্তসহ দাফন করা
  • ৮৩/ শহীদকে কোথায় দাফন করা হবে?
  • ৮৪/ মুশরীকদের দাফন করা
  • ৮৫/ লাহদ এবং শাক্ক
  • ৮৬/ কবরের মুস্তাহাব গভীরতা
  • ৮৭/ কবরকে প্রশস্ত করা মুস্তাহাব
  • ৮৮/ কবরে কাপড় রাখা
  • ৮৯/ যে সময়ে মৃত ব্যাক্তিকে কবর দেওয়া নিষেধ
  • ৯০/ অনেক ব্যাক্তিকে এক কবরে দাফন করা
  • ৯১/ কাকে অগ্রে দাফন করা হবে?
  • ৯২/ কবরে রাখার পর মৃত ব্যাক্তিকে বাহির করা
  • ৯৩/ মৃত ব্যাক্তিকে দাফন করার পর কবর থেকে বের করা
  • ৯৪/ কবরের উপর জানাযার সালাত আদায় করা
  • ৯৫/ জানযা শেষে আরোহণ করা
  • ৯৬/ কবরকে বর্ধিত করা
  • ৯৭/ কবর পাকা করা
  • ৯৮/ কবরে চুনকাম করা
  • ৯৯/ কবর উঁচু করা হলে তা সমতল করে দেওয়া
  • ১০০/ কবর যিয়ারত করা
  • ১০১/ মুশরিকের কবর যিয়ারত করা
  • ১০২/ মুশরিকদের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করার নিষেধাজ্ঞা
  • ১০৩/ মু'মিনদের জন্য ইস্তিগফারের নির্দেশ
  • ১০৪/ কবরে বাতি জ্বালানোর ব্যাপারে কঠোরতা
  • ১০৫/ কবরে বসার ব্যাপারে কঠোরতা
  • ১০৬/ কবরকে মসজিদ বানানো
  • ১০৭/ পাকা চামড়ার জুতা পরিধান করে কবরে হাঁটা গর্হিত
  • ১০৮/ পাকা জুতা ব্যতীত অন্য জুতা পরিধানের ব্যাপারে নমনীয়তা
  • ১০৯/ কবরে জিজ্ঞাসাবাদ
  • ১১০/ কাফিরের জিজ্ঞাসাবাদ
  • ১১১/ যে ব্যাক্তি পেটের পীড়ায় মারা যায়
  • ১১২/ শহীদ
  • ১১৩/ কবর মিলিয়ে যাওয়া
  • ১১৪/ কবরের আযাব
  • ১১৫/ কবরের আযাব থেকে আল্লাহ্‌র আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১১৬/ কবরের উপর খেজুরের ডাল রাখা
  • ১১৭/ মু'মিনদের রূহসমূহ
  • ১১৮/ পুনরুত্থান
  • ১১৯/ প্রথমে যাকে কাপড় পরিধান করানো হবে
  • ১২০/ শোকে সমবেদনা প্রকাশ করা
  • ১২১/ অন্য প্রকার
  • ২২/ সাওম [রোযা] (كتاب الصيام) ৩৪৪ টি | ২০৯৪-২৪৩৬ পর্যন্ত 22/ The Book of Fasting
  • ১/ সাওম ফরয হওয়া
  • ২/ রমযান মাসে দান এবং অত্যাধিক দানশীলতার বর্ণনা
  • ৩/ রমযান মাসের ফযীলত
  • ৪/ যুহরী (রহঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে পার্থক্য
  • ৫/ মা'মার থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে পার্থক্য
  • ৬/ রমযান মাসকে শুধু রমযান বলার অনুমতি
  • ৭/ বিভিন্ন দেশে চাঁদ দেখার বিভিন্নতা
  • ৮/ রমযান মাসের চাঁদ দেখার ব্যাপারে একজনের সাক্ষ্য গ্রহন করা এবং এ ব্যাপারে সিমাক (রহঃ) এর হাদীসে সুফিয়ান এর বর্ণনা পার্থক্য
  • ৯/ আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকলে শা'বান মাসের ত্রিশ দিন পূর্ণ করা এবং আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে বর্ণনা পার্থক্য
  • ১০/ উবায়দুল্লাহ ইবন উমর থেকে এ হাদীসের সনদের পার্থক্য বর্ণনা
  • ১১/ আমর ইবন দীনার (রহঃ) কর্তৃক ইবন আব্বাস (রাঃ) থেকে উক্ত হাদীসের বর্ণনায় সনদের পার্থক্য
  • ১২/ মানসূর (রহঃ) কর্তৃক রিবয়ী হিরাশ (রহঃ) সুত্রে উক্ত হাদীস বর্ণনায় সনদের পার্থক্য বর্ণনা
  • ১৩/ যুহরী (রহঃ) কর্তৃক আয়েশা (রাঃ) থেকে উক্ত রেওয়ায়ত বর্ণনায় সনদের পার্থক্য বর্ণনা
  • ১৪/ এ প্রসঙ্গে ইবন আব্বাস (রাঃ) এর হাদীস বর্ণনা
  • ১৫/ ইসমাঈল (রহঃ) সুত্রে সা'দ ইবন মালিক থেকে হাদীস বর্ণনা পার্থক্য
  • ১৬/ ইয়াহইয়া ইবন আবী কাসীর (রহঃ) সুত্রে আবু সালামা থেকে উক্ত হাদীস বর্ণনায় সনদের পার্থক্য বর্ণনা
  • ১৭/ সাহারী খাওয়ার উৎসাহ প্রদান
  • ১৮/ আবদুল মালিক ইবন আবু সুলায়মান (রহঃ) সুত্রে এ হাদীস বর্ণনায় সনদের পার্থক্য
  • ১৯/ সাহারী বিলম্বে খাওয়া
  • ২০/ সাহারী এবং ফজরের সালাতের মধ্যকার ব্যবধান
  • ২১/ হিশাম ও সাঈদ (রহঃ) কর্তৃক কাতাদার বর্ণনায় পার্থক্য
  • ২২/ সুলায়মান ইবন মিহরান (রহঃ) কর্তৃক আয়েশা (রাঃ) থেকে সাহরী বিলম্বে খাওয়ার শব্দ ও সনদের পার্থক্য বর্ণনা
  • ২৩/ সাহারীর ফযীলত
  • ২৪/ সাহারী খাওয়ার জন্য আহ্বান করা
  • ২৫/ সাহারীকে সকালের খাদ্য বলে নামকরণ
  • ২৬/ আমাদের সাওম এবং আহলে কিতাবের সাওমের মধ্যে পার্থক্য
  • ২৭/ ছাতু এবং খোরমা দ্বারা সাহারী খাওয়া
  • ২৮/ আল্লাহ্‌ তা'আলার বাণীঃ وَكُلُوا وَاشْرَبُوا حَتَّى يَتَبَيَّنَ لَكُمُ الْخَيْطُ الأَبْيَضُ مِنَ الْخَيْطِ الأَسْوَدِ مِنَ الْفَجْرِ এর ব্যাখা
  • ২৯/ ফজর কখন হবে?
  • ৩০/ রমযান মাস আসার পূর্বেই সাওম পালন করে দেয়া
  • ৩১/ ইয়াহইয়া ইবন আবূ কাসীর ও মুহাম্মাদ ইবন আমর (রহঃ) কর্তৃক আবু সালামা (রহঃ) সুত্রে হাদীস বর্ণনায় পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৩২/ এ প্রসঙ্গে আবূ সালামা (রহঃ) কর্তৃক হাদীস বর্ণনার উল্লেখ
  • ৩৩/ এ প্রসঙ্গে মুহাম্মাদ ইবন ইবরাহীম (রহঃ) সুত্রে হাদীস বর্ণনায় পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৩৪/ এ বিষয়ে আয়শা (রাঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের শব্দের পার্থক্য-এর উল্লেখ
  • ৩৫/ এ হাদীসে খালিদ ইবন মা'দান (রহঃ) থেকে বর্ণনার পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৩৬/ সন্দেহযুক্ত দিনে সাওম পালন করা
  • ৩৭/ সন্দেহযুক্ত দিনে রোযা রাখা
  • ৩৮/ যে ব্যাক্তি আল্লাহ্‌ তা'আলার উপর দৃঢ় বিশ্বাস রেখে সাওাবের নিয়তে রমযান মাসে তারাবীহর সালাত আদায় করে এবং সাওম পালন করে তার সাওয়াব- এ বিষয়ে যুহরী (রহঃ) থেকে রেওায়াত বর্ণনায় পার্থক্য
  • ৩৯/ এ হাদীস বর্ণনায় ইয়াহইয়া ইবন আবু কাসীর ও নাযর ইবন শায়বান (রহঃ) এর বর্ণনার পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৪০/ সিয়াম পালনের ফযীলত, এ প্রসঙ্গে আলী ইবন আবু তালিব (রাঃ) সুত্রে বর্ণিত হাদীসে আবু ইসহাক (রহঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের বর্ণনায় পার্থক্য
  • ৪১/ এ হাদীসের বর্ণনায় আবু সালিহ (রহঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের বর্ণনা পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৪২/ সাওম পালনকারীর ফযীলত সম্পর্কে আবু উমামা (রাঃ) এর হাদীসে মুহাম্মাদ ইবন আবু ইয়াকুব (রহঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের বর্ণনা পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৪৩/ যে ব্যাক্তি মহান আল্লাহর রাস্তায় একদিন সাওম পালন করলো তার সাওয়াব, এ বিষয়ে হাদীস বর্ণনায় সুহায়ল ইবন আবু সালিহ (রহঃ) থেকে বর্ণনা পার্থক্য প্রসঙ্গ
  • ৪৪/ এ বিষয়ে সুফিয়ান (রহঃ) সুত্রে হাদীস বর্ণনায় বর্ণনা পার্থক্য
  • ৪৫/ সফরকালীন সাওম মাকরূহ হওয়া
  • ৪৬/ যে কারণে সফরে সাওম পালন সম্পর্কে উক্ত বক্তব্য দেওয়া হয়েছে এবং এ বিষয়ে জাবির ইবন আবদুল্লাহ (রাঃ) থেকে বর্ণিত সনদে মুহাম্মাদ ইবন আবদুর রহমান (রহঃ) এর বর্ণনা পার্থক্য
  • ৪৭/ আলী ইবন মুবারাক (রহঃ) থেকে বর্ণনায় সনদের বিভিন্নতা
  • ৪৮/ জাবির (রাঃ) থেকে বর্ণনাকারী ব্যাক্তির নাম
  • ৪৯/ মুসাফির থেকে সাওম মুলতবীকরণ এবং আমর ইবন উমাইয়া থেকে আওযায়ী কর্তৃক রেওয়ায়ত বর্ণনায় সনদের বিভিন্নতা
  • ৫১/ সফরকালীন অবস্থায় সাওম পালনকারীর উপর সাওম ভঙ্গকারীর ফযীলত
  • ৫২/ সফরকালীন সাওম পালনকারী বাড়িতে অবস্থানকালীন সাওম ভঙ্গকারীর ন্যায়
  • ৫৩/ সফরকালীন অবস্থায় সাওম পালন করা- এ বিষয়ে ইবন আব্বাস (রাঃ) এর হাদীসে বর্ণনাভেদের উল্লেখ
  • ৫৪/ মানসূর (রহঃ) এর বর্ণনার পার্থক্য
  • ৫৫/ এ বিষয়ে হামযা ইবন আমর (রাঃ) এর হাদীসে সুলায়মান ইবন ইয়াসার (রহঃ) থেকে বর্ণনার ইখতিলাফের উল্লেখ
  • ৫৬/ এ প্রসঙ্গে হামযা (রাঃ) কর্তৃক বর্ণিত হাদীসে উরওয়াহ (রহঃ) এর বর্ণনা পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৫৭/ এ প্রসঙ্গে হিশাম ইবন উরওয়াহ (রহঃ) এর বর্ণনাভেদের উল্লেখ
  • ৫৮/ এ প্রসঙ্গে আবু নাযরাহ মুনযির ইবন মালিক ইবন কাত'আ থেকে বর্ণিত পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৫৯/ মুসাফিরের জন্য কিছু সাওম পালন করার এবং কিছু সাওম ভঙ্গ করে ফেলার অনুমতি
  • ৬০/ যে ব্যাক্তি রমযান মাস ব্যতীত অবস্থানকালে সাওম শুরু করে তারপর সফর শুরু করে, তার জন্য সাওম ভঙ্গ করার অনুমতি
  • ৬১/ গর্ভবতী এবং স্তন্য দানকারিণী মহিলা থেকে সাওমকে মুলতবী করা
  • ৬২/ আল্লাহ্‌র বাণীঃ وَعَلَى الَّذِينَ يُطِيقُونَهُ فِدْيَةٌ طَعَامُ مِسْكِينٍ এর তাফসীর
  • ৬৩/ ঋতুবতী মহিলার উপর থেকে সাওমকে মুলতবী করা
  • ৬৪/ রমযান মাসে ঋতুবতী মহিলা পবিত্র হলে বা মুসাফির (বাড়ীতে) ফিরে এলে তারা কি দিনের অবশিষ্ট সময় সাওম পালন করবে?
  • ৬৫/ রাত্রে সাওমের নিয়্যাত না করলে পরবর্তী দিনের নফল সাওম পালন হবে কি?
  • ৬৬/ সাওমের নিয়্যত এবং এ প্রসঙ্গে আয়শা সিদ্দিকা (রাঃ) সুত্রে বর্ণিত হাদীসে তালহা ইবন ইয়াহইয়া (রহঃ) থেকে বর্ণনার বিভিন্নতার উল্লেখ
  • ৬৭/ এ প্রসঙ্গে হাফসা (রাঃ) এর হাদীস বর্ণনাকারীদের মধ্যে বর্ণনা পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৬৮/ আল্লাহ্‌র নবী দাউদ (আঃ) এর সাওম
  • ৬৯/ নবী (ﷺ) এর সাওম, তাঁর উপর আমার মাতা পিতা উৎসর্গীত হোক
  • ৭০/ এ বিষয়ে আতা (রহঃ) বর্ণিত রেওয়ায়তে বর্ণনার ইখতিলাফ
  • ৭১/ সর্বদা সাওম পালন থেকে নিষেধ করা এ বিষয়ে মুতাররিফ ইবন আবদুল্লাহ থেকে বর্ণনায় রাবীদের ইখতিলাফ
  • ৭২/ এ হাদীসের বর্ণনায় গায়লান ইবন জারীর (রহঃ) থেকে বর্ণনাভেদের উল্লেখ
  • ৭৩/ সর্বদা সাওম পালন করা
  • ৭৪/ সারা বছরের দুই-তৃতীয়াংশকাল সাওম পালন করা এবং এ বিষয়ে রেওয়ায়ত বর্ণনায় বর্ণনাকারীদের ইখতিলাফের উল্লেখ
  • ৭৫/ একদিন সাওম পালন করা, এবং একদিন সাওম ভঙ্গ করা এবং এ প্রসঙ্গে আবদুল্লাহ ইবন আমর (রাঃ) এর হাদীস বর্ণনায় রাবীদের শব্দ বর্ণনার পার্থক্যের উল্লেখ
  • ৭৬/ সাওমে হ্রাস-বৃদ্ধি করা এবং এ বিষয়ে আবদুল্লাহ ইবন আমর (রাঃ) বর্ণিত হাদীসের বর্ণনাকারীদের বর্ণনা পার্থক্য এর উল্লেখ
  • ৭৭/ মাসে দশ দিন সাওম পালন করা এবং এ বিষয়ে আবদুল্লাহ ইবন আমর (রাঃ) এর হাদীস বর্ণনাকারীদের মধ্যে শব্দ বর্ণনায় পার্থক্য
  • ৭৮/ মাসের পাঁচ দিন সাওম পালন করা
  • ৭৯/ মাসে চার দিন সাওম পালন করা
  • ৮০/ মাসে তিন দিন সাওম পালন করা
  • ৮১/ মাসে তিন দিন সাওম পালন করা বিষয়ে আবু হুরায়রা (রাঃ) বর্ণিত হাদীসে আলী ইবন উসমান (রাঃ) থেকে বর্ণনার বিভিন্ন রূপ
  • ৮২/ প্রত্যেক মাসে তিন দিন সাওম কিভাবে পালন করবে এবং এ বিষয়ে রেওয়ায়ত বর্ণনাকারীদের বর্ণনার পার্থক্য
  • ৮৩/ মাসে তিন দিন সাওম পালন করা প্রসঙ্গে মূসা ইবন তালহা (রহঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের বর্ণনা পার্থক্য
  • ৮৪/ প্রতি মাসে দুই দিন সাওম পালন করা
  • ৫০/ এ হাদীসে মুয়াবিয়া ইবন সাল্লাম ও আলী ইবনুল মুবারক (রহঃ) এর বর্ণনার বিভিন্নতা
  • ২৩/ যাকাত (كتاب الزكاة) ১৮৪ টি | ২৪৩৭-২৬২০ পর্যন্ত 23/ The Book of Zakah
  • ১. যাকাত ফরয হওয়া
  • ২. যাকাত প্ৰদান না করার ব্যাপারে কঠোর সতর্কবাণী
  • ৩. যাকাত প্রদানে অস্বীকৃতি
  • ৪. যাকাত অস্বীকারকারীর শাস্তি
  • ৫. উটের যাকাত
  • ৬. উটের যাকাত অস্বীকারকারী প্রসঙ্গে
  • ৭. উটের যাকাত থেকে অব্যাহতি- যদি তা আরোহণ বা মাল বহণের জন্য হয়ে
  • ৮. গরুর যাকাত
  • ৯. গরুর যাকাত অস্বীকারকারী প্রসঙ্গে
  • ১০. ছাগলের যাকাত
  • ১১. ছাগলের যাকাত অস্বীকারকারী প্রসঙ্গে
  • ১২. বিচ্ছিন্ন জন্তুসমূহ একত্রিত এবং একত্ৰিত জন্তুসমূহ বিচ্ছিন্ন করা প্রসঙ্গে
  • ১৩. যাকাত দাতার জন্য ইমামের দোয়া করা
  • ১৪. যাকাত আদায়কারীর সীমালংঘন করা প্রসঙ্গে
  • ১৫. সম্পদের মালিকের যাকাত উসুলকারীকে নির্বাচনের সুযোগ না দিয়ে উত্তম মাল দান করা প্রসঙ্গে
  • ১৬. ঘোড়ার যাকাত
  • ১৭. গোলামের যাকাত
  • ১৮. রৌপ্যের যাকাত
  • ১৯. অলংকারের যাকাত
  • ২০. নিজ সম্পদের যাকাত অস্বীকারকারী প্রসঙ্গে
  • ২১. খেজুরের যাকাত
  • ২২. গমের যাকাত
  • ২৩. শস্য দানার যাকাত
  • ২৪. যাকাত ওয়াজিব হওয়ার জন্য সম্পদের পরিমাণ
  • ২৫. কোন কোন শস্যে উশর এবং কোন কোন শস্যে অর্ধ উশর ওয়াজিব হবে
  • ২৬. আনুমানিক পরিমাণ নির্ধারণকারী কি পরিমাণ ছেড়ে দেবে
  • ২৭. আল্লাহ তা’আলা বলেছেনঃ এবং উহার নিকৃষ্ট বস্তু ব্যয় করার সংকল্প করবে না। (বাকারাঃ ২৬৭)
  • ২৮. খনিজ দ্রব্যের যাকাত প্রসঙ্গে
  • ২৯. মধুর যাকাত
  • ৩০. রমযানের ফিতরা ওয়াজিব হওয়া প্রসঙ্গে
  • ৩১. গোলামদের উপর রমযানের ফিতরা ওয়াজিব
  • ৩২. ছোটদের উপর রমযানের ফিতরা ওয়াজিব হওয়া
  • ৩৩. ফিতরা শুধুমাত্র মুসলিমদের উপর ওয়াজিব, যিম্মিদের উপর নয়, এ প্রসঙ্গে
  • ৩৪. সাদাকায়ে ফিতর কি পরিমাণ ওয়াজিব?
  • ৩৫. যাকাতের বিধান অবতীর্ণ হওয়ার পূর্বেই সাদাকায়ে ফিতর ওয়াজিব হওয়া
  • ৩৬. সাদাকায়ে ফিতরের পরিমাণ
  • ৩৭. সাদাকায়ে ফিতরে খেজুর প্রদান প্রসঙ্গে
  • ৩৮. শুষ্ক আঙ্গুর (কিশমিশ)
  • ৩৯. আটা দ্বারা সাদাকায়ে ফিতর আদায় করা প্রসঙ্গে
  • ৪০. গম দ্বারা সাদাকায়ে ফিতর আদায় করা প্রসঙ্গে
  • ৪১. সুলত দ্বারা সাদাকায়ে ফিতর আদায় করা প্রসঙ্গে
  • ৪২. যব দ্বারা সাদাকায়ে ফিতর আদায় করা প্রসঙ্গে
  • ৪৩. পনির দ্বারা সাদাকায়ে ফিতর আদায় করা প্রসঙ্গে
  • ৪৪. সা' এর পরিমাণ কত?
  • ৪৫. সাদাকায়ে ফিতর আদায় করার উত্তম সময় প্রসঙ্গে
  • ৪৬. এক এলাকার সাদাকায়ে ফিতর অন্য এলাকায় নিয়ে যাওয়া
  • ৪৭. অজ্ঞাতসারে কোন স্বচ্ছল ব্যক্তিকে সাদাকায়ে ফিতর দিয়ে দেওয়া
  • ৪৮. খিয়ানতের মাল থেকে সাদাকা করা
  • ৪৯. স্বল্প সম্পদের অধিকারীর সাধ্যানুযায়ী দান প্রসঙ্গে
  • ৫০. উপরের হাত (দাতার হাত)
  • ৫১. উপরের হাত কোনটি?
  • ৫২. নিম্নের হাত (গ্রহীতার হাত)
  • ৫৩. নিজের প্রয়োজনের অতিরিক্ত জিনিস দান করা
  • ৫৪. উপরোক্ত হাদীসের ব্যাখ্যা
  • ৫৫. কেউ অভাবগ্ৰস্তু অবস্থায় দান করলে তা কি তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হবে?
  • ৫৬. গোলামের সাদাকা করা প্রসঙ্গে
  • ৫৭. স্বামীর ঘরের সম্পদ থেকে স্ত্রীর সাদাকা করা
  • ৫৮. স্বামীর অনুমতি ব্যতীত স্ত্রীর দান করা
  • ৫৯. সাদাকা করার ফযীলত
  • ৬০. সর্বোত্তম সাদাকা কোনটি?
  • ৬১. কৃপণের সাদাকা করা
  • ৬২. হিসাব করে সাদাকা করা প্রসঙ্গে
  • ৬৩. সামান্য দান করা
  • ৬৪. সাদাকা করার প্রতি উদ্বুদ্ধ করা
  • ৬৫. সাদাকা দেওয়ার জন্য সুপারিশ করা
  • ৬৬. সাদাকায় বীরত্ব প্রকাশ করা প্রসঙ্গে
  • ৬৭. মালিকের অনুমতিতে দান করলে রক্ষণাবেক্ষণকারীর সওয়াব প্রসঙ্গে
  • ৬৮. গোপনে দানকারী
  • ৬৯. দানকৃত বস্তুর খোঁটা (গঞ্জনা) দেওয়া
  • ৭০. ভিক্ষুককে ফেরত দেয়া
  • ৭১. সাওয়াল করা সত্ত্বেও না দেওয়া
  • ৭২. যে ব্যক্তি আল্লাহর নামে কিছু চায়
  • ৭৩. যে ব্যক্তি আল্লাহর ওয়াস্তে প্রশ্ন করে
  • ৭৪. আল্লাহ তা'আলার নামে যাচ্ঞা করার পরও না দেওয়া প্রসঙ্গে
  • ৭৫. দাতার সওয়াব প্রসঙ্গে
  • ৭৬. মিসকীনের ব্যাখ্যা
  • ৭৭. অহংকারী ফকীর
  • ৭৮. বিধবার জন্য উপাৰ্জনকারীর ফযীলত
  • ৭৯. হৃদয় আকৃষ্ট করার জন্য দান করা
  • ৮০. পাওনা আদায়ের যামিনদার ব্যাক্তিকে দান করা
  • ৮১. ইয়াতীমকে সাহায্য করা
  • ৮২. আত্মীয়-স্বজনকে দান করা
  • ৮৩. ভিক্ষা করা
  • ৮৪. নেককার লোকদের কাছে ভিক্ষা চাওয়া
  • ৮৫. ভিক্ষা থেকে দূরে থাকা
  • ৮৬. কারো কাছে কোন কিছু ভিক্ষা না চাওয়ার ফযীলত
  • ৮৭. স্বচ্ছলতার সীমা
  • ৮৮. সাহায্য চাইতে গিয়ে পীড়াপীড়ি করা
  • ৮৯. কে পীড়াপীড়িকারী?
  • ৯০. যার নিকট দিরহাম নেই কিন্তু তার সমপরিমাণ মূল্যের মাল আছে সে ব্যক্তি প্রসঙ্গে
  • ৯১. উপার্জনে সক্ষম ও সবল ব্যক্তির সাহায্য চাওয়া প্রসঙ্গে
  • ৯২. শাসনকর্তার নিকট সাহায্য চাওয়া
  • ৯৩. অত্যাবশ্যকীয় জিনিস চাওয়া প্রসঙ্গে
  • ৯৪. চাওয়া ব্যতীত আল্লাহ তা’আলা যাকে কোন ধন-সম্পদ দান করেন তার প্রসঙ্গে
  • ৯৫. নবী (ﷺ)এর বংশধরগণকে সাদাকা উসুল করার কাজে নিযুক্ত করা প্রসঙ্গে
  • ৯৬. ভাগিনেয় নিজ নিজ পরিবারের সদস্য হিসেবেই পরিগণিত
  • ৯৭. আযাদকৃত গোলাম নিজ নিজ পরিবারের সদস্য হিসেবে পরিগণিত
  • ৯৮. সাদাকা নবী (ﷺ) এর জন্য বৈধ নয়
  • ৯৯. সাদাক হস্তান্তর করা প্রসঙ্গে
  • ১০০. সাদাকা ক্রয় করা প্রসঙ্গে
  • ২৪/ হজ্জের নিয়ম পদ্ধতি (كتاب مناسك الحج) ৪৬৭ টি | ২৬২১-৩০৮৮ পর্যন্ত 24/ The Book of Hajj
  • ১. হজ্জ ফরয হওয়া
  • ২. উমরাহ ওয়াজিব হওয়া
  • ৩. হজ্জে মাবরূরের ফযীলত
  • ৪. হজ্জের ফযীলত
  • ৫. উমরার ফযীলত
  • ৬. হজ্জের পর উমরাহ এবং উমরাহর পর হজ্জ করার ফযীলত
  • ৭. হজ্জ মান্নতকারী মৃত ব্যক্তির পক্ষ থেকে হজ্জ করা
  • ৮. যে ব্যক্তি হজ্জ না করে মারা গেল তার পক্ষ থেকে হজ্জ আদায় করা
  • ৯. বাহনে স্থির থাকতে অসমর্থ জীবিত ব্যক্তির পক্ষ হতে হজ্জ করা
  • ১০. অসমৰ্থ ব্যক্তির পক্ষ হতে উমরাহ করা
  • ১১. ঋণ পরিশোধের সাথে হজ্জ আদায়ের উপমা
  • ১২. পুরুষের পক্ষ থেকে নারীর হজ্জ
  • ১৩. নারীর পক্ষ হতে পুরুষের হজ্জ
  • ১৪. কারাে পক্ষ হতে তার বড় ছেলের হজ্জ করা মুস্তাহাব
  • ১৫. শিশু সন্তান সহ হজ্জ করা
  • ১৬. নবী (ﷺ) এর মদীনা হতে হজ্জের জন্য বের হওয়ার সময়
  • ১৭. মদীনাবাসীদের মীকাত
  • ১৮. সিরিয়াবাসীদের মীকাত
  • ১৯. মিশরবাসীদের মীকাত
  • ২০. ইয়ামানবাসীদের মীকাত
  • ২১. নজদবাসীদের মীকাত
  • ২২. ইরাকীদের মীকাত
  • ২৩. যাদের পরিবার মীকাতের মধ্যে বসবাস করে
  • ২৪. যুল-হুলায়াফায় রাত্রিযাপন
  • ২৫. বায়দা
  • ২৬. ইহরাম বাঁধার জন্য গোসল করা
  • ২৭. মুহারিমের গোসল করা
  • ২৮. ইহরাম অবস্থায় যা'ফরান এবং ওয়ারস দ্বারা রঞ্জিত কাপড় ব্যবহার নিষিদ্ধ
  • ২৯. ইহরাম অবস্থায় জুব্বা পরিধান করা
  • ৩০. মুহরিম ব্যক্তির জন্য জামা পরিধান নিষিদ্ধ
  • ৩১. ইহরাম অবস্থায় পায়জামা পরা নিষিদ্ধ
  • ৩২. যে ব্যক্তি তহবন্দ না পায় তার জন্য পায়জামা পরিধানের অনুমতি
  • ৩৩. মুহরিম নারীর জন্য নেকাব পরিধান নিষিদ্ধ
  • ৩৪. ইহরামে বুরনুস পরা নিষিদ্ধ
  • ৩৫. ইহরাম অবস্থায় পাগড়ী পরা নিষেধ
  • ৩৬. ইহরাম অবস্থায় মোজা পরা নিষেধ
  • ৩৭. জুতা না থাকলে ইহরাম অবস্থায় মোজা পরার অনুমতি
  • ৩৮. গোড়ালীর নীচ পর্যন্ত মোজা কাটা
  • ৩৯. মুহরিম মহিলার জন্য হাত মোজা পরা
  • ৪০. ইহরামের সময় তালবীদ করা
  • ৪১. ইহরাম অবস্থায় সুগন্ধির বৈধতা
  • ৪২. সুগন্ধির স্থান
  • ৪৩. মুহরিমের জন্য যা'ফরান ব্যবহার
  • ৪৪. মুহরিমের জন্য খালুক ব্যবহার
  • ৪৫. মুহরিমের সুরমা ব্যবহার
  • ৪৬. মুহরিম ব্যক্তির রঙ্গীন কাপড় ব্যবহার করা মাকরূহ
  • ৪৭. মুহারিমের মাথা ও মুখমণ্ডল ঢেকে রাখা
  • ৪৮. হজ্জে ইফরাদ
  • ৪৯. হজ্জে কিরান
  • ৫০. হজ্জে তামাত্তু
  • ৫১. তালবিয়া পাঠের সময় বিসমিল্লাহ পরিত্যাগ করা
  • ৫২. মুহরিম ব্যক্তির নিয়্যত ব্যতীত হজ্জ আদায় করা
  • ৫৩. উমরার ইহরাম দ্বারা হজ্জ করা যায় কিনা
  • ৫৪. কিরূপে তালবিয়া পড়তে হয়?
  • ৫৫. উঁচু স্বরে তালবিয়া পড়া
  • ৫৬. তালবিয়ায় যা করা হয়
  • ৫৭. নিফাসগ্রস্তা মহিলার তালবিয়া পাঠ
  • ৫৮. উমরার তালবিয়া পাঠকারিণী যদি ঋতুবতী হয় এবং হজ্জ ফাউত হওয়ার আশংকা করে
  • ৫৯. হজ্জে শর্ত করা
  • ৬০. শর্ত করার সময় কি বলবে?
  • ৬১. যাকে হজ্জে বাধা দান করা হয়েছে অথচ সে শর্ত করেনি
  • ৬২. কুরবানীর পশুর ইশ'আর করা
  • ৬৩. পশুর কোনদিকে ইশ আর করা হবে?
  • ৬৪. উটের শরীর থেকে রক্ত মুছে ফেলা
  • ৬৫. কিলাদা পাকান
  • ৬৬. কিলাদা তৈরীর উপকরণ
  • ৬৭. কুরবানীর পশুকে কিলাদা পরান
  • ৬৮. উটকে কিলাদা পরান
  • ৬৯. বকবীকে কিলাদা পরান
  • ৭০. কুরবানীর জন্তুকে দু'টি জুতার কিলাদা পরান
  • ৭১. যখন কিলাদা পরায়, তখনই কি ইহরাম বঁধতে হয়?
  • ৭২. কুরবানীর জন্তুকে কিলাদা পরালে কি ইহরাম বাধা ওয়াজিব হয়?
  • ৭৩. কুরবানীর জন্তু হাঁকিয়ে নেওয়া
  • ৭৪. কুরবানীর উটে আরোহণ করা
  • ৭৫. যার চলতে কষ্ট হয়, তার জন্য কুরবানীর উটে আরোহণ
  • ৭৬. কুরবানীর জন্তুর উপর বিবেচনার সাথে আরোহণ করা
  • ৭৭. যে ব্যক্তি কুরবানীর জন্তু পাঠায়নি তার জন্য হজ্জের পরিবর্তে উমরাহ করা বৈধ
  • ৭৮. মুহরিম ব্যক্তির জন্য যে শিকার ভক্ষণ করা বৈধ
  • ৭৯. মুহরিমের জন্য যে শিকার আহার করা অবৈধ
  • ৮০. মুহরিম ব্যক্তির হাসি দেখে যদি কোন হালাল ব্যক্তি শিকারের সন্ধান পায় এবং তা হত্যা করে তাহলে সে তা আহার করবে কিনা?
  • ৮১. যখন মুহরিম ব্যক্তি শিকার দেখিয়ে দেয়, আর হালাল ব্যক্তি তা শিকার করে
  • ৮২. মুহরিম যে সকল জন্তু হত্যা করতে পারে, দংশনকারী কুকুর হত্যা করা, মারা
  • ৮৩. সাপ মারা
  • ৮৪. ইদুর মারা
  • ৮৫. গিরগিটি মারা
  • ৮৬. বিচ্ছু মারা
  • ৮৭. চিল মারা
  • ৮৮. কাক মারা
  • ৮৯. মুহরিম যে সকল প্রাণী হত্যা করত পারবে না
  • ৯০. মুহরিমের জন্য বিবাহের অনুমতি
  • ৯১. এ ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা
  • ৯২. মুহরিমের শিংগা লাগান
  • ৯৩. মুহরিম ব্যক্তি রোগের কারণে শিংগা লাগান
  • ৯৪. মুহরিমের পায়ের উপরিভাগে শিংগা লাগান
  • ৯৫. মুহরিমের মাথার মধ্যস্থলে শিঙ্গা লাগান
  • ৯৬. মুহরিমের মাথায় উকুন উপদ্রব করলে
  • ৯৭. মুহরিম মারা গেলে তাকে কুল পাতা দিয়ে গােসল দেয়া
  • ৯৮. মুহরিম ইনতিকাল করলে তাকে কতখানা কাপড়ে কাফন দেয়া হবে?
  • ৯৯. মুহরিম ব্যক্তি ইনতিকাল করলে তাঁর গায়ে সুগন্ধি লাগান নিষেধ
  • ১০০. মুহরিমের মাথা এবং চেহারা ঢাকার নিষেধাজ্ঞা
  • ১০১. মৃত মুহরিমের মাথা ঢাকা নিষেধ
  • ১০২. যে শত্রু কর্তৃক বাধাপ্রাপ্ত হয়
  • ১০৩. মক্কায় প্রবেশ করা
  • ১০৪. রাতে মক্কায় প্রবেশ করা
  • ১০৫. কোন স্থান থেকে মক্কায় প্রবেশ করবে?
  • ১০৬. পতাকা নিয়ে মক্কায় প্রবেশ
  • ১০৭. ইহরাম ব্যতীত মক্কায় প্রবেশ
  • ১০৮. নবী (ﷺ) এর মক্কায় প্রবেশের সময়
  • ১০৯. ইমামের সামনে দিয়ে হারামে কবিতা পাঠ করা ও হাঁটা-চলা করা
  • ১১০. মক্কার পবিত্ৰতা
  • ১১১. মক্কায় যুদ্ধবিগ্ৰহ হারাম
  • ১১২. হারামের পবিত্ৰতা
  • ১১৩. হারামে যে সকল প্রাণী মারা যায়
  • ১১৪. হারাম শরীফে সাপ মারা
  • ১১৫. টিকটিকি হত্যা
  • ১১৬. বিচ্ছু নিধন
  • ১১৭. হারামে ইঁদুর হত্যা
  • ১১৮. হারামে চিল হত্যা
  • ১১৯. হারামে কাক হত্যা
  • ১২০. হারামের শিকারকে ভয় দেখানো নিষেধ
  • ১২১. হাজীকে সম্বর্ধনা জানানো
  • ১২২. বায়তুল্লাহ, দর্শনকালে হস্তদ্বয় উত্তোলন না করা
  • ১২৩. বায়তুল্লাহ, দর্শনকালে দু'আ করা
  • ১২৪. মসজিদুল হারামে সালাত আদায় করার ফযীলত
  • ১২৫. কা'বা ঘরের পুনঃনির্মাণ
  • ১২৬. কা'বা ঘরে প্ৰবেশ করা
  • ১২৭. কা'বার ভিতর সালাতের স্থান
  • ১২৮. হিজর বা হাতীম
  • ১২৯. হিজারে সালাত আদায় করা
  • ১৩০. কা'বার চারপাশে তাকবীর বলা
  • ১৩১. কা'বা শরীফের ভিতরে যিকির এবং দু’আ করা
  • ১৩২. কা'বার পেছনের দিকের সামনের অংশের উপর মুখমণ্ডল ও বক্ষ রাখা
  • ১৩৩. কা'বায় সালাতের স্থান
  • ১৩৪. বায়তুল্লাহ্‌র তাওয়াফ করার ফযীলত
  • ১৩৫. তাওয়াফ করার সময় কথা বলা
  • ১৩৬. তাওয়াফে কথা বলার বৈধতা
  • ১৩৭. সকল সময় তাওয়াফ করার বৈধতা
  • ১৩৮. রুগ্ন ব্যক্তি কিরূপে তাওয়াফ করবে?
  • ১৩৯. নারীদের সাথে পুরুষের তাওয়াফ
  • ১৪০. সওয়ারীর উপর থেকে বায়তুল্লাহর তাওয়াফ
  • ১৪১. হজ্জে ইফরাদের তাওয়াফ
  • ১৪২. উমরার ইহরাম করে তাওয়াফ করা
  • ১৪৩. যে ব্যক্তি হজ্জ ও উমরাহর ইহরাম করেছে অথচ কুরবানীর পশু সাথে আনে নি
  • ১৪৪. হজ্জে কিরানের তাওয়াফ
  • ১৪৫. হাজরে আসওয়াদ প্রসংগে
  • ১৪৬. হাজরে আসওয়াদকে স্পর্শ করা
  • ১৪৭. হাজরে আসওয়াদের চুম্বন করা
  • ১৪৮. কিরূপে চুম্বন করবে?
  • ১৪৯. প্রথম এসেই কিরূপে তাওয়াফ করবে, আর হাজরে আসওয়াদকে চুম্বন করতে তার কোন্ দিক থেকে আরম্ভ করবে?
  • ১৫০. কতবার সাঈ করবে?
  • ১৫১. স্বাভাবিকভাবে কতবার হেঁটে তাওয়াফ করবে?
  • ১৫২. সাত বারের মধ্যে তিনবার রমল করা
  • ১৫৩. হজ্জ এবং উমরায় রমল করা বা দ্রুত চলা
  • ১৫৪. হাজরে আসওয়াদ হতে হাজরে আসওয়াদ পর্যন্ত রমল করা
  • ১৫৫. যে কারণে নবী (ﷺ) বায়তুল্লাহ এর সাঈ করেন
  • ১৫৬. প্রত্যেক তাওয়াফে উভয় রুকন স্পর্শ করা
  • ১৫৭. উভয় রুকনে ইয়ামানীর মসেহ করা
  • ১৫৮. অন্য দু' রুকনকে স্পর্শ না করা
  • ১৫৯. হাজরে আসওয়াদকে লাঠি দ্বারা স্পর্শ করা
  • ১৬০. হাজরে আসওয়াদের প্রতি ইঙ্গিত করা
  • ১৬১. আল্লাহ তা'আলার বাণীঃ (خُذُوا زِينَتَكُمْ عِنْدَ كُلِّ مَسْجِدٍ) 'প্রত্যেক সালাতের সময় সুন্দর পরিচ্ছদ পরিধান করবে।' (৭ঃ ৩১)
  • ১৬২. তাওয়াফের পর দু'রাকআত সালাত কোথায় আদায় করবে?
  • ১৬৩. তাওয়াফ শেষে দু'রাকআত সালাত আদায়ের পর কথা বলা
  • ১৬৪. তাওয়াফের পর দু' রাকআত সালাতের কিরাআত
  • ১৬৫. যমযমের পানি পান করা
  • ১৬৬. দাঁড়িয়ে যমযমের পানি পান করা
  • ১৬৭. যে দরজা দিয়ে লোকেরা বের হয়, সেই দরজা দিয়ে রাসূলুল্লাহ (ﷺ) বের হওয়া এর সাফার দিকে বের হওয়া
  • ১৬৮. সাফা ও মারওয়া
  • ১৬৯. সাফায় দাঁড়াবার স্থান
  • ১৭০. সাফা পাহাড়ে তাকবীর বলা
  • ১৭১. সাফা পাহাড়ে 'তাহলীল'
  • ১৭২. সাফার উপর যিকর এবং দুআ করা
  • ১৭৩. বাহনের উপর থেকে সাফা ও মারওয়ার তাওয়াফ করা
  • ১৭৪. সাফা ও মারওয়ার মধ্যে হেঁটে চলা
  • ১৭৫. সাফা ও মারওয়ার মধ্যস্থলে রমল করা
  • ১৭৬. সাফা ও মারওয়ার মধ্যে সাঈ করা
  • ১৭৭. বাতনে মাসীলে সাঈ করা
  • ১৭৮. হেঁটে চলার স্থান
  • ১৭৯. রমলের স্থান
  • ১৮০. মারওয়ার উপর অবস্থানের স্থান
  • ১৮১. সাফা ও মারওয়ার উপর তাকবীর বলা
  • ১৮২. কিরান ও তামাত্তু হজ্জকারী সাফা ও মারওয়ায় কতবার সাঈ করবে?
  • ১৮৩. উমরাহ আদায়কারী কোথায় চুল কাটবে?
  • ১৮৪. কিরূপে চুল কাটবে?
  • ১৮৫. যে হজ্জের ইহরাম বেঁধেছে এবং কুরবানীর পশু সাথে এনেছে, তার কী করণীয়
  • ১৮৬. যে ব্যক্তি উমরার ইহরাম বেঁধেছে এবং কুরবানীর পশু সঙ্গে এনেছে সে কি করবে?
  • ১৮৭. ইয়াওমুত তারবিয়া এর আগে খুতবা
  • ১৮৮. তামাত্তু হজ্জকারী ব্যক্তি হজ্জের ইহরাম কখন করবে?
  • ১৮৯. মিনা সম্বন্ধে যা উল্লেখ করা হয়েছে
  • ১৯০. তারবিয়ার দিন ইমাম সালাত কোথায় আদায় করবে?
  • ১৯১. মিনা হতে ভোরে আরাফার দিকে গমন করা
  • ১৯২. আরাফার দিকে যাওয়ার সময় তাকবীর পাঠ করা
  • ১৯৩. সে দিন তালবিয়া পাঠ করা
  • ১৯৪. আরাফার দিন সম্বন্ধে যা বলা হয়েছে
  • ১৯৫. আরাফার দিন রোযা রাখা নিষেধ
  • ১৯৬. আরাফার দিনে অপরাহ্নে দ্রুত বের হওয়া
  • ১৯৭. আরাফায় তালবিয়া
  • ১৯৮. সালাতের পূর্বে আরাফায় খুতবা প্রদান
  • ১৯৯. আরাফার দিনে উটের উপর থেকে খুতবা দেয়া
  • ২০০. আরাফায় খুতবা সংক্ষেপ করা
  • ২০১. আরাফায় জোহর ও আসরের সালাত একত্রে আদায় করা
  • ২০২. আরাফার ময়দানে দু‘আয় উভয় হাত উত্তোলন করা
  • ২০৩. আরাফায় অবস্থান করা ফরয
  • ২০৪. আরাফা হতে গম্ভীর সহকারে প্রত্যাবর্তনের আদেশ
  • ২০৫. আরাফা হতে সফর কিরূপে করতে হবে?
  • ২০৬. আরাফা ত্যাগের পর অবতরণ করা
  • ২০৭. মুযদালিফায় দুই সালাত একত্রে আদায় করা
  • ২০৮. মুযদালিফায় মহিলা এবং শিশুদেরকে আগে-ভাগে মনযিলে প্রেরণ করা
  • ২০৯. ভোরের পূর্বেই মুযদালিফা হতে নারীদের চলে যাওয়ার অনুমতি
  • ২১০. মুযদালিফায় ফজরের সালাতের সময়
  • ২১১. মুযদালিফায় যে ব্যক্তি ফজরের সালাত ইমামের সঙ্গে আদায় করতে পারেনি
  • ২১২. মুযদালিফায় তালবিয়া
  • ২১৩. মুযদালিফা হতে প্রস্থানের সময়
  • ২১৪. দুর্বলদের জন্য কুরবানীর দিন ফজরের সালাত মিনায় পড়ার অনুমতি
  • ২১৫. মুহাসির নামক উপত্যকায় উটকে দ্রুত চালান
  • ২১৬. মুযদালিফা থেকে মিনার জামরার দিকে যাওয়ার সময় পথে তালবিয়া পড়া
  • ২১৭. কংকর তুলে নেওয়া
  • ২১৮. কংকর কোথা থেকে কুড়াবে?
  • ২১৯. নিক্ষেপের জন্য যে কংকর নিবে তার পরিমাণ
  • ২২০. জিমারের দিকে সওয়ার হয়ে গমন করা, আর মুহরিমের ছায়া গ্রহণ
  • ২২১. কুরবানীর দিন জামরা-ই-আকাবায় কংকর নিক্ষেপের সময়
  • ২২২. সূর্যোদয়ের আগে কংকর নিক্ষেপের প্রতি নিষেধাজ্ঞা
  • ২২৩. মহিলাদের জন্য এ বিষয়ে অনুমতি
  • ২২৪. সন্ধ্যার পর কংকর নিক্ষেপ
  • ২২৫. রাখালদের কংকর নিক্ষেপ
  • ২২৬. যে স্থান থেকে জামরাতুল আকাবায় কংকর নিক্ষেপ করা হয়
  • ২২৭. জামরায় নিক্ষেপের কংকরের সংখ্যা
  • ২২৮. প্রত্যেকটি কংকর নিক্ষেপের সময় তাকবীর বলা
  • ২২৯. আকাবায় কংকর নিক্ষেপের পর মুহরিমের তালবিয়া পাঠ বন্ধ করে দেয়া
  • ২৩০. কংকর নিক্ষেপের পর দু'আ
  • ২৩১. অনুচ্ছেদ ও কংকর নিক্ষেপের পর মুহরিমের জন্য যা হালাল হয়
  • ২৫/ জিহাদ (كتاب الجهاد) ১১০ টি | ৩০৮৯-৩১৯৮ পর্যন্ত 25/ The Book of Jihad
  • ১. জিহাদ ওয়াজিব হওয়া
  • ২. জিহাদ পরিত্যাগের প্রতি সতর্কবাণী
  • ৩. যুদ্ধে শরীক না হওয়ার ব্যাপারে অনুমতি
  • ৪. যারা ঘরে বসে থাকে (সঙ্গত কারণ না থাকা সত্ত্বেও জিহাদ থেকে বিরত থাকে) তাদের উপর যারা জিহাদে অংশ গ্রহণ করে তাদের ফযীলত
  • ৫. যার পিতামাতা জীবিত, তার জন্য জিহাদে না যাওয়ার অনুমতি
  • ৬. যার মাতা জীবিত, তার জন্য জিহাদে শরীক না হওয়ার অনুমতি
  • ৭. আল্লাহর পথে জান-মাল দিয়ে জিহাদকারীর ফযীলত
  • ৮. যে পায়ে হেঁটে আল্লাহর রাস্তায় জিহাদ করে-তার ফযীলত
  • ৯. যে ব্যক্তি তার উভয় পা আল্লাহর রাস্তায় ধূলো ধূসরিত করে তার সওয়াব
  • ১০. যে চক্ষু আল্লাহর রাস্তায় জাগ্রত থাকে তার সওয়াব
  • ১১. আল্লাহর রাস্তায় এক সকালে বের হওয়ার ফযীলত
  • ১২. আল্লাহর রাস্তায় এক বিকেলে বের হওয়ার ফযীলত
  • ১৩. যোদ্ধারা আল্লাহ তা'আলার প্রতিনিধি
  • ১৪. আল্লাহর রাস্তায় জিহাদকারীর জন্য আল্লাহ যে জিনিসের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন
  • ১৫. গনীমতের মাল হতে মাহরূমদের পুণ্য
  • ১৬. আল্লাহর রাস্তায় জিহাদকারীর উপমা
  • ১৭. যা আল্লাহর রাস্তায় জিহাদের সমতুল্য
  • ১৮. আল্লাহর রাস্তায় জিহাদকারীর মর্যাদা
  • ১৯. যে মুসলিম হয়েছে, হিজরত করেছে এবং জিহাদ করেছে-তার ফযীলত
  • ২০. যে ব্যক্তি আল্লাহর রাস্তায় জোড়া-জোড়া দান করে-তার ফযীলত
  • ২১. যে আল্লাহর কলেমাকে সমুন্নত করার জন্য লড়াই করে
  • ২২. যে ব্যক্তি বীর উপাধি অর্জনের জন্য যুদ্ধ করে
  • ২৩. যে ব্যক্তি আল্লাহর পথে যুদ্ধ করে এবং সে উটের রশি ব্যতীত আর কিছুর নিয়্যত না করে
  • ২৪. যে ব্যক্তি সুনাম ও সম্পদের জন্য যুদ্ধ করে
  • ২৫. যে ব্যক্তি উটের একবার দুধ দোহন করার পর দ্বিতীয়বার দুধ দোহনের অবকাশের সময় পর্যন্ত আল্লাহু রাস্তায় যুদ্ধ করে
  • ২৬. যে ব্যক্তি আল্লাহর রাস্তায় তীর নিক্ষেপ করে- তার সওয়াব
  • ২৭. আল্লাহর রাস্তায় যুদ্ধ করতে গিয়ে যারা আহত হয়
  • ২৮. যাকে শত্রু আঘাত করে, সে কি বলবে
  • ২৯. যুদ্ধ ক্ষেত্রে ভুলবশত নিজের তলোয়ারের আঘাতে শহীদ হলে
  • ৩০. আল্লাহর রাস্তায় শহীদ হওয়ার আকাঙ্ক্ষা করা
  • ৩১. আল্লাহর রাস্তায় শহীদ হওয়ার সওয়াব
  • ৩২. ঋণগ্রস্ত ব্যক্তির যুদ্ধে যোগদান
  • ৩৩. আল্লাহর রাস্তায় যা কামনা করবে
  • ৩৪. জান্নাতীগণ যা কামনা করবেন
  • ৩৫. শহীদের কষ্টানুভব
  • ৩৬. শাহাদাত কামনা করা
  • ৩৭. আল্লাহর রাস্তায় হত্যাকারী ও নিহত ব্যক্তির জান্নাতে একত্রিত হওয়া
  • ৩৮. হত্যাকারী ও নিহত ব্যক্তির জান্নাতে একত্রিত হওয়া এর ব্যাখ্যা
  • ৩৯. রাষ্ট্রের সীমানা পাহারা দেয়ার ফযীলত
  • ৪০. সমুদ্র-জিহাদের ফযীলত
  • ৪১. হিন্দুস্থানের জিহাদ
  • ৪২. তুরস্ক ও হাবশার যুদ্ধ
  • ৪৩. দুর্বলের সাহায্য গ্রহণ
  • ৪৪. যে ব্যক্তি যোদ্ধার জন্য সামান দান করে
  • ৪৫. আল্লাহর রাস্তায় ব্যয় করা
  • ৪৬. আল্লাহর রাস্তায় সাদকার ফযীলত
  • ৪৭. মুজাহিদের স্ত্রীদের মর্যাদা
  • ৪৮. যে ব্যক্তি গাযীর পরিবারে খিয়ানত করে
  • ২৬/ নিকাহ (বিবাহ)(كتاب النكاح) ১৯৩ টি | ৩১৯৯-৩৩৯১ পর্যন্ত 26/ The Book of Marriage
  • ১. রাসূলুল্লাহ্ (ﷺ) এর বিবাহ সম্পৰ্কীয় এবং তার সহধর্মিণীগণ। আল্লাহ তাআলা তাঁর নবী (ﷺ) এর জন্য যা হালাল করেছেন কিন্তু সৃষ্টির জন্য তা হারাম করেছেন, রাসূলুল্লাহ (ﷺ) এর অত্যধিক সম্মান ও ফযীলতের লক্ষ্যে
  • ২. আল্লাহ তা'আলা তাঁর রাসূলের উপর যা ফরয করেছেন এবং অন্যদের জন্য যা হারাম করেছেন- আল্লাহর নৈকট্য বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে
  • ৩. বিবাহের প্রতি উদ্বুদ্ধ করা
  • ৪. চির কৌমার্যের নিষিদ্ধতা
  • ৫. যে বিবাহিত ব্যক্তি ব্যভিচার হতে রক্ষা পেতে চায়, তার প্রতি আল্লাহর সাহায্য
  • ৬. কুমারীর বিবাহ
  • ৭. সম-বয়সীকে বিবাহ করা
  • ৮. মালিকের সাথে বিবাহ
  • ৯. বংশ মর্যাদা
  • ১০. যা দেখে মহিলাকে বিবাহ করবে
  • ১১. বন্ধ্যা নারীকে বিবাহ করা অনুচিত
  • ১২. ব্যভিচারিণীকে বিবাহ করা
  • ১৩. ব্যভিচারীদের বিবাহ করা উচিত নয়
  • ১৪. কোন মহিলা উত্তম
  • ১৫. পুণ্যবতী রমণী
  • ১৬. আত্মমর্যাদাবোধ সম্পন্ন মহিলা
  • ১৭. বিবাহের পূর্বে দর্শন
  • ১৮. শাওয়াল মাসে বিবাহ
  • ১৯. বিবাহের পয়গাম
  • ২০. এক ব্যক্তির বিবাহের প্রস্তাবে অন্য ব্যক্তির প্রস্তাব নিষিদ্ধ
  • ২১. প্রস্তাব ছেড়ে দিলে অথবা অনুমতি দিলে অন্যজনের প্রস্তাব দেয়া সম্পর্কে
  • ২২. যখন কোন রমণী বিবাহ পয়গাম সম্বন্ধে পুরুষের নিকট পরামর্শ চায়
  • ২৩. কোন নারী সম্বন্ধে কোন ব্যক্তি অন্য ব্যক্তির নিকট পরামর্শ কামনা করলে, সে যা জানে তা বলবে কি?
  • ২৪. কোন ব্যক্তির স্বীয় কন্যাকে পছন্দনীয় ব্যক্তির কাছে বিবাহ দেয়ার প্রস্তাব করা
  • ২৫. কোন মহিলার পছন্দনীয় ব্যক্তির নিকট নিজেকে পেশ করা
  • ২৬. বিবাহ প্ৰস্তাবে মহিলার সালাত আদায় এবং এ ব্যাপারে ইস্তিখারা করা
  • ২৭. ইস্তিখারা কিভাবে করতে হবে?
  • ২৮. পুত্র কর্তৃক নিজের মাতাকে বিবাহ দেওয়া
  • ২৯. ছোট (অপ্রাপ্ত বয়স্কা) কন্যার বিবাহ দান
  • ৩০. বয়স্ক কন্যার বিবাহ দেয়া
  • ৩১. কুমারীর বিবাহে তার অনুমতি চাওয়া
  • ৩২. কুমারী মেয়ের নিকট পিতার অনুমতি চাওয়া
  • ৩৩. বিবাহিতা নারীর অনুমতি গ্ৰহণ
  • ৩৪. বিবাহে কুমারীর অনুমতি নেয়া
  • ৩৫. বিবাহিতা নারীর অনিচ্ছা সত্ত্বেও তার পিতা কর্তৃক তার বিবাহ প্ৰদান
  • ৩৬. কুমারী নারীর অনিচ্ছা সত্ত্বেও তার পিতা কর্তৃক বিবাহ প্ৰদান
  • ৩৭. মুহরিম ব্যক্তির বিবাহের অনুমতি
  • ৩৮. মুহরিমের বিবাহের ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা
  • ৩৯. বিবাহে যা বলা মুস্তাহাব
  • ৪০. খুৎবায় যা মাকরূহ
  • ৪১. যে কথা দ্বারা বিবাহ অনুষ্ঠিত হয়
  • ৪২. বিবাহের শর্ত
  • ৪৩. তিন তালাকপ্ৰাপ্ত মহিলা, তালাক দাতার জন্য যে বিবাহ দ্বারা হালাল হয়
  • ৪৪. ক্ৰোড়ে পালিত কন্যা হারাম হওয়া
  • ৪৫. মা ও কন্যাকে একত্রে বিবাহ করা হারাম
  • ৪৬. দুই বোনকে একত্রে বিবাহ করা হারাম
  • ৪৭. কোন নারী এবং তার ফুফুকে একত্রে বিবাহ করা প্রসংগে
  • ৪৮. কোন নারী এবং তার খালাকে একত্রে বিবাহ করা হারাম
  • ৪৯. রিযাআত বা দুধ পানের সম্পর্কের কারণে যারা হারাম
  • ৫০. দুধ ভাই-এর কন্যা হারাম হওয়া
  • ৫১. কতটুকু দুধ পান করলে বিবাহ হারাম হবে
  • ৫২. মহিলার দুধ পান করানো দ্বারা পুরুষের সাথেও সম্পর্ক স্থাপিত হয়
  • ৫৩. বয়স্কদের দুধ পান করানো সম্পর্কে
  • ৫৪. স্তন্যদানকারিণী স্ত্রীর সাথে সহবাস সম্পর্কে
  • ৫৫. আযল করা
  • ৫৬. স্তন্যদানের অধিকার ও এর সম্মান
  • ৫৭. স্তন্যদানের সাক্ষ্য
  • ৫৮. পিতার বিবাহিতাকে বিবাহ করা
  • ৫৯. আল্লাহ্‌র বাণীঃ (وَالْمُحْصَنَاتُ مِنْ النِّسَاءِ)-এ আয়াতের ব্যাখ্যা
  • ৬০. শিগার
  • ৬১. শিগার শব্দের ব্যাখ্যা
  • ৬২. কুরআনের সূরা শিখানোর উপর বিবাহ দেয়া
  • ৬৩. ইসলাম গ্রহণের উপর বিবাহ করা
  • ৬৪. দাসত্ব মুক্তির উপর বিবাহ করা
  • ৬৫. দাসীকে মুক্ত করে বিবাহ করা
  • ৬৬. মাহরের ব্যাপারে ইনসাফ করা
  • ৬৭. দানা পরিমাণ স্বর্ণের বিনিময়ে বিবাহ
  • ৬৮. মাহর ব্যতীত বিবাহ
  • ৬৯. মাহর ব্যতীত কোন মহিলার নিজকে কোন পুরুষকে দান
  • ৭০. গুপ্তাঙ্গ হালাল করা
  • ৭১. মুত'আ হারাম হওয়া সম্পর্কে
  • ৭২. আওয়াজ করে এবং দফ বাজিয়ে বিবাহের প্রচার করা
  • ৭৩. বিবাহের পর দু’আ করা
  • ৭৪. যে ব্যক্তি বিবাহে উপস্থিত হয়নি, তার দু'আ
  • ৭৫. বিবাহে হলুদ রংয়ের অনুমতি
  • ৭৬. নির্জন বাসের বখশিশ
  • ৭৭. শাওয়াল মাসে রোখাছতী
  • ৭৮. নয় বছর বয়সে স্বামীসঙ্গ
  • ৭৯. সফরে সহবাস
  • ৮০. বিবাহে গান ও আমোদ-ফুর্তি করা
  • ৮১. কন্যাকে গৃহাস্থালীর আসবাবপত্র (জাহীয) দেয়া
  • ৮২. বিছানা
  • ৮৩. গালিচা
  • ৮৪. বাসর ঘরে হাদিয়া
  • ২৭/ তালাক (كتاب الطلاق) ১৭০ টি | ৩৩৯২-৩৫৬১ পর্যন্ত 27/ The Book of Divorce
  • ১. তালাকের সময় সম্পর্কে
  • ২. সুন্নত তালাক
  • ৩. হায়েয অবস্থায় এক তালাক দিলে এর হুকুম কি?
  • ৪. ইদ্দত ব্যতীত তালাক
  • ৫. ইদ্দত ব্যতীত তালাক দিলে এর হুকুম কি?
  • ৬. একত্রে তিন তালাক
  • ৭. এতে অনুমতি
  • ৮. স্বামী-স্ত্রীর সংগত হওয়ার পূর্বে বিভিন্ন সময়ে তিন তালাক দিলে
  • ৯. সংগত হওয়ার পূর্বে তালাক
  • ১০. নিশ্চিত তালাক
  • ১১. “তোমার ব্যাপার তোমার হাতে” বলে তালাক দেয়া
  • ১২. তিন তালাক প্রাপ্তাকে হালাল করা প্রসংগে
  • ১৩. তিন তালাকপ্রাপ্ত নারীকে হালাল করা
  • ১৪. স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে সামনা-সামনি তালাক দেওয়া
  • ১৫. স্ত্রীর নিকট পুরুষের তালাক পাঠান
  • ১৬. (يَا أَيُّهَا النَّبِيُّ لِمَ تُحَرِّمُ مَا أَحَلَّ اللَّهُ لَكَ) উক্ত আয়াতের তাফসীর।
  • ১৭. এই আয়াতের অন্য ব্যাখ্যা
  • ১৮. (الْحَقِي بِأَهْلِكِ) অর্থাৎ কেউ যদি তার স্ত্রীকে বলেঃ 'তুমি তোমার পরিবারের লোকদের সাথে মিলিত হও', আর এরূপ বলাতে সে তালাকের ইচ্ছা করে না
  • ১৯. ক্রীতদাসের তালাক
  • ২০. নাবালেগের তালাক
  • ২১. যার তালাক কার্যকর হবে না
  • ২২. মনে মনে তালাক দেওয়া
  • ২৩. ইঙ্গিতে তালাক
  • ২৪. কথা বলে, তার একটি অর্থ উদ্দেশ্য করা
  • ২৫. কোন কথা বলে, এর বাহ্যিক অর্থ না নেয়া
  • ২৬. মত প্রকাশের জন্য সময় দেয়া
  • ২৭. যে ইখতিয়ার প্রাপ্তা স্বামীকে গ্ৰহণ করে
  • ২৯. দাসীর ইখতিয়ার
  • ৩০. যে দাসী আযাদ হলো এবং তার স্বামী আগে থেকেই আযাদ তার ইখতিয়ার প্রসংগে
  • ৩১. যে দাসী আযাদ হয়েছে এবং তার স্বামী দাস, তার ইখতিয়ার সম্পর্কে
  • ৩২. ঈলা
  • ৩৩. যিহার
  • ৩৪. খুলা
  • ৩৫. লি'আন প্ৰথা আরম্ভ হওয়া সম্পর্কে
  • ৩৬. গর্ভাবস্থায় লি'আন করা
  • ৩৭. ব্যভিচারে স্ত্রীর সাথে যদি নির্দিষ্ট কোন পুরুষ জড়িত থাকে এ ব্যাপারে লি'আন
  • ৩৮. লি'আনের নিয়ম
  • ৩৯. ইমামের আল্লাহুম্মা বাইয়্যন বলা
  • ৪০. লি'আনকারীদের মুখে পঞ্চমবারে হাত রাখার আদেশ
  • ৪১. লি'আন করানোর সময় নসীহত করা
  • ৪২. লি'আনকারীদের মধ্যে পৃথকীকরণ
  • ৪৩. লি'আনের পর তওবা করতে বলা
  • ৪৪. লি’আনকারীদের একত্র হওয়া
  • ৪৫. লি'আনের কারণে পিতার সন্তান না পাওয়া
  • ৪৬. সন্তানের কারণে ইঙ্গিতে যিানার অপবাদ দেয়া
  • ৪৭. সন্তান অস্বীকারকারীর উপর কঠোরতা
  • ৪৮. স্বামী অস্বীকার না করলে সন্তান তারই হবে
  • ৪৯. বাঁদীর বিছানা বা ফিরাশ হওয়া
  • ৫০. সন্তান নিয়ে বিবাদ হলে, লটারীর ব্যবস্থা করা
  • ৫১. কিয়াফা অবগত ব্যক্তি
  • ৫২. স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কেউ মুসলিম হলে
  • ৫৩. খুলা কারিণীর ইদ্দত
  • ৫৪. তালাকপ্রাপ্তাদের মধ্য থেকে যার ইদ্দত পালন থেকে বাদ
  • ৫৫. স্বামী মারা গেলে স্ত্রীর ইদ্দত সম্পর্কে
  • ৫৬. গর্ভবতী মহিলার স্বামী মারা গেলে তার ইদ্দত
  • ৫৭. যে মহিলার স্বামী তার সাথে সহবাসের পূর্বে মারা যায়, তার ইদ্দত
  • ৫৮. শোক করা
  • ৫৯. যে আহলে কিতাব মহিলার স্বামী মারা গেছে, তার শোক
  • ৬০. যে স্ত্রীলোকের স্বামী মারা গেছে, তার উচিত-ইদ্দত শেষ না হওয়া পর্যন্ত নিজ ঘরে থাকা
  • ৬১. যে স্ত্রীলোকের স্বামী মারা যায়, সে যেখানে চায়, সেখানে থেকে ইদ্দত পালনের অনুমতি
  • ৬২. স্বামীর মৃত্যু সংবাদ প্রাপ্তির দিন হতে ইদ্দত পালন
  • ৬৩. মুসলিম নারীর স্বামীর শোকপালনে সাজসজ্জা ত্যাগ করা
  • ৬৪. শোককারীণীর রঙ্গিন কাপড় পরিহার করা
  • ৬৫. শোককারীণীর খিযাব ব্যবহার
  • ৬৬. শোককারীণীর জন্য কুলপাতার পানিতে মাথা ধোয়ার অনুমতি
  • ৬৭. সুরমা ব্যবহারের নিষেধাজ্ঞা
  • ৬৮. শোক পালনকারীণীর কুসত এবং আযফার ব্যবহার করা
  • ৬৯. মীরাছ ফরয হওয়ায় এক বছরের খরচ রহিত
  • ৭০. তালাকপ্রাপ্তা নারীর জন্য ইদ্দতের সময় তার ঘর থেকে বের হওয়ার অনুমতি
  • ৭১. যে স্ত্রীলোকের স্বামী মারা গেছে, দিনের বেলায় তার বের হওয়া
  • ৭২. বায়িন তালাকা প্ৰাপ্তার খোরপোষ
  • ৭৩. বায়িন তালাকপ্ৰাপ্তা গর্ভবতী মহিলার খোরপোষ
  • ৭৪. আকরা সম্পর্কে
  • ৭৫. তিন তালাকের পর ফিরে আসার বিধান রহিত হওয়া সম্পর্কে
  • ৭৬. রজ’আত করা
  • ২৮/ ঘোড়া (كتاب الخيل) ৩৩ টি | ৩৫৬২-৩৫৯৪ পর্যন্ত 28/ The Book of Horses, Races and Shooting
  • ১. ঘোড়ার ললাটে কল্যাণ সংযুক্ত
  • ২. ঘোড়ার প্রতি ভালবাসা
  • ৩. কোন বর্ণের ঘোড়া উত্তম?
  • ৪. যে ঘোড়ার তিন পা সাদা ও এক পা শরীরের বর্ণের
  • ৫. ঘোড়ার অশুভ হওয়া প্রসঙ্গ
  • ৬. ঘোড়ার বরকতের বর্ণনা
  • ৭. ঘোড়ার ললাটের চুল বানিয়ে দেওয়া
  • ৮. ঘোড়াকে যুদ্ধ কৌশল শিক্ষা দেয়া
  • ৯. ঘোড়ার দু'আ
  • ১০. গাধাকে ঘোড়ার উপর চড়ানোর ব্যাপারে কঠোর আপত্তি
  • ১১. ঘোড়াকে ঘাস ও দানাপানি খাওয়ানো
  • ১২. যে ঘোড়ার ইযমার করা হয়নি, সে ঘোড়র দৌড়ের শেষ প্রান্ত
  • ১৩. প্রতিযোগিতার জন্য ঘোড়াকে ইযমার করা
  • ১৪. প্রতিযোগিতা
  • ১৫. জালাব প্রসঙ্গে
  • ১৬. জানাব সম্পর্কে
  • ১৭. (গনীমতে) ঘোড়ার অংশ
  • ২৯/ ওয়াক্‌ফ (كتاب الأحباس) ১৭ টি | ৩৫৯৫-৩৬১১ পর্যন্ত 29/ The Book of Endowments
  • ১. আল্লাহ্‌র রাস্তায় নিজের মাল দান করা
  • ২. ওয়াকফ লেখার নিয়ম এবং এ প্রসঙ্গে ইবন উমর (রাঃ) হতে বর্ণিত হাদীসে ইবন আওনের বর্ণনায় বিরোধ
  • ৩. বণ্টনের পূর্বে শরীকী জমি ওয়াকফ করা
  • ৪. মসজিদের জন্য ওয়াকফ করা
  • ৩০/ ওয়াসিয়াত (كتاب الوصايا) ৬১ টি | ৩৬১২-৩৬৭২ পর্যন্ত 30/ The Book of Wills
  • ১. ওয়াসিয়াতে দেরী করা মাকরূহ
  • ২. নবী (ﷺ) ওয়াসিয়াত করেছিলেন কি?
  • ৩. সম্পদের এক-তৃতীয়াংশ ওয়াসিয়াত করা প্রসঙ্গে
  • ৪. মীরাসের পূর্বে করয পরিশোধ করা এবং এ বিষয়ে জাবির (রাঃ)-এর হাদীস বর্ণনাকারীদের মধ্যে বর্ণনা বিরোধ
  • ৫. ওয়ারিসের জন্য ওয়াসিয়াত করা বাতিল
  • ৬. নিকটাত্মীয়ের জন্য ওয়াসিয়াত
  • ৭. হঠাৎ মৃত্যু হলে মৃতের পক্ষ হতে তার পরিবারের সাদাকা করা কি মুস্তাহাব?
  • ৮. মৃতের পক্ষ হতে সাদাকার ফযীলত
  • ৯. সুফিয়ানের বর্ণনায় বর্ণনা বিরোধ
  • ১০. ইয়াতীমের মালের অভিভাবক হওয়ার নিষেধাজ্ঞা
  • ১১. ইয়াতীমের মালের দায়িত্ব পালনকালে কি সুযোগ গ্রহণ করবে
  • ১২. ইয়াতীমের মাল খাওয়া থেকে বিরত থাকা
  • ৩১/ বিশেষ দান (كتاب النحل) ১৬ টি | ৩৬৭৩-৩৬৮৮ পর্যন্ত 31/ The Book of Presents
  • ১. 'নাহল' সম্পর্কিত নুমান ইবন বশীর (রাঃ)-এর হাদীসের বর্ণনায় বিরোধ
  • ৩২/ হিবা (كتاب الهبة) ১৮ টি | ৩৬৮৯-৩৭০৬ পর্যন্ত 32/ The Book of Gifts
  • ১. শরীকী বস্তু হিবা করা
  • ২. পিতা কর্তৃক সন্তানকে দান করে তা ফেরত নেয়া এবং এ বিষয়ের হাদীসে বর্ণনাকারীদের বিরোধ
  • ৩. এ বিষয়ে আবদুল্লাহ ইবন আব্বাস (রাঃ)-এর হাদীসে বর্ণনায় বিরোধ
  • ৪. দানকরে পুনঃগ্রহণকারী সম্পর্কে তাউস (রহঃ)-এর হাদীসে বর্ণনায় বিরোধ
  • ৩৩/ রুকবা (كتاب الرقبى) ১৪ টি | ৩৭০৭-৩৭২০ পর্যন্ত 33/ The Book of ar-Ruqba
  • ১. এ প্রসঙ্গে যায়দ ইবন সাবিত (রাঃ) থেকে বর্ণিত হাদীসে আলী ইবন আবু নাজীহ্ (রহঃ)-এর বর্ণনায় বর্ণনা বিরোধ।
  • ২. আবু যুবায়র (রহঃ)-এর বর্ণনায় বর্ণনা বিরোধ
  • ৩৪/ উমরারূপে দান করা (كتاب العمرى) ৪১ টি | ৩৭২১-৩৭৬১ পর্যন্ত 34/ The Book of 'Umra
  • পরিচ্ছেদ নাই
  • ১. উমরার ব্যাপারে জাবির (রাঃ)-এর রিওয়ায়াতে রাবীদের বর্ণনায় বিরোধ
  • ২. এ বিষয়ে যুহরী হতে বর্ণনাকারীদের বর্ণনায় বিরোধ
  • ৩. এ বিষয়ে আবু সালমা (রহঃ)-এর হাদীসে ইয়াহয়া ইবন আবু কাসীর (রহঃ) ও মুহাম্মাদ ইবন আমর (রহঃ)-এর বর্ণনা বিরোধ।
  • ৪. স্বামীর বিনা অনুমতিতে স্ত্রীর দান
  • ৩৫/ মানত ও কসম (كتاب الأيمان والنذور) ৯৭ টি | ৩৭৬২-৩৮৫৮ পর্যন্ত 35/ The Book of Oaths and Vows
  • পরিচ্ছেদ নাই
  • ১. مُصَرِّفِ الْقُلُوبِ (যিনি অন্তরসমূহকে ঘুরিয়ে দেন) শব্দ দ্বারা শপথ
  • ২. عِزَّة اللَّهِ (আল্লাহ্‌ পরাক্রম) শব্দ দ্বারা শপথ
  • ৩. আল্লাহ ব্যতীত অন্যের কসম করার উপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা
  • ৪. বাপ-দাদার নামে শপথ করা
  • ৫. মা-দাদীর নামে শপথ করা
  • ৬. ইসলাম ব্যতীত অন্য ধর্মের শপথ করা
  • ৭. ইসলাম হতে বের হয়ে যাওয়ার শপথ
  • ৮. কাবার কসম করা
  • ৯. তাগূত বা দেব-দেবীর শপথ
  • ১০. লাতের শপথ করা
  • ১১. লাত ও উযর শপথ
  • ১২. শপথ পূর্ণ করা
  • ১৩. শপথ করার বিপরীত বিষয়কে উত্তম দেখলে কি করবে
  • ১৪. শপথ ভঙ্গের পূর্বেই কাফফারা দেয়া
  • ১৫. কসম ভাঙ্গার পর কাফফারা আদায় করা
  • ১৬. যার মালিক নয়, এমন কোন জিনিসের শপথ করা
  • ১৭. শপথ করে ইনশাআল্লাহ বলা
  • ১৮. কসমের নিয়্যত করা
  • ১৯. আল্লাহ যা হালাল করেছেন, তা হারাম করা
  • ২০. রুটির সাথে তরকারি না খাওয়ার কসম করে সিরকা দিয়ে খেলে
  • ২১. এমন ব্যক্তির শপথ ও মিথ্যাকথন, যে অন্তরে তাকে শপথ ও মিথ্যাকথন মনে করে না
  • ২২. মিথ্যা ও অপ্রয়োজনীয় কথা
  • ২৩. মান্নত করার নিষেধাজ্ঞা
  • ২৪. মান্নত কোন কিছুকে ত্বরান্বিত বা বিলম্বিত করতে পারে না
  • ২৫. মান্নত দ্বারা কৃপণ হতে কিছু মাল বের হয় মাত্র
  • ২৬. ‘ইবাদত-আনুগত্যের কাজে মান্নত করা
  • ২৭. গুনাহের মান্নত করা
  • ২৮. মান্নত পূর্ণ করা
  • ২৯. যে মান্নতে আল্লাহর সন্তুষ্টি কামনা করা হয় না
  • ৩০. যে বস্তুতে মালিকানা নেই, তার মান্নত করা
  • ৩১. যে ব্যক্তি পায়ে হেঁটে আল্লাহর ঘরে যাওয়ার মান্নত করে
  • ৩২. স্ত্রীলোকের পায়ে হেঁটে মাথা না ঢেকে বায়তুল্লাহ যাওয়ার মান্নত করা
  • ৩৩. রোযার মান্নত করার পর আদায় করার পূর্বে মৃত্যু হলে
  • ৩৪. যে ব্যক্তি মান্নত আদায় না করে মারা যায়
  • ৩৫. মান্নত আদায় করার পূর্বে ইসলাম গ্রহণ করা
  • ৩৬. মানত হিসেবে হাদিয়া দেয়া
  • ৩৭. মালের মান্নত করলে জমি তার অন্তর্ভুক্ত হবে কি না
  • ৩৮. ইনশাআল্লাহ বলা
  • ৩৯. কেউ শপথ করলে যদি অন্য ব্যক্তি ইনশাআল্লাহ বলে
  • ৪০. মান্নতের কাফফারা
  • ৪১. মান্নত করার পর তা আদায় করতে অক্ষম হলে
  • ৪২. ইনশাআল্লাহ বলা
  • ৩৬/ বর্গাচাষ (كتاب المزارعة) ৮২ টি | ৩৮৫৯-৩৯৪০ পর্যন্ত 36/ The Book of Agriculture
  • ১. তৃতীয় প্রকার শর্তাবলী কৃষিতে বর্গা ও চুক্তি ইত্যাদি
  • ২. ফসলের তৃতীয়াংশ বা চতুর্থাংশ দেয়ার শর্তে বর্গা দেয়া সম্পর্কে বিভিন্ন হাদীস এবং হাদীসের বর্ণনাকারীদের বর্ণনাগত পার্থক্য
  • ৩. বর্গাচাষ সম্পর্কে বর্ণিত ভাষাগত বিভিন্নতা
  • ৬. শারীরিকভাবে শরীক হওয়া
  • ৩৭/ স্ত্রীর সাথে ব্যবহার (كتاب عشرة النساء) ২৭ টি | ৩৯৪১-৩৯৬৭ পর্যন্ত 37/ The Book of the Kind Treatment of Women
  • ১. স্ত্রীর প্রতি ভালবাসা
  • ২. একাধিক স্ত্রীর মধ্যে কারো প্রতি বেশি ঝুঁকে পড়া
  • ৩. এক স্ত্রী অপেক্ষা অপর স্ত্রীকে বেশি ভালবাসা
  • ৪. আত্মাভিমান
  • ৩৮/ হত্যা অবৈধ হওয়া (كتاب تحريم الدم) ১৬৬ টি | ৩৯৬৮-৪১৩৩ পর্যন্ত 38/ The Book of Fighting [The Prohibition of Bloodshed]
  • ১. মুসলিমকে হত্যা করার অবৈধতা
  • ২. হত্যা করা কঠিন অপরাধ
  • ৩. কবীরা গুনাহর বর্ণনা
  • ৪. সবচাইতে বড় পাপ সম্পর্কে আলোচনা
  • ৫. যে কারণে মুসলিমকে হত্যা করা বৈধ
  • ৬. কেউ মুসলিমদের দল থেকে বিচ্ছিন্ন হলে, তাকে হত্যা করা প্রসঙ্গে
  • ৭. আয়াত— অর্থঃ যারা আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে এবং দুনিয়ায় ধ্বংসাত্মক কাজ করে বেড়ায়, তাদের শাস্তি এই যে— তাদের হত্যা করা হবে, অথবা ক্রুশবিদ্ধ করা হবে, বিপরীত দিক থেকে, তাদের হাত ও পা কেটে ফেলা হবে বা তাদের দেশ থেকে নির্বাসিত করা হবে (৫ : ৩৩)-এর ব্যাখ্যা
  • ৮. আনাস ইবন মালিক (রাঃ) থেকে হুমায়দের বর্ণনায় তার ছাত্রদের মধ্যে পার্থক্য
  • ৯. ইয়াহইয়া সাঈদ থেকে তালহা ইবন মুসাররিফ ও মুআবিয়ার মধ্যে এই হাদীসের বর্ণনাগত পার্থক্য
  • ১০. অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ কাটার নিষেধাজ্ঞা
  • ১১. শূলে চড়ানো প্রসঙ্গে
  • ১২. মুসলিমের দাস পালিয়ে মুশরিকদের নিকট গেলে এবং এ সম্পর্কে জারীর (রাঃ) বর্ণিত হাদীসে শা'বী থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে শব্দগত পার্থক্য
  • ১৩. আবু ইসহাক (রহঃ)-এর থেকে বর্ণনাকারীদের বর্ণনাভেদ
  • ১৪. মুরতাদ সম্পর্কে বিধান
  • ১৫. মুরতাদ-এর তাওবা
  • ১৬. রাসূলুল্লাহ (ﷺ)-কে মন্দ বলার শাস্তি
  • ১৭. এই হাদীস সম্পর্কে আ'মাশ থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে শাব্দিক পার্থক্য
  • ১৮. যাদু প্রসঙ্গ
  • ১৯. যাদুকর সম্পর্কে হুকুম
  • ২০. কিতাবী যাদুকরদের বর্ণনা
  • ২১. কেউ মাল ছিনিয়ে নিতে চাইলে কি করবে
  • ২২. যে ব্যক্তি স্বীয় সম্পদ রক্ষার্থে মারা যায়
  • ২৩. যে ব্যক্তি পরিবার-পরিজনের রক্ষার্থে যুদ্ধ করে
  • ২৪. যে ধর্ম রক্ষার্থে যুদ্ধ করে
  • ২৫. যে ব্যক্তি অত্যাচার প্রতিরোধ করতে গিয়ে মারা যায়
  • ২৬. যে ব্যক্তি তলোয়ার খাপমুক্ত করে, তারপর মানুষের মধ্যে তা চালনা করে
  • ২৭. মুসলিমের সাথে যুদ্ধ করা
  • ২৮. যে ব্যক্তি বিভ্রান্তির পতাকাতলে যুদ্ধ করে তার সম্পর্কে কঠোর বাণী
  • ২৯. মুসলিমকে হত্যা করার অবৈধতা
  • ৩৯/ যুদ্ধলব্ধ মাল বণ্টন (كتاب قسم الفيء) ১৬ টি | ৪১৩৪-৪১৪৯ পর্যন্ত 39/ The Book of Distribution of Al-Fay
  • যুদ্ধলব্ধ মাল বণ্টন
  • ৪০/ বায়'আত (كتاب البيعة) ৬৩ টি | ৪১৫০-৪২১২ পর্যন্ত 40/ The Book of al-Bay'ah
  • ১. আদেশ পালন এবং অনুগত থাকার শপথ
  • ২. উপযুক্ত শাসকের বিরোধিতা না করার শপথ
  • ৩. সত্য কথা বলার উপর বায়'আত
  • ৪. ন্যায়ানুগ কথা বলার বায়আত
  • ৫. অন্যদের প্রাধান্য দেয়া হলে তাতে ধৈর্যধারণের বায়'আত
  • ৬. প্রত্যেক মুসলিমের শুভাকাক্ষী হওয়ার উপর বায়আত
  • ৭. যুদ্ধ হতে পলায়ন না করার উপর বায়'আত
  • ৮. মৃত্যুর উপর বায়আত
  • ৯. জিহাদ করার উপর বায়'আত
  • ১০. হিজরতের উপর বায়'আত
  • ১১. হিজরতের গুরুত্ব
  • ১২. বেদুঈনের হিজরত
  • ১৩. হিজরতের ব্যাখ্যা
  • ১৪. হিজরতের প্রতি উদ্বুদ্ধ করা
  • ১৫. হিজরত শেষ হয়ে যাওয়ার ব্যাপারে মত পার্থক্য
  • ১৬. যা পছন্দনীয় এবং যা অপছন্দনীয় সকল বিষয়ের বায়'আত
  • ১৭. মুশরিক হতে পৃথক থাকার বায়'আত
  • ১৮. মহিলাদের বায়আত
  • ১৯. রুগ্ন ব্যক্তি থেকে বায়'আত
  • ২০. অপ্রাপ্ত বয়স্ক বালকদের বায়আত
  • ২১. দাসদের বায়আত
  • ২২. বায়আত প্রত্যাহার করা
  • ২৩. হিজরতের পর পুনরায় বেদুঈন জীবনে ফিরে যাওয়া
  • ২৪. মানুষের শক্তি অনুযায়ী কাজে বায়আত করা
  • ২৫. যে ব্যক্তি কোন ইমামের হাতে হাত দিয়ে নিষ্ঠার সাথে বায়আত করে
  • ২৬. ইমামের আনুগত্যের প্রতি উদ্বুদ্ধ করা
  • ২৭. ইমামের আনুগত্যের প্রতি উৎসাহ প্রদান
  • ২৮. উলুল আমরের ব্যাখ্যা
  • ২৯. ইমামকে অমান্য করার পরিণতি
  • ৩০. ইমামের দায়িত্ব ও প্রাপ্য
  • ৩১. ইমামের শুভাকাঙ্ক্ষী হওয়া
  • ৩২. ইমামের একান্ত পরামর্শদাতা
  • ৩৩. শাসকের মন্ত্রী
  • ৩৪. যদি কেউ কাউকে কোন অন্যায় কাজ করতে বলে এবং সে তা করে, তার বিনিময়
  • ৩৫. অন্যায় কাজে শাসককে সাহায্য করা
  • ৩৬. যে শাসকের অত্যাচারে সাহায্য করবে না
  • ৩৭. অত্যাচারী শাসকের সামনে যে সত্য কথা বলে তার ফযীলত
  • ৩৮. বায়আত পূর্ণকারীর সওয়াব
  • ৩৯. শাসনকাজের লোভ করা অপছন্দনীয়
  • ৪১/ আকীকা (كتاب العقيقة) ১০ টি | ৪২১৩-৪২২২ পর্যন্ত 41/ The Book of al-'Aqiqah
  • ১. আকীকা
  • ২. পুত্র সন্তানের আকীকা
  • ৩. কন্যা সন্তানের আকীকা
  • ৪. কন্যা সন্তানের পক্ষ হতে কয়টি বকরী কুরবানী করতে হবে
  • ৫. আকীকা কখন করতে হবে
  • ৪২/ ফারা এবং ‘আতীরা (كتاب الفرع والعتيرة) ৪১ টি | ৪২২৩-৪২৬৩ পর্যন্ত 42/ The Book of al-Fara' and al-'Atirah
  • (ফারা এবং ‘আতীরা)
  • ১. ‘আতীরার ব্যাখ্যা
  • ২. ফারা'-এর ব্যাখ্যা
  • ৩. মৃত জন্তুর চামড়া
  • ৪. মৃত জন্তুর চামড়া কি দিয়ে দাবাগত করা হবে
  • ৫. দাবাগতকৃত মৃত জন্তুর চামড়া ব্যবহারের অনুমতি
  • ৬. হিংস্র জন্তুর চামড়া ব্যবহারের উপর নিষেধাজ্ঞা
  • ৭. মৃত জন্তুর চর্বি ব্যবহার না করা প্রসঙ্গে
  • ৮. হারাম বস্তু দ্বারা উপকৃত হওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা
  • ৯. ঘি-এর মধ্যে ইঁদুর পড়লে
  • ১০. পাত্রে মাছি পড়লে
  • ৪৩/ শিকার ও যবেহকৃত জন্তু (كتاب الصيد والذبائح) ৯৮ টি | ৪২৬৪-৪৩৬১ পর্যন্ত 43/ The Book of Hunting and Slaughtering
  • ১. শিকার করার সময় বিসমিল্লাহ বলার নির্দেশ
  • ২. যার উপর আল্লাহর নাম নেয়া হয়নি তা না খাওয়ার নির্দেশ
  • ৩. প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কুকুরের শিকার
  • ৪. যে কুকুর প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নয় তার শিকার
  • ৫. কুকুর যদি শিকার মেরে ফেলে
  • ৬. যদি স্বীয় কুকুরের সাথে অন্য কুকুর থাকে যাকে ছাড়ার সময় বিসমিল্লাহ পড়া হয়নি
  • ৭. যদি স্বীয় কুকুরের সাথে অন্যের কুকুর পায়
  • ৮. যদি কুকুর শিকারের কিছু অংশ খায়
  • ৯. কুকুর হত্যার নির্দেশ
  • ১০. যে সব কুকুরকে হত্যার নির্দেশ দেয়া হয়েছে
  • ১১. যে ঘরে কুকুর থাকে সে ঘরে ফেরেশতা প্রবেশ করে না
  • ১২. গবাদি পশুর রক্ষণাবেক্ষণের জন্য কুকুর পালনের অনুমতি
  • ১৩. শিকারী কুকুর পালনের অনুমতি
  • ১৪. কৃষির রক্ষণাবেক্ষণের জন্য কুকুর পালনের অনুমতি
  • ১৫. কুকুরের মূল্য ভোগে নিষেধাজ্ঞা
  • ১৬. শিকারী কুকুরের মূল্য নেয়ার অনুমতি
  • ১৭. গৃহপালিত পশু পালিয়ে গেলে
  • ১৮. তীর নিক্ষিপ্ত শিকার পানিতে পড়লে
  • ১৯. তীরের আঘাত খেয়ে শিকার উধাও হলে
  • ২০. যদি শিকার জন্তু হতে দুর্গন্ধ আসে
  • ২১. মি'রায (ফলকবিহীন তীর) এর শিকার
  • ২২. যদি তীরের পাশ লেগে মরে
  • ২৩. যে শিকারে ফলকবিহীন তীরের ধারাল অংশের আঘাত লাগে
  • ২৪. শিকারের পেছনে ধাওয়া করা
  • ২৫. খরগোশ প্রসঙ্গ
  • ২৬. গোসাপ (দব্ব)
  • ২৭. হায়েনা
  • ২৮. হিংস্র জন্তু খাওয়া হারাম
  • ২৯. ঘোড়ার গোশত খাওয়ার অনুমতি
  • ৩০. ঘোড়ার গোশত খাওয়ার অবৈধতা
  • ৩১. পালিত গাধার গোশত খাওয়া হারাম
  • ৩২. বন্য গাধার গোশত খাওয়ার বৈধতা
  • ৩৩. মোরগের গোশত খাওয়ার বৈধতা
  • ৩৪. চড়ুই পাখির গোশত খাওয়ার অনুমতি
  • ৩৫. সমুদ্রের মৃত জন্তু
  • ৩৬. ব্যাঙ
  • ৩৭. ফড়িং
  • ৩৮. পিঁপড়া হত্যা
  • ৪৪/ কুরবানী (كتاب الضحايا) ৮৮ টি | ৪৩৬২-৪৪৪৯ পর্যন্ত 44/ The Book of ad-Dahaya (Sacrifices)
  • (কুরবানী)
  • ১. যে কুরবানীর পশু না পায়
  • ২. ইমামের ঈদগাহে কুরবানীর পশু যবেহ করা
  • ৩. সাধারণ লোকের ঈদগাহে যবেহ করা
  • ৪. যে পশুর কুরবানী নিষিদ্ধ : কানা পশু
  • ৫. খোঁড়া পশু
  • ৬. দুর্বল পশু
  • ৭. যে পশুর কানের একদিক কাটা
  • ৮. মুদাবারা : যে পশুর কানের মূল থেকে কাটা
  • ৯. খারকা : ঐ পশু যার কানে ছিদ্র আছে
  • ১০. শারকা : কান ফাটা পশু
  • ১১. শিং ভাঙ্গা পশু
  • ১২. দুই বছর ও এক বছরের পশুর কুরবানী
  • ১৩. দুম্বা
  • ১৪. উট ও গরুর মধ্যে কয়জনের কুরবানী জায়েয
  • ১৫. কুরবানীর গরুতে শরীক সম্পর্কে
  • ১৬. ইমামের পূর্বে কুরবানী করা
  • ১৭. পাথর দ্বারা যবেহ করা
  • ১৮. কাষ্ঠ দ্বারা যবেহ করা
  • ১৯. নখ দ্বারা যবেহ করার নিষেধাজ্ঞা
  • ২০. দাঁত দ্বারা যবেহ করা
  • ২১. ছুরি ধারাল করার আদেশ
  • ২২. যে পশু যবেহ করা হয় তাকে নহর করা এবং যে পশু নহর করা হয় তাকে যবেহ করার অনুমতি
  • ২৩. হিংস্র পশুর দংশিত জন্তু যবেহ করা
  • ২৪. কূয়ায় পতিত জন্তুর যবেহ, যার গলায় ছুরি পৌছানো যায় না
  • ২৫. যে জন্তু পালায় এবং তা ধরা যায় না
  • ২৬. উত্তমরূপে যবেহ করা
  • ২৭. কুরবানীর জন্তুর ঘাড়ে পা রাখা
  • ২৮. কুরবানী করাকালে আল্লাহর নাম উচ্চারণ করা
  • ২৯. তাকবীর বলা
  • ৩০. নিজ হাতে কুরবানীর জন্তু যবেহ করা
  • ৩১. অন্যের কুরবানী যবেহ করা
  • ৩২. যা যবেহ করা হয়, তা নহর করা
  • ৩৩. যে আল্লাহ ব্যতীত অন্য কারো উদ্দেশ্যে যবেহ করে
  • ৩৪. তিনদিন পর কুরবানীর গোশত খাওয়া ও রেখে দেওয়ার প্রতি নিষেধাজ্ঞা
  • ৩৫. এর অনুমতি প্রসঙ্গে
  • ৩৬. কুরবানীর গোশত জমা করে রাখা
  • ৩৭. ইয়াহূদীদের যবেহকৃত পশু
  • ৩৮. অজ্ঞাত লোকের যবেহকৃত পশু
  • ৩৯. আল্লাহর বাণী- 'যাতে আল্লাহর নাম নেওয়া হয়নি তার কিছুই খেও না' (৬:১২১)-এর ব্যাখ্যা
  • ৪০. মুজাস্‌সামা (যে পশুকে পাথর মেরে হত্যা করা হয়েছে) খাওয়ার নিষেধাজ্ঞা
  • ৪১. যে ব্যক্তি অযথা চড়ুই হত্যা করে
  • ৪২. জাল্লালার গোশত খাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা
  • ৪৩. জাল্লালার দুধ পানে নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে
  • ৪৫/ ক্রয়-বিক্রয় (كتاب البيوع) ২৫৬ টি | ৪৪৫০-৪৭০৫ পর্যন্ত 45/ The Book of Financial Transactions
  • ১. উপার্জনের প্রতি উৎসাহিত করা
  • ২. সন্দেহযুক্ত উপার্জন পরিহার করা
  • ৩. ব্যবসা
  • ৪. ক্রয়-বিক্রয়ে সতর্কতা অবলম্বন করা
  • ৫. মিথ্যা কসম করে মাল বিক্রয়
  • ৬. বেচাকেনায় ধোঁকাবাজের জন্য কসম
  • ৭. অন্তর দিয়ে কসমে বিশ্বাস না করলে সাদকার আদেশ
  • ৮. ক্রেতা ও বিক্রেতার জন্য তাদের পৃথক হওয়ার পূর্বে ইখতিয়ার
  • ৯. রাবী নাফি’ (রহঃ)-এর বর্ণনায় তার থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে শব্দগত পার্থক্য
  • ১০. এই হাদীসের শব্দে আবদুল্লাহ ইবন দীনার থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে পার্থক্য
  • ১১. শারীরিকভাবে পৃথক হওয়ার পূর্বে ক্রেতা-বিক্রেতার ইখতিয়ার থাকা প্রসঙ্গ
  • ১২. ক্রয়-বিক্রয়ে ধোঁকা
  • ১৩. ওলানে দুধ আটকে রাখা
  • ১৪. বিক্রয় করাকালে ক্রেতাকে দেখানোর জন্য ওলানে দুধ দুই/তিন দিন আটকে রেখে ওলান বড় দেখানো, যাতে ক্রেতা বেশি দাম দেয়
  • ১৫. দায়িত্ব যার, উসূলও তার
  • ১৬. বেদুঈনের পক্ষ হয়ে মুহাজির ব্যক্তির ক্রয়-বিক্রয়
  • ১৭. নগরবাসী কর্তৃক গ্রাম্য লোকের পণ্য বিক্রি করা
  • ১৮. বহিরাগত লোকের পণ্য খরিদের জন্য অগ্রসর হওয়া
  • ১৯. মুসলিম ভাইয়ের দরদাম করার উপর দরদাম করা
  • ২০. মুসলিম ভাই-এর দরদামের উপর দরদাম করা
  • ২১. দালালী করা
  • ২২. অধিক মূল্যে ক্রয় করা
  • ২৩. মুলামাসা বিক্রয়
  • ২৪. মুলামাসার ব্যাখ্যা
  • ২৫. ‘মুনাবাযা’ পদ্ধতির ক্রয়-বিক্রয়
  • ২৬. মুনাবাযার ব্যাখ্যা
  • ২৭. পাথর নিক্ষেপের মাধ্যমে ক্রয়-বিক্রয়
  • ২৮. উপযুক্ত হওয়ার পূর্বে ফল বিক্রয়
  • ২৯. উপযোগী হওয়ার পূর্বে এই শর্তে ফল ক্রয় যে, সে তা কেটে নেবে, উপযুক্ত হওয়ার কাল পর্যন্ত গাছে রেখে দেবে না
  • ৩০. দুর্যোগে বিনষ্ট ফলের মূল্য কর্তন করা
  • ৩১. কয়েক বছরের জন্য ফল বিক্রয়
  • ৩২. শুষ্ক খেজুরের বিনিময়ে গাছের খেজুর বিক্রয়
  • ৩৩. কিশমিশের পরিবর্তে আঙুর বিক্রি করা
  • ৩৪. খোরমার বিনিময়ে অনুমান করে আরায়া বিক্রি করা
  • ৩৫. তাজা খেজুরের পরিবর্তে আরায়া বিক্রি
  • ৩৬. তাজা খেজুরের পরিবর্তে খোরমা ক্রয় করা
  • ৩৭. কায়লের মাপে নির্দিষ্ট পরিমাণ খেজুরের বিনিময়ে খোমার স্তূপ বিক্রয় করা, যার পরিমাণ জানা নেই
  • ৩৮. খাদ্যের স্তূপের পরিবর্তে খাদ্যের স্তূপ বিক্রি
  • ৩৯. খাদ্যের পরিবর্তে ক্ষেতের শস্য বিক্রয় করা
  • ৪০. সাদা হওয়ার পূর্বে শীষ বিক্রয় করা
  • ৪১. খেজুরের বিনিময়ে খেজুর কমবেশি করে বিক্রি
  • ৪২. খোরমার বিনিময়ে খোরমা
  • ৪৩. গমের বিনিময়ে গম বিক্রি করা
  • ৪৪. যবের বিনিময়ে যব বিক্রয়
  • ৪৫. দীনারের বিনিময়ে দীনার বিক্রি
  • ৪৬. দিরহামের বিনিময়ে দিরহাম বিক্রি
  • ৪৭. স্বর্ণের বিনিময়ে স্বর্ণ বিক্রি
  • ৪৮. স্বর্ণের বিনিময়ে মুক্তা খচিত স্বর্ণের হার বিক্রয় করা
  • ৪৯. স্বর্ণের বিনিময়ে রৌপ্য বাকিতে বিক্রি করা
  • ৫০. সোনার বিনিময়ে রূপা এবং রূপার বিনিময়ে সোনা বিক্রি করা
  • ৫১. স্বর্ণের বিনিময়ে রূপা এবং রূপার বিনিময়ে স্বর্ণ গ্রহণ করা এবং ইবন উমর (রাঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের বর্ণনায় শব্দের পার্থক্য
  • ৫২. সোনার বিনিময়ে রূপা নেয়া
  • ৫৩. মাপে বেশি দেওয়া
  • ৫৪. পরিমাপে পাল্লা ঝুঁকিয়ে দেওয়া
  • ৫৫. নিজের অধিকারে আনার পূর্বে খাদ্য বিক্রি করা
  • ৫৬. খাদ্যদ্রব্য কেনার পর তা অধিকারে আনার পূর্বে বিক্রয় করা নিষেধ
  • ৫৭. পরিমাপ ব্যতীত যে খাদ্য খরিদ করা হয়েছে তা স্থানান্তরিত করার আগে বিক্রি করা
  • ৫৮. বাকিতে খাদ্যদ্রব্য কেনা এবং মূল্য বাবদ বিক্রেতার কাছে কিছু বন্ধক রাখা
  • ৫৯. বাড়িতে অবস্থানকালে বন্ধক রাখা
  • ৬০. বিক্রেতার নিকট নেই এমন বস্তু বিক্রয় করা
  • ৬১. খাদ্যশস্যে সালাম (অর্থাৎ দাদনে বেচাকেনা)
  • ৬২. কিশমিশে সালাম (দাদনে বেচাকেনা) করা
  • ৬৩. ফল-মূলে সালাম (দাদনে বেচাকেনা) করা
  • ৬৪. পশুতে দাদন বেচাকেনা ও ঋণের কারবার
  • ৬৫. পশুর বিনিময়ে পশু বাকিতে বিক্রি করা
  • ৬৬. পশুর বিনিময়ে পশু নগদানগদি বেশকমে বিক্রয় করা
  • ৬৭. গর্ভস্থ শাবকের শাবককে বিক্রয় করা
  • ৬৮. এর ব্যাখ্যা
  • ৬৯. কয়েক বছরের জন্য বিক্রয় করা
  • ৭০. মূল্য পরিশোধের মেয়াদ নির্দিষ্ট করে বিক্রি করা
  • ৭১. ক্রেতা ঋণ দেবে এই শর্তে তার কাছে মাল বিক্রি
  • ৭২. এক বিক্রয়ে দুই শর্ত : যেমন কোন ব্যক্তি বললোঃ আমি এই বস্তু তোমার নিকট বিক্রয় করছি এই শর্তে যে, যদি তুমি এক মাসে মূল্য আদায় কর, তবে মূল্য হবে এতো, আর দুই মাস পরে আদায় করলে এতো
  • ৭৩. একই বিক্রয়ে দুই বিক্রয় করা যেমন : কেউ বললো : আমি ঐ বস্তু তোমার নিকট বিক্রয় করছি, এ শর্তে যে, যদি তুমি এর মূল্য নগদ আদায় কর তবে দাম একশত দিরহাম, আর ধারে হলে এর মূল্য দুইশত দিরহাম
  • ৭৪. বিক্রিত দ্রব্য হতে কিছু বাদ দেওয়া
  • ৭৫. খেজুর গাছ বিক্রয় করলে ফল কার হবে
  • ৭৬. দাস বিক্রয় করলে তার মালের শর্ত করা
  • ৭৭. ক্রয়-বিক্রয়ে শর্ত করলে বিক্রি ও শর্ত উভয়ই বৈধ
  • ৭৮. ক্রয়-বিক্রয়ে ফাসিদ শর্ত করলে বিক্রি বৈধ হয়, কিন্তু শর্ত বাতিল হয়ে যায়
  • ৭৯. বন্টনের পূর্বে গনীমতের মাল বিক্রয় করা
  • ৮০. এজমালি সম্পত্তি বিক্রি করা
  • ৮১. বিক্রয়কালে সাক্ষী না রাখার অবকাশ
  • ৮২. মূল্য নিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতার বিরোধ
  • ৮৩. আহলে কিতাবের সাথে ক্রয়-বিক্রয় করা
  • ৮৪. মুদাব্বার বিক্রয় করা
  • ৮৫. মুকাতাব গোলাম বিক্রয় করা
  • ৮৬. মুকাতাবকে বিক্রি করা বৈধ, যদি সে চুক্তির অর্থ কিছুমাত্র আদায় না করে
  • ৮৭. ওয়ালা বিক্রয়
  • ৮৮. পানি বিক্রয়
  • ৮৯. প্রয়োজনাতিরিক্ত পানি বিক্রয় করা
  • ৯০. মদ বিক্রয় করা
  • ৯১. কুকুর বিক্রয় করা
  • ৯২. যে কুকুর বিক্রি করা যায়
  • ৯৩. শূকর বিক্রয় করা
  • ৯৪. উটের পাল দেওয়ার বিনিময় গ্রহণ
  • ৯৫. ক্রয় করার পর ক্রেতা যদি নিঃস্ব হয়ে যায়, আর বিক্রিত মাল তার কাছে পাওয়া যায়
  • ৯৬. বিক্রিত দ্রব্যে কোন হকদারের হক প্রমাণিত হলে
  • ৯৭. কর্জ নেওয়া
  • ৯৮. দেনা সম্পর্কে কঠোর সতর্কবাণী
  • ৯৯. কর্জ নেওয়ার অবকাশ
  • ১০০. কর্জ আদায়ে সামর্থ্যবান লোকের টালবাহানা করা
  • ১০১. হাওয়ালা
  • ১০২. কর্জের যামিন হওয়া
  • ১০৩. উত্তমরূপে কর্জ আদায়ের জন্য উৎসাহ প্রদান
  • ১০৪. কর্জ উসূল করতে কোমল ব্যবহার করা
  • ১০৫. মাল ব্যতীত শরীক হওয়া
  • ১০৬. গোলাম-বাঁদীতে অংশীদার হওয়া
  • ১০৭. খেজুরগাছের অংশীদার হওয়া
  • ১০৮. জমিতে অংশীদারি
  • ১০৯. শুফআ ও তার বিধান
  • ৪৬/ কাসামাহ (كتاب القسامة) ১৬৪ টি | ৪৫৮৮-৪৮৬৯ পর্যন্ত 46/ The Book of Oaths (qasamah), Retaliation and Blood Money
  • ১. জাহিলী যুগে প্রচলিত কাসামাহ
  • ২. শপথ
  • ৩. নিহতের অভিভাবকদের প্রথমে শপথ করানো
  • ৪. এই হাদীসে সাহল হতে বর্ণনাকারীর বর্ণনাগত পার্থক্য
  • ৫. কিসাস
  • ৬. আলকামা ইবন ওয়ায়লের থেকে বর্ণনাকারীদের পার্থক্য
  • ৭. (وَإِنْ حَكَمْتَ فَاحْكُمْ بَيْنَهُمْ بِالْقِسْطِ) আয়াতের ব্যাখ্যা এবং এ সম্পর্কে ইকরিমা থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে বর্ণনাগত পার্থক্য
  • ৮. আযাদ ও দাসের মধ্যে হত্যার কিসাস
  • ৯. দাসের জন্য মনিবের থেকে কিসাস
  • ১০. নারীকে নারীর পরিবর্তে হত্যা করা
  • ১১. নারীর পরিবর্তে পুরুষকে হত্যা করা
  • ১২. মুসলিম হতে কাফিরের কিসাস রহিত হওয়া
  • ১৩. যিম্মীকে হত্যা করা গুরুতর পাপ
  • ১৪. দাসদের মধ্যে যখম ও অঙ্গহানির জন্য কিসাস নেই
  • ১৫. দাঁতের কিসাস
  • ১৬. সামনের দাঁতের কিসাস
  • ১৭. কামড় দেওয়ার কিসাস এবং এ সম্পর্কে ইমরান ইবন হুসায়ন (রাঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে পার্থক্য
  • ১৮. যে ব্যক্তি আত্মরক্ষা করে
  • ১৯. আতা (রহঃ) থেকে এই হাদীসের রাবীদের বর্ণনাগত পার্থক্য
  • ২০. খোঁচা দেওয়ার কিসাস
  • ২১. চড়ের কিসাস
  • ২২. টানা-হেঁচড়া করার কিসাস
  • ২৩. বাদশাহদের নিকট হতে কিসাস
  • ২৪. বাদশাহর কাজে বাধা প্রদান
  • ২৫. ধারালো অস্ত্র ছাড়া অন্য কিছু দ্বারা কিসাস নেয়া
  • ২৬. (فَمَنْ عُفِيَ لَهُ مِنْ أَخِيهِ) এর ব্যাখ্যা
  • ২৭. কিসাস ক্ষমা করার আদেশ
  • ২৮. ইচ্ছাকৃত হত্যার পর নিহতের অভিভাবক যদি কিসাস ক্ষমা করে দেয়, তবে দিয়াত গ্রহণ করা যাবে কি না
  • ২৯. কিসাস গ্রহণে নারীর প্রতিও ক্ষমা প্রদর্শন
  • ৩০. প্রস্তর অথবা কোড়ার আঘাতে নিহত ব্যক্তি
  • ৩১. ইচ্ছাকৃত হত্যার সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ হত্যার দিয়াত এবং এ বিষয়ে কাসিম ইবন রবীআ বর্ণিত হাদীস বর্ণনায় আইয়্যুবের শাগরিদগণের মধ্যে পার্থক্য
  • ৩২. খালিদ হাযযা (রহঃ) থেকে বর্ণনাকারীদের পার্থক্য
  • ৩৩. ভুলক্রমে হত্যার দিয়াত
  • ৩৪. রূপা দ্বারা দিয়াত আদায়
  • ৩৫. নারীর দিয়াত
  • ৩৬. কাফিরের দিয়াত
  • ৩৭. মুকাতাব দাসের দিয়াত
  • ৩৮. গর্ভস্থ সন্তানের দিয়াত
  • ৩৯. ইচ্ছাকৃত হত্যা সদৃশ হত্যা কাকে বলে এবং এরূপ হত্যা ও গর্ভস্থ সন্তানের দিয়াত কে দেবে
  • ৪০. একজনের অপরাধে অন্যজনকে দায়ী করা
  • ৪১. দৃষ্টিহীন চোখ উপড়ে ফেললে
  • ৪২. দাঁতের দিয়াত
  • ৪৩. আঙ্গুলের দিয়াত
  • ৪৪. যে যখম হাড় পর্যন্ত পৌছে
  • ৪৫. দিয়াত বিষয়ে আমর ইবন হাযমের হাদীস এবং এতে বর্ণনাকারীদের পার্থক্য
  • ৪৬. নিজে প্রতিশোধ গ্রহণ করা
  • ৪৭. আল্লাহ্‌র বাণীঃ (وَمَنْ يَقْتُلْ مُؤْمِنًا مُتَعَمِّدًا) এর ব্যাখ্যা
  • ৪৭/ চোরের হাত কাটা (كتاب قطع السارق) ১১৪ টি | ৪৮৭০-৪৯৮৩ পর্যন্ত 47/ The Book of Cutting off the Hand of the Thief
  • ১. চুরি কঠিন পাপ
  • ২. চুরি স্বীকার করানোর জন্য চোরকে মারা বা বন্দী করা
  • ৩. চোরকে উপদেশ দান
  • ৪. চোরকে বিচারকের নিকট আনার পর ক্ষমা করলে
  • ৫. কোন মাল রক্ষিত এবং কোন মাল অরক্ষিত
  • ৬. মাখযূমী নারীর হাদীসে যুহরী (রহঃ) হতে বর্ণনাকারীদের মধ্যে বর্ণনাগত পার্থক্য
  • ৭. হদ বা শাস্তি বিধানের প্রতি উদ্বুদ্ধ করা
  • ৮. কত মূল্যের মাল চুরিতে হাত কাটা যাবে
  • ৯. যুহরী হতে বর্ণনাকারীদের মতপার্থক্য
  • ১০. এই হাদীসে ‘আমরা (রহঃ) থেকে বর্ণনাকারী আবু বকর ইবন মুহাম্মদ ও আবদুল্লাহ ইবন আবু বকর (রহঃ)-এর বর্ণনাগত পার্থক্য
  • ১১. গাছ থেকে ফল চুরি
  • ১২. ফল খোলায় রাখার পর চুরি হলে
  • ১৩. যা চুরি করলে হাত কাটা যাবে না
  • ১৪. চোরের হাত কাটার পর পা কাটা
  • ১৫. চোরের হস্তদ্বয় ও পদদ্বয় কেটে ফেলা
  • ১৬. সফরে হাত কাটা
  • ১৭. বালেগ হওয়ার বয়স এবং যে বয়সে উপনীত হলে নর-নারীর উপরে হদ (শরঈ শাস্তি) আরোপ করা যায়
  • ১৮. চোরের কর্তিত হাত ঘাড়ে ঝুলানো
  • ৪৮/ ঈমান এবং এর বিধানাবলী (كتاب الإيمان وشرائعه) ৫৫ টি | ৪৯৮৪-৫০৩৮ পর্যন্ত 48/ The Book Of Faith and its Signs
  • ১. উত্তম আমলের বর্ণনা
  • ২. ঈমানের স্বাদ
  • ৩. ঈমানের মিষ্টতা
  • ৪. ইসলামের স্বাদ
  • ৫. ইসলামের পরিচয়
  • ৬. ঈমান ও ইসলামের বিবরণ
  • ৭. আল্লাহর বাণী (قَالَتْ الْأَعْرَابُ آمَنَّا قُلْ لَمْ تُؤْمِنُوا وَلَكِنْ قُولُوا أَسْلَمْنَا) এর বাখা।
  • ৮. মুমিনের পরিচয়
  • ৯. মুসলিমের পরিচয়
  • ১০. ব্যক্তির ইসলামের উৎকৃষ্টতা
  • ১১. কোন্ ইসলাম শ্রেষ্ঠ
  • ১২. কোন ইসলাম ভাল
  • ১৩. ইসলামের বুনিয়াদ কয়টি
  • ১৪. ইসলামের উপর বায়আত গ্রহণ করা
  • ১৫. কখন লোকদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা হবে
  • ১৬. ঈমানের শাখা-প্রশাখার বর্ণনা
  • ১৭. ঈমানদারদের মধ্যে শ্রেণী বিভাগ
  • ১৮. ঈমানের বৃদ্ধি পাওয়া
  • ১৯. ঈমানের আলামত
  • ২০. মুনাফিকের আলামত
  • ২১. রমযানে রাত জাগরণ
  • ২২. শবে কদরে জাগরণ
  • ২৩. যাকাত
  • ২৪. জিহাদ
  • ২৫. খুমুস আদায় করা
  • ২৬. জানাযায় উপস্থিত হওয়া
  • ২৭. লজ্জা
  • ২৮. দীন সহজ
  • ২৯. আল্লাহ্ তা'আলার নিকট পছন্দনীয় দীন
  • ৩০. ফিতনা থেকে দীন রক্ষার্থে পলায়ন করা
  • ৩১. মুনাফিকের উদাহরণ
  • ৩২. কুরআন তিলাওয়াতকারী মু’মিন ও মুনাফিক
  • ৩৩. মুমিনের আলামত
  • ৪৯/ সাজসজ্জা (كتاب الزينة) ৩৩৯ টি | ৫০৩৯-৫৩৭৭ পর্যন্ত 49/ The Book of Adornment
  • ১. স্বভাবসিদ্ধ সুন্নতসমূহ
  • ২. মোচ কাটা
  • ৩. মাথা মুড়ানোর অনুমতি
  • ৪. নারীর মাথার চুল মুণ্ডন করা নিষেধ
  • ৫. মাথার কিছু অংশ মুণ্ডন করে কিছু অংশে চুল রেখে দেয়া
  • ৬. গোঁফ কাটা
  • ৭. বিরতি দিয়ে চিরুণী করা
  • ৮. ডানদিক হতে চিরুণী করা
  • ৯. মাথায় লম্বা চুল রাখা
  • ১০. চুলের ঝুঁটি
  • ১১. চুল লম্বা করা
  • ১২. দাড়িতে গিঁট লাগানো
  • ১৩. সাদা চুল উঠানো নিষেধ
  • ১৪. খিযাব লাগানোর অনুমতি
  • ১৫. কালো খিযাব লাগানো নিষেধ
  • ১৬. মেহেদী ও কাতাম দ্বারা খিযাব লাগানো
  • ১৭. হলুদ রঙের খিযাব
  • ১৮. নারীদের জন্য খিযাব
  • ১৯. মেহেদীর গন্ধ অপছন্দ
  • ২০. সাদা চুল উৎপাটন করা,
  • ২১. চুলে জোড়া লাগানো
  • ২২. চুলে যোজনাকারিণী
  • ২৩. যে নারী চুল যোজনা করায়
  • ২৪. দাঁতে ফাঁক করা
  • ২৫. যে চুলে অন্যের চুল যোজনা করে
  • ২৬. যে নারী দাঁত ফাঁক করায়
  • ২৭. দাঁত ঘষে চিকন করার নিষিদ্ধতা
  • ২৮. সুরমা লাগানো
  • ২৯. তেল লাগানো
  • ৩০. যা'ফরান
  • ৩১. আম্বর
  • ৩২. নর ও নারীর সুগন্ধির মধ্যে পার্থক্য
  • ৩৩. উত্তম সুগন্ধি
  • ৩৪. যা'ফরান ও খালূক
  • ৩৫. নারীদের জন্য কোন সুগন্ধি ব্যবহার করা অনুচিত
  • ৩৬. মহিলাদের সুগন্ধি ধুয়ে ফেলা
  • ৩৭. নারী ধূপধুনায় সুবাসিত হয়ে জামাআতে আসবে না
  • ৩৮. ধোঁয়ার সুগন্ধি
  • ৩৯. মহিলাদের অলঙ্কার এবং স্বর্ণ পরিধান করে প্রকাশ করা নিন্দনীয়
  • ৪০. পুরুষদের জন্য স্বর্ণ ব্যবহার করা হারাম
  • ৪১. যার নাক যখম হয়েছে, সে সোনার নাক বানাতে পারে কি না
  • ৪২. পুরুষদের সোনার আংটি ব্যবহারের অনুমতি
  • ৪৩. সোনার আংটি
  • ৪৪. ইয়াহইয়া ইবন আবু কাসীর বর্ণিত হাদীসে তার থেকে বর্ণনাকারীদের মধ্যে পার্থক্য
  • ৪৫. উবায়দা (রহঃ) থেকে বর্ণিত হাদীস
  • ৪৬. আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে বর্ণিত হাদীসে কাতাদা (রহঃ)-এর বর্ণনাগত পার্থক্য
  • ৪৭. আংটিতে কি পরিমাণ রূপা ব্যবহার করা যাবে
  • ৪৮. রাসূলুল্লাহ্ (ﷺ) এর আংটির বিবরণ
  • ৪৯. কোন হাতে আংটি পরবে
  • ৫০. রূপা জড়ানো লোহার আংটি ব্যবহার
  • ৫১. পিতলের আংটি
  • ৫২. নবী (ﷺ) এর নির্দেশ তোমরা আংটিতে আরবী নকশা করো না
  • ৫৩. তর্জনী আঙ্গুলে আংটি পরা নিষেধ
  • ৫৪. পায়খানায় প্রবেশের সময় আংটি খুলে রাখা
  • ৫৫. ঘন্টা
  • ৫৬. ফিতরাত বা দীনের সার্বজনীন বিধান
  • ৫৭. গোঁফ কাটা, দাড়ি লম্বা করা
  • ৫৮. শিশুদের মাথা মুড়ান
  • ৫৯. মাথার কিছু অংশ মুড়ান এবং কিছু রেখে দেওয়া নিষেধ
  • ৬০. বাবরি রাখা
  • ৬১. চুল বিন্যস্ত রাখা
  • ৬২. চুলের সিঁথি কাটা
  • ৬৩. চুল আঁচড়ানো
  • ৬৪. ডানদিক থেকে চুল আঁচড়ানো
  • ৬৫. খিযাব লাগানোর আদেশ
  • ৬৬. দাড়ি সোনালী রং করা
  • ৬৭. যা'ফরান এবং ওয়ারস দ্বারা দাড়ি রং করা
  • ৬৮. চুলে পরচুলা লাগানো
  • ৬৯. (বেশি দেখানোর উদ্দেশ্যে কালো) কাপড়ে চুল জড়ানো
  • ৭০. পরচুলা ব্যবহারকারিণীর উপর লা'নত
  • ৭১. যে পরচুলা লাগিয়ে দেয় এবং যে লাগাতে বলে, তার উপর লা'নত
  • ৭২. যে উল্কি আঁকায় এবং যে এঁকে দেয়, তার উপর লা'নত
  • ৭৩. তার উপর লা'নত যে নারী (ভ্রু ইত্যাদির) লোম তুলে ফেলে এবং দাঁতে ফাঁক করে
  • ৭৪. যা'আফরানী রং লাগানো
  • ৭৫. সুগন্ধি
  • ৭৬. উত্তম সুগন্ধি সম্পর্কে
  • ৭৭. স্বর্ণ পরিধান করা হারাম হওয়া
  • ৭৮. স্বর্ণের আংটি ব্যবহার করা নিষেধ
  • ৭৯. নবী (ﷺ) এর আংটি ও এর নকশা সম্পর্কে
  • ৮০. আংটি পরার স্থান
  • ৮১. নগীনার স্থান
  • ৮২. আংটি ফেলে দেয়া এবং এর ব্যবহার ত্যাগ করা
  • ৮৩. কোন্ কাপড় পরিধান করা মুস্তাহাব, আর কোটি মাকরূহ
  • ৮৪. সোনালী ডোরাবিশিষ্ট রেশমী কাপড় ব্যবহার নিষেধ
  • ৮৫. ডোরাদার রেশমী কাপড় নারীদের জন্য ব্যবহারের অনুমতি
  • ৮৬. ইসতাব্‌রাক বা রেশমী কাপড় পরিধান করা নিষেধ
  • ৮৭. ইসতাব্‌রাকের বর্ণনা
  • ৮৮. দীবাজ নামক রেশমী কাপড় পরা নিষেধ
  • ৮৯. সোনার কারুকার্য খচিত দীবাজ বা রেশমী বস্ত্র পরিধান
  • ৯০. উক্ত হাদীস রহিত হওয়ার বর্ণনা
  • ৯১. পৃথিবীতে রেশমী কাপড় পরার ব্যাপারে কঠোরতা; যে দুনিয়াতে তা পরবে, সে আখিরাতে পরতে পারবে না
  • ৯২. রেশমী কাপড় পরার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা
  • ৯৩. রেশমী কাপড় পরার অনুমতি
  • ৯৪. জোড়া পোশাক পরিধান করা
  • ৯৫. হিবারা (ইয়ামানী চাদর) পরিধান করা
  • ৯৬. কুসুম রঙের কাপড় পরিধান করা নিষেধ
  • ৯৭. সবুজ কাপড় পরিধান করা
  • ৯৮. বুরদা (ডোরাকাটা চাদর) পরিধান করা
  • ৯৯. সাদা কাপড় পরার আদেশ
  • ১০০. কাবা পরিধান করা
  • ১০১. পায়জামা পরিধান করা
  • ১০২. লুঙ্গি ইত্যাদি পরে হেঁচড়িয়ে চলার উপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা
  • ১০৩. লুঙ্গি পরিধানের স্থান
  • ১০৪. লুঙ্গি, চাদর ইত্যাদির যে অংশ পায়ের গিরার নিচে থাকবে
  • ১০৫. ইযার বা লুঙ্গি টাখনুর নিচে ঝুলিয়ে পরা
  • ১০৬. নারীদের কাপড়ের নিম্নাংশ
  • ১০৭. এক কাপড়ে সর্বাঙ্গ জড়িয়ে তার একপার্শ্ব কাঁধের উপর ফেলে রাখা নিষেধ
  • ১০৮. এক কাপড়ে ইহতিবা (সর্বশরীর জড়িয়ে বসা) নিষেধ
  • ১০৯. ছাইরঙা পাগড়ি পরিধান করা
  • ১১০. কালো পাগড়ি ব্যবহার করা
  • ১১১. পাগড়ির প্রান্ত দু’কাঁধের মাঝখানে লটকানো
  • ১১২. ছবি
  • ১১৩. কঠিনতম শাস্তি যার হবে
  • ১১৪. কিয়ামতের দিন ছবি অঙ্কনকারীদের যা করতে বলা হবে
  • ১১৫. সর্বাপেক্ষা অধিক শাস্তিপ্রাপ্ত ব্যক্তি
  • ১১৬. গায়ে দেওয়ার চাদর
  • ১১৭. রাসূলুল্লাহ্ (ﷺ) এর জুতার বর্ণনা
  • ১১৮. এক জুতা পরে চলা নিষেধ
  • ১১৯. চামড়ার বিছানা
  • ১২০. খাদিম ও বাহন রাখা
  • ১২১. তলোয়ারের অলঙ্কার সম্পর্কে
  • ১২২. লাল জীনপোশের উপর বসা নিষেধ
  • ১২৩. চেয়ারে বসা
  • ১২৪. লাল তাঁবু ব্যবহার করা
  • ৫০/ বিচারকের নীতিমালা (كتاب آداب القضاة) ৪৯ টি | ৫৩৭৮-৫৪২৬ পর্যন্ত 50/ The Book of the Etiquette of Judges
  • ১. ন্যায়পরায়ণ বিচারকের ফযীলত
  • ২. ন্যায়পরায়ণ শাসক
  • ৩. সঠিক ফয়সালা দান
  • ৪. বিচারক পদপ্রার্থীকে বিচারক নিযুক্ত না করা
  • ৫. নেতৃত্ব প্রার্থনা না করা
  • ৬. কবিদের শাসনকার্যে নিযুক্ত করা
  • ৭. কোন ব্যক্তিকে বিচারক নিযুক্ত করলে এবং সে ফয়সালা করলে
  • ৮. নারীদেরকে শাসক নিযুক্ত করা নিষেধ
  • ৯. তুলনা ও সাদৃশ্যস্থাপন দ্বারা সমাধান; ইন আব্বাসের হাদীসে ওয়ালিদ ইবন মুসলিম হতে বর্ণনাকারীদের বর্ণনা-পার্থক্য
  • ১০. ইয়াহ্ইয়ার হাদীসে মতপার্থক্য
  • ১১. আলিমদের ঐকমত্যে ফয়সালা করা
  • ১২. (وَمَنْ لَمْ يَحْكُمْ بِمَا أَنْزَلَ اللَّهُ فَأُولَئِكَ هُمْ الْكَافِرُونَ) এর তাফসীর
  • ১৩. বাহ্যিক অবস্থা দেখে মীমাংসা
  • ১৪. বিচারক কর্তৃক নিজ জ্ঞান অনুযায়ী ফায়সালা দান
  • ১৫. সত্য উদঘাটনের লক্ষ্যে বিচারক যদি বলে, আমি এই কাজ করব, আসলে সে তা করবে না
  • ১৬. সমপর্যায় বা উচ্চ পর্যায়ের কাযীর মীমাংসা ভেঙ্গে দেওয়া
  • ১৭. বিচারক ভুল মীমাংসা করলে তা প্রত্যাখ্যান
  • ১৮. মীমাংসাকারীর জন্য যা পরিত্যাজ্য
  • ১৯. ন্যায়পরায়ণ বিচারকের জন্য রাগান্বিত অবস্থায় মীমাংসা করার অনুমতি
  • ২০. নিজের বাড়িতে থেকে হাকিমের মীমাংসা করা
  • ২১. সাহায্য প্রার্থনা করা
  • ২২. মহিলাদেরকে বিচারালয়ে উপস্থিত হওয়া থেকে বাঁচানো
  • ২৩. ব্যভিচারীকে ডেকে পাঠানো
  • ২৪. মীমাংসার জন্য বিচারক কর্তৃক প্রজার নিকট গমন
  • ২৫. হাকিম কর্তৃক বাদী-বিবাদীর মধ্যে আপসের ইঙ্গিত করা
  • ২৬. বিচারক কর্তৃক বিবাদীকে ক্ষমা করার ইঙ্গিত করা
  • ২৭. বিচারক কর্তৃক দয়া প্রদর্শনের ইঙ্গিত করা
  • ২৮. ফয়সালাদানের পূর্বে হাকিম কর্তৃক সুপারিশ
  • ২৯. শাসক কর্তৃক জনগণকে তাদের প্রয়োজনীয় সম্পদ নষ্ট করতে বাধা দেয়া
  • ৩০. সম্পদ অল্প হোক বা অধিক, তাতে ফয়সালা দেয়া
  • ৩১. হাকিমের চেনা-জানা ব্যক্তির অনুপস্থিতিতে তার ব্যাপারে রায় প্রদান
  • ৩২. এক আদেশে দু’টি মীমাংসা করা নিষেধ
  • ৩৩. বিচারে লব্ধ মালের পরিণাম
  • ৩৪. ঘোর ঝগড়াটে ব্যক্তি
  • ৩৫. প্রমাণহীন মোকদ্দমার মীমাংসা
  • ৩৬. শপথ গ্রহণে হাকিমের নসীহত
  • ৩৭. হাকিম কিরূপে শপথ নিবেন
  • ৫১/ আল্লাহর আশ্রয় গ্রহণ করা (كتاب الاستعاذة) ১১২ টি | ৫৪২৭-৫৫৩৮ পর্যন্ত 51/ The Book of Seeking Refuge with Allah
  • (আল্লাহর আশ্রয় গ্রহণ করা)
  • ১. যে হৃদয় ভয় করে না, তা হতে আল্লাহর পানাহ চাওয়া
  • ২. অন্তরের ফিতনা থেকে আল্লাহর আশ্রয় প্রার্থনা
  • ৩. কান ও চোখের ফিতনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪. কাপুরুষতা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫. কৃপণতা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৬. দুশ্চিন্তা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৭. দুঃখ-কষ্ট থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৮. দেনা এবং পাপ হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৯. চোখ ও কানের অপকারিতা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১০. চোখের অপকারিতা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১১. অলসতা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১২. অপারগতা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১৩. অপমান ও লাঞ্ছনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১৪. অপ্রতুলতা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১৫. অভাব-অনটন থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১৬. কবরের ফিতন-অনিষ্ট থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১৭. অতৃপ্ত প্রবৃত্তি থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১৮. ক্ষুধা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ১৯. খিয়ানত হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২০. শত্রুতা, নিফাক ও মন্দ চরিত্র থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২১. ঋণের বোঝা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২২. দেনা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২৩. ঋণের প্রাবল্য থেকে আশ্রয় চাওয়া
  • ২৪. দেনার চাপ হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২৫. ঐশ্বর্যের অনিষ্টতা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২৬. দুনিয়ার ফিতনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২৭. পুরুষাঙ্গের অনিষ্ট থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২৮. কুফরের অনিষ্ট থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ২৯. পথভ্রষ্টতা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩০. শত্রুর আগ্রাসন হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩১. শত্রুর হাসির পাত্র হওয়া থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩২. চরম বার্ধক্য থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩৩. দুর্ভাগ্য থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩৪. অপমৃত্যু হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩৫. পাগলামী থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩৬. জিন্নদের কুদৃষ্টি হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩৭. বার্ধক্যের অনিষ্ট থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩৮. অতি বার্ধক্য থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৩৯. মন্দ জীবন থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪০. লাভের পর ক্ষতি থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪১. অত্যাচারিত ব্যক্তির বদ-দু'আ থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪২. দুঃখজনক প্রত্যাবর্তন থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪৩. মন্দ পড়শী থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪৪. লোকের আধিপত্য থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪৫. দাজ্জালের ফিতনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪৬. জাহান্নামের আযাব ও দাজ্জালের ফিতনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪৭. মানুষ শয়তানের অনিষ্ট থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪৮. জীবিতকালের ফিতনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৪৯. মৃত্যুর ফিতনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫০. কবরের আযাব থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫১. কবরের ফিতনা থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫২. আল্লাহর আযাব থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫৩. জাহান্নামের আযাব থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫৪. দোযখের আযাব থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫৫. জাহানামের আগুনের উত্তাপ থেকে পরিত্রাণ পাওয়ার জন্য প্রার্থনা করা
  • ৫৬. কৃতকর্মের অনিষ্ট থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫৭. আমলের অনিষ্ট হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫৮. যা করা হয়নি তার অনিষ্ট হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৫৯. মাটিতে ধসে যাওয়া হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৬০. উঁচু স্থান হতে পড়া এবং ঘরচাপা পড়া হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৬১. আল্লাহর অসন্তুষ্টি হতে আল্লাহর সন্তুষ্টির আশ্রয় গ্রহণ
  • ৬২. কিয়ামত দিবসের সংকীর্ণাবস্থা হতে আশ্রয় প্রার্থনা করা
  • ৬৩. যে দুআ শ্রবণ করা হয় না, তা থেকে আশ্রয় চাওয়া
  • ৬৪. যে দু'আ কবুল হয় না, তা থেকে পানাহ চাওয়া
  • ৫২/ বিভিন্ন প্রকার পানীয় [ও তার বিধান] (كتاب الأشربة) ২২০ টি | ৫৫৩৯-৫৭৫৮ পর্যন্ত 52/ The Book of Drinks
  • ১. মদ হারাম হওয়া সম্পর্কে
  • ২. মদ হারাম হওয়ার পর যে পানীয় ফেলে দেয়া হয়, তার বর্ণনা
  • ৩. কাঁচা ও শুকনো খেজুর মিশ্রিত পানীয়ের 'মদ' নামকরণ
  • ৪. পেকে ওঠা খেজুর ও শুকনো খেজুরযোগে তৈরি পানীয় পানের নিষেধাজ্ঞার ভিত্তিতে যে কোন দুই উপাদানযোগে তৈরি পানীয়ের নিষিদ্ধতা
  • ৫. আধাপাকা ও হলদে হয়ে ওঠা খেজুরের মিশ্রণ
  • ৬. কাঁচা ও পাকা খেজুরের মিকচার
  • ৭. হলদে হয়ে ওঠা ও কাঁচা খেজুরের মিশ্রণ
  • ৮. কাঁচা ও পাকা তাজা খেজুরের মিশ্রণ
  • ৯. কাঁচা এবং পাকা শুকনো খেজুরের মিশ্রণ
  • ১০. কাঁচা খেজুর ও কিশমিশের মিশ্রণ
  • ১১. ভেজা খেজুর ও আঙুরের মিশ্রণ
  • ১২. কাঁচা খেজুর ও কিশমিশ মিশ্রিত করা
  • ১৩. দুই উপাদান মিশ্রিত করা নিষেধ হওয়ার কারণ তাতে একটির উপর অন্যটি প্রবল হয়ে মাদকতার স্তরে পৌঁছে যেতে পারে
  • ১৪. নেশাকর হওয়ার আগে শুধু কাঁচা খেজুরের পানীয় পানের অনুমতি
  • ১৫. মুখবন্ধ পাত্রে নাবীয তৈরির অনুমতি
  • ১৬. শুধু খেজুর ভেজানোর অনুমতি
  • ১৭. শুধু কিশমিশ দ্বারা নাবীয তৈরি
  • ১৮. কাঁচা খেজুরকে পৃথক ভেজানো
  • ১৯. (وَمِنْ ثَمَرَاتِ النَّخِيلِ وَالْأَعْنَابِ تَتَّخِذُونَ مِنْهُ سَكَرًا وَرِزْقًا حَسَنًا) এর ব্যাখ্যা
  • ২০. মদ হারাম হওয়ার সময় যে সব বস্তু দ্বারা মদ তৈরি হতো তার বর্ণনা
  • ২১. ফল এবং খাদ্য থেকে তৈরি নেশাকর পানীয়সমূহ হারাম
  • ২২. প্রত্যেক নেশাকর পানীয়ের জন্যই খামর (মদ) নাম প্রযােজ্য
  • ২৩. প্রত্যেক মাদকদ্রব্য হারাম
  • ২৪. মিযর ও বিত-এর ব্যাখ্যা
  • ২৫. যা অধিক পানে মাদকতা আসে, তা হারাম
  • ২৬. যবের তৈরি শরাব পান করা নিষেধ
  • ২৭. যে পাত্রে নবী (ﷺ) এর নাবীয তৈরি করা হত
  • ২৮. মাটির পাত্রে নাবীয তৈরি করা নিষেধ
  • ২৯. সবুজ কলসি
  • ৩০. কদুর পাত্রে নাবীয তৈরি করা নিষেধ
  • ৩১. কদুর খোল এবং আলকাতরা মাখানো কলসির নাবীয নিষেধ
  • ৩২. কদুর খোল, মাটির পাত্র এবং কাঠের পাত্রে নাবীয তৈরি করা নিষেধ
  • ৩৩. কদুর খোল, মাটির পাত্র ও আলকাতরা মাখা কলসে নাবীয নিষেধ হওয়া
  • ৩৪. কদুর খোল, কাঠের পাত্র, আলকাতরা মাখা পাত্র ও সবুজ কলসে নাবীয পানে নিষেধাজ্ঞা
  • ৩৫. আলকাতরা মাখা পাত্র
  • ৩৬. উপরোল্লিখিত পাত্রসমূহের নিষেধাজ্ঞা চূড়ান্ত হারাম পর্যায়ের, কেবল শিষ্টাচারমূলক নয়, এ কথার দলীল
  • ৩৭. পাত্রসমূহের ব্যাখা
  • ৩৮. যে সকল পাত্রে নাবীযের অনুমতি রয়েছে
  • ৩৯. মাটির পাত্রের অনুমতি প্রসঙ্গে
  • ৪০. যে যে পাত্রের অনুমতি দেয়া হয়েছে
  • ৪১. মদের প্রকৃত অবস্থা
  • ৪২. মদপান কী গুরুতর পাপ তার নির্দেশক হাদীসসমূহ
  • ৪৩. মদ্যপায়ীর সালাতের অবস্থা নির্দেশক হাদীস
  • ৪৪. মদ্যপান থেকে যে সকল পাপ জন্ম নেয়
  • ৪৫. মদ্যপায়ীর তাওবা
  • ৪৬. মাদকাসক্তদের পরিণাম
  • ৪৭. মদ্যপায়ীকে নির্বাসন দেওয়া
  • ৪৮. যারা মাদকদ্রব্যকে বৈধ বলেছেন, তাদের দলীল
  • ৪৯. মদ্যপায়ীর লাঞ্ছনা ও কঠিন শাস্তি
  • ৫০. সন্দেহযুক্ত বস্তু ত্যাগের প্রতি উৎসাহ দান
  • ৫১. শরাব প্রস্তুতকারীর নিকট কিশমিশ বিক্রি করা অনুচিত
  • ৫২. আঙুরের রস বিক্রি করা মাকরূহ
  • ৫৩. কোন প্রকার দ্রাক্ষারস পান করা জায়েয এবং কোন প্রকার পান করা জায়েয নয়
  • ৫৪. কোন রস পান করা যায় এবং কোন রস পান করা যায় না
  • ৫৫. যে সব নাবীয পান করা জায়েয আর যেসব নাবীয পান করা নাজায়েয
  • ৫৬. নাবীযের ব্যাপারে ইব্রাহীমের থেকে বর্ণনাকারীদের মতপার্থক্য
  • ৫৭. বৈধ পানীয় সম্পর্কে